ঢাকা     সোমবার   ০৪ জুলাই ২০২২ ||  আষাঢ় ২০ ১৪২৯ ||  ০৪ জিলহজ ১৪৪৩

বিএনপির সাবেক এমপি জ্যোতির ৭ বছরের জেল 

বগুড়া প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ০০:৩৯, ২০ মে ২০২২  
বিএনপির সাবেক এমপি জ্যোতির ৭ বছরের জেল 

নূর আফরোজ বেগম জ্যোতি

দুর্নীতির মামলায় বিএনপির সাবেক এমপি নূর আফরোজ বেগম জ্যোতিকে ৭ বছর কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। সেই সঙ্গে অবৈধভাবে অর্জিত ৫৩ লাখ টাকা অর্থদণ্ড রাষ্ট্রীয় কোষাগারে জমা দিতে বলা হয়েছে। 

বৃহস্পতিবার (১৯ মে) বিকেল সাড়ে ৪টায় বগুড়া স্পেশাল জজ আদালতের বিচারক এমরান হোসেন চৌধুরী এই রায় দেন। 

এসময় জ্যোতি আদালতে উপস্থিত ছিলেন। রায় শেষে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন দুদকের আইনজীবী আবুল কালাম আজাদ।

নূর আফরোজ বেগম জ্যোতি জাতীয়তাবাদী মহিলা দলের কেন্দ্রীয় সহ সাংগঠনিক সম্পাদক ও বগুড়া জেলা বিএনপির সাবেক উপদেষ্টা। তিনি অষ্টম জাতীয় সংসদের মহিলা আসন-১ থেকে মনোনীত সংসদ সদস্য ছিলেন। তিনি শহরের কাটনারপাড়ার প্রফেসর আবদুর রউফের স্ত্রী।

জানা গেছে, নূর আফরোজ জ্যোতির বিরুদ্ধে ২৮ লাখ টাকার সম্পদ গোপন এবং অবৈধভাবে ৫৩ লাখ টাকার সম্পদ অর্জনের অভিযোগে ২০১৪ সালে ১৫ ডিসেম্বর বগুড়ার তৎকালীন দুদক জেলা কার্যালয়ের এডি মো. ফারুক হোসেন বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন এবং তদন্ত শেষে ২০১৬ সালের ২২ নভেম্বর আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। 

মামলার বিচারকাজ শুরু হয় ২০১৭ সালে। গত বুধবার (১১ মে) এই মামলার যুক্তিতর্ক শুনানি ছিল। ওই দিন নূর আফরোজ বেগম জ্যোতির আইনজীবী সময় প্রার্থনা করেন। কিন্তু আদালত সময় আবেদন নামঞ্জুর করে তার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন। একই সাথে এই মামলার রায় ঘোষণার দিন ঘোষণা করেছিলেন।

বগুড়ায় দুদকের পাবলিক প্রসিকিউটর অ্যাডভোকেট আবুল কালাম আজাদ জানান, অবৈধ সম্পদ অর্জন আর সম্পদের তথ্য গোপন মামলার একটি ২ বছর জেল আর ৫০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো ৩ মাস জেল। আরেকটিতে ৫ বছর জেল এবং ৫৩ লাখ ২২ হাজার ৭৯০ টাকা রাষ্ট্রীয় কোষাগারে জমা দিতে বলা হয়েছে। রায় ঘোষণার সময় নূর আফরোজ জ্যোতি আদালতে উপস্থিত ছিলেন। পরে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

এনাম/এনএইচ

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়