ঢাকা     বুধবার   ০৬ জুলাই ২০২২ ||  আষাঢ় ২২ ১৪২৯ ||  ০৬ জিলহজ ১৪৪৩

চাঁপাইনবাবগঞ্জে চাহিদার চেয়ে বেশি কোরবানির পশু প্রস্তুত

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৫:২৩, ২৩ জুন ২০২২   আপডেট: ১৫:৩৯, ২৩ জুন ২০২২
চাঁপাইনবাবগঞ্জে চাহিদার চেয়ে বেশি কোরবানির পশু প্রস্তুত

ফাইল ফটো

কোরবানি ঈদকে ঘিরে প্রতি বছরের মতো এবারও পশু মোটাতাজা করেছেন চাঁপাইনবাবগঞ্জের কৃষক ও খামারিরা। দেশের বিভিন্নস্থানে বন্যা হওয়ায় নায্য দাম পাওয়া নিয়ে নিয়ে শঙ্কায় আছেন তারা। 

তবে স্থানীয় প্রাণী সম্পদ বিভাগ বলছে, এ  বছর চাঁপাইনবাবগঞ্জে চাহিদার চেয়ে বেশি কোরবানির পশু মজুত রয়েছে। যা বাইরের জেলাগুলোতেও সরবরাহ করা হবে।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রাণী সম্পদের তথ্য মতে, এ বছর জেলার ১১ হাজার ৫৪৯টি খামারে ১ লাখ ৬৫ হাজার ৬১৫টি কোরবানি যোগ্য পশু প্রস্তুত করছেন খামারিরা। জেলায় মোট গরু-মহিষ আছে ৮৮ হাজার ৪৭৬টি, আর ছাগল-ভেড়া আছে ৭৭ হাজার ১৩৯টি। এরমধ্যে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলায় ৩ হাজার ২৩৫টি খামারে কোরবানি যোগ্য গরু-ছাগল আছে ৭৭ হাজার ৮২২টি, শিবগঞ্জ উপজেলায় ৫ হাজার ৫৭৬ টি খামারে পশু আছে ৩৫ হাজার ১২৫টি, নাচোল উপজেলায় ৭৩৩টি খামারে ৯ হাজার ৮৩৫টি, গোমস্তাপুর উপজেলায় ৯৭৫টি খামারে ২৯ হাজার ৭৩৪টি, আর ভোলাহাটে ১ হাজার ৩০টি খামারে ১৩ হাজার ৯৯টি গরু-ছাগল প্রস্তুত করেছেন খামারিরা।

এ বছর চাপাইনবাবগঞ্জে কোরবানির লক্ষ্য মাত্রা ধরা হয়েছে ১ লাখ ১৩ হাজার ৩৯৩টি পশু।

স্থানীয় খামারি মুনিরুল ইসলাম রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘দেশের বিভিন্ন জেলায় বন্যা দেখা দিয়েছে। আমাদের চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে বন্যা কবলিত অনেক এলাকার ব্যাপারীরা গরু কিনে নিয়ে যান। কিন্তু কোরবানির ঈদ কাছিয়ে আসছে, তাদের কোনো খবর নেই। তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছি, কিন্তু তারা এবার গরু কিনতে আসবেন কিনা সঠিকভাবে বলতে পারছে না। বাইরের জেলার ব্যাপারীরা না আসলে সঠিক দাম পাওয়া নিয়ে খামারিদের ভুগতে হবে।’

গরুর খামারি এসএম কামাল বলেন, ‘ আমার খামারে কোরবানি যোগ্য গরু-ছাগল আছে। বন্যার আগে থেকেই গো-খাদ্যের দাম বেশি।  দেশের বিভিন্ন স্থানে বন্যা হওয়ায় গরু-ছাগলের খাবারের দাম আরো বেড়ে গেছে। আগের চেয়ে প্রায় দ্বিগুন দামে খৈল, ভুষি, খড় কিনতে হচ্ছে। এমন করে চলতে থাকলে গরুর নায্য দামও পাওয়া যাবে কিনা সন্দেহ।’

চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রাণিসম্পদ অফিসার ডা. মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ‘চাঁপাইনবাবগঞ্জে এবার কোরবানির ঈদে লক্ষমাত্রার চেয়ে ৫২ হাজার ২২২টি পশু বেশি আছে। কোরবানি যোগ্য এসব পশু চাঁপাইনবাবগঞ্জের চাহিদা মিটিয়ে অন্য জেলাতে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হবে।’

মেহেদী/ মাসুদ

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়