ঢাকা     শুক্রবার   ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২ ||  আশ্বিন ১৫ ১৪২৯ ||  ০৩ রবিউল আউয়াল ১৪১৪

বাহুবলে বন্ধ হলো সেই সীসা কারখানা

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২২:২৬, ১৪ আগস্ট ২০২২  
বাহুবলে বন্ধ হলো সেই সীসা কারখানা

হবিগঞ্জের বাহুবল উপজেলার রুপাইছড়া রাবার বাগানের পাশে স্থাপিত ব্যাটারি পুড়িয়ে সীসা তৈরির অবৈধ কারখানা বন্ধ করেছে প্রশাসন। ভবিষ্যতে এমন কারখানা স্থাপন করলে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও কারখানা সংশ্লিষ্টদের সতর্ক করা হয়েছে। 

রোববার (১৪ আগস্ট) রাতে এ কারখানা বন্ধ করে দেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেন বাহুবল উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মহুয়া শারমিন ফাতেমা। 

কারখানার কারণে বাহুবল উপজেলার পরিবেশ মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছিলো। এ নিয়ে আদালত থেকে পরিবেশ অধিদপ্তরকে তদন্তের আদেশ দেওয়া হয়। পরে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. রুহুল আমীনসহ অন্য কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে গিয়ে সেটি বন্ধের নির্দেশনা দেন। 

বুধবার (১০ আগস্ট) হবিগঞ্জের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. জাকির হোসাইন হবিগঞ্জ পরিবেশ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালককে আগামী ১৮ সেপ্টেম্বরের মধ্যে এ সংক্রান্ত তদন্তের আদেশ দেন।

আদেশে বলা হয়, বাহুবল উপজেলার রূপাইছাড়া রাবার বাগান এলাকায় অবৈধ কারখানায় পরিত্যক্ত ও অকেজো ব্যাটাড়ি পুড়িয়ে এসিড, সীসা ও অন্যান্য উপাদান সংগ্রহ করা হয়। এতে পাহাড়ি ছড়া ও পরিবেশ মারাত্মকভাবে দূষণের শিকার হচ্ছে। পরিবেশ সংরক্ষণ আইন, ১৯৯৫ ও বিধি ১৯৯৭ মোতাবেক এমন কারখানা স্থাপন ও কর্মকান্ডের ক্ষেত্রে আইনটির বিধি অনুসরণ করা বাধ্যতামূলক। কিন্তু ওই প্রতিষ্ঠানটি বিধি অনুসরণ করেনি, যা শাস্তিযোগ্য অপরাধ। এ নিয়ে গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ হলেও পরিবেশ অধিদপ্তরে কোনো মামলা দায়ের হয়নি। 

এতে আরও বলা হয়, জনস্বার্থে ও পরিবেশ সুরক্ষার উদ্দেশ্যে ঘটনার সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিদের বিষয়ে এবং কারখানার মালিক ও পরিচালনাকারীদের বিষয়ে সরেজমিন তদন্ত করে অপরাধ উদ্ঘাটন, আসামিদের চিহ্নিতকরণ এবং উল্লেখিত ধারায় অপরাধ ছাড়াও অন্য কোনো আইনে অপরাধ সংঘটিত হয়েছে কিনা, তা বিস্তারিত তদন্ত করার প্রয়োজনীয়তা রয়েছে।

এজন্য পরিদর্শক পদমর্যাদার নিম্নে নয় এমন কর্মকর্তার মাধ্যমে সরেজমিন তদন্ত করে আগামী ১৮ সেপ্টেম্বরের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিল ও অপরাধ উদ্ঘাটন হলে পরিবেশ সংরক্ষণ আইন, ১৯৯৫ ও বিধি ১৯৯৭ অনুযায়ী নিয়মিত মামলা করার নির্দেশ দেন আদালত। 

এ বিষয়ে হবিগঞ্জ পরিবেশ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মিজানুর রহমান বলেন, `আদালতের আদেশের কপি এখনও আমার দপ্তরে আসেনি। তবে বিষয়টি নিয়ে জেলা আইন-শৃঙ্খলা কমিটির সভায় গুরুত্ব সহকারে আলোচনা হয়েছে।‘

এর আগে ৭ আগস্ট রাইজিংবিডিতে ‘ব্যাটারি পুড়িয়ে তৈরি হচ্ছে সিসা, হুমকীতে পাহাড়ের পরিবেশ’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশ হয়েছিল।
 

মামুন/বকুল 

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়