ঢাকা     সোমবার   ২৮ নভেম্বর ২০২২ ||  অগ্রহায়ণ ১৪ ১৪২৯ ||  ০২ জমাদিউল আউয়াল ১৪১৪

বরগুনার জেলা প্রশাসকসহ ৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা

বরগুনা প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৫:০৭, ১২ সেপ্টেম্বর ২০২২  
বরগুনার জেলা প্রশাসকসহ ৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা

বরগুনার জেলা প্রশাসক মো. হাবিবুর রহমানসহ তিন জনের বিরুদ্ধে দেওয়ানী আদালতে মামলা হয়েছে।

সোমবার (১২ সেপ্টেম্বর) সকালে শহরের নজরুল ইসলাম সড়কের ব্যবসায়ী আলহাজ আবুল কালাম বাদী হয়ে বরগুনা সহকারী জেলা জজ আদালতে মামলাটি করেন। 

এদিকে মামলাটি আমলে নিয়ে আগামী ১৫ দিনের মধ্যে কারণ দর্শানো এবং আর এস খতিয়ানের নথিপত্র আদালতে জমা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক। 

মামলার অন্য বিবাদীরা হলেন- বরগুনা সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা মো. কাওসার উদ্দিন ও এসিল্যান্ড নিজাম উদ্দিন।

জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, বরগুনা শহরের এস এ অথবা আর এস খতিয়ানে রেকডভুক্ত ৩২ একর জমি খাস খতিয়ানে নিয়ে একশনা বন্দোবস্ত দেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু করে জেলা প্রশাসন। এজন্য তারা আদালত এবং ভূমি অফিসে বেশ কয়েকটি মামলা দিয়েছে স্থানীয় জমির মালিকদের বিরুদ্ধে। যারা ৭০ থেকে ১০০ বছর ধরে জমিতে বসবাস করছে। তাদের রেকর্ড বাতিল করে শহরের সব জমি খাস খতিয়ান করার জন্য ভূমি অফিসে চিঠি দিয়েছেন জেলা প্রশাসক।

এ বিষয়ে বরগুনা জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও পৌর শহরের জমির মালিক গোলাম সরোয়ার টুকু বলেন, ‘এটা প্রশাসনের এক ধরনের স্বেচ্ছাচারিতা। এভাবে ডিসি কর্তৃক ব্যবসায়ীদের মামলা দিয়ে হয়রানির কারণে ইতোমধ্যে একজন ব্যবসায়ীর মা স্ট্রোক করেছেন। তিনি এখন মৃত্যু পথযাত্রী।’

তিনি আরো বলেন, শহরের কিছু জমি ১৯৬২ সাল থেকে ইজারা নিয়ে খাজনা পরিশোধ করে দখলে রেখেছেন ব্যবসায়ীরা। কিন্তু জেলা প্রশাসন ৩২ এখক জমি ইজরা বাতিল করে ১ নম্বর খাস খতিয়ানে অন্তরভুক্তির জন্য ব্যবসায়ীদের নোটিশ দেয়। এটা ভূমি আইনের পরিপন্থী।’

এ বিষয়ে বরগুনার সহকারী কমিশনার নিজাম উদ্দিন বলেন, ‘৩২ একর ভূমি খাস খতিয়ানে নেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। সবাইকেই একে এক নোটিশ দেওয়া হবে। আমার এখানে শুনানী হবে পরে কেউ ক্ষুদ্ধ হলে এডিসি রাজস্ব অফিসে শুনানী করতে পারবেন। এরপরে বিভাগীয় কমিশনার কার্যালয়ে শুনানী হবে সেখান থেকে ভূমি কমিশনেও যাওয়ার সুযোগ রয়েছে তাদের।’ 

আদালতে দেওয়ানী মামলা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আদালত আমাদের যে নির্দেশনা দেবেন তা আমাদের মানতে হবে। আদালত স্থগিত করলে আমরা প্রক্রিয়া বন্ধ রাখবো।’

ইমরান/ মাসুদ

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়