ঢাকা     মঙ্গলবার   ২৯ নভেম্বর ২০২২ ||  অগ্রহায়ণ ১৫ ১৪২৯ ||  ০৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪১৪

চুরির অভিযোগে ব্যবসায়ীকে দুই দিন আটকে রেখে নির্যাতন

মাদারীপুর প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২২:৩৫, ১ অক্টোবর ২০২২  
চুরির অভিযোগে ব্যবসায়ীকে দুই দিন আটকে রেখে নির্যাতন

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রবিউল শেখ

মাদারীপুরের রাজৈরে চুরির অভিযোগে রবিউল শেখ নামের এক ব্যবসায়ীকে দোকান থেকে তুলে নিয়ে দুই দিন আটকে রেখে নির্যাতন করা হয়েছে। পুলিশ গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে শুক্রবার (৩০ সেপ্টেম্বর) রাতে উদ্ধার করে রাজৈর হাসপাতালে ভর্তি করেছে। ব্যবসায়ীকে নির্যাতনের প্রতিবাদে শনিবার (১ অক্টোবর) মানববন্ধন করেছেন এলাকাবাসী। ইতোমধ্যে প্রধান অভিযুক্ত সুমন শেখকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

ভুক্তভোগী রবিউল শেখ (৩০) রাজৈর পৌরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডের ঘোষালকান্দি এলাকার মৃত খোকন শেখের ছেলে। টেকেরহাট বন্দর এলাকায় ‘মায়ের দোয়া ফল ভাণ্ডার’ নামে একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান আছে তার।

পুলিশ জানায়, চুরির অভিযোগে বুধবার রাতে নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে রবিউলকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়। পার্শ্ববর্তী গোপালগঞ্জের মকসুদপুর উপজেলার হরিশ্চর এলাকায় একটি ঘরে আটকে রেখে তার ওপর নির্যাতন চালান ৪-৫ জন। স্থানীয়রা বিষয়টি বুঝতে পেরে পুলিশকে খবর দেন। শুক্রবার রাতে রবিউলকে উদ্ধার করে রাজৈর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে পুলিশ। এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচারের দাবিতে শনিবার টেকেরহাট বাসস্ট্যান্ডে মানববন্ধন করেছেন রবিউলের স্বজন ও এলাকাবাসী।

অভিযুক্ত সুমন শেখ বলেছেন, ‘আমার মামার গ্যারেজ থেকে ইজিবাইক চুরি হয়। সন্দেহভাজন হিসেবে রবিউলকে জিজ্ঞাসাবাদ করি। এ সময় অন্যদের পাশাপাশি আমিও তাকে দুটি বাড়ি দেই।’

রাজৈর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক হামিদা আক্তার বলেছেন, ‘রবিউলের উন্নত চিকিৎসা প্রয়োজন। তার শরীরে মারধর ও আঘাতের চিহ্ন আছে।’

রাজৈর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আলমগীর হোসেন বলেছেন, ‘রবিউলের ওপর নির্যাতনের ঘটনায় প্রধান অভিযুক্ত সুমন শেখকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বাকিদের ধরতে অভিযান চলছে।’

বেলাল/রফিক

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়