ঢাকা     সোমবার   ২৮ নভেম্বর ২০২২ ||  অগ্রহায়ণ ১৪ ১৪২৯ ||  ০৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪১৪

সরকারি কর্মকর্তার বাড়িতে বিয়ের দাবিতে ছাত্রীর অনশন

নওগাঁ সংবাদদাতা || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৬:১৭, ৩ অক্টোবর ২০২২   আপডেট: ১৬:২২, ৩ অক্টোবর ২০২২
সরকারি কর্মকর্তার বাড়িতে বিয়ের দাবিতে ছাত্রীর অনশন

বিয়ের দাবিতে অনশনে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী

নওগাঁর মান্দায় বিয়ের দাবিতে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থী (২৩) দুইদিন ধরে প্রেমিকের বাড়িতে অনশন করছেন। বিয়ের দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত অনশন চালিয়ে যাওয়াসহ আত্মহত্যার হুমকিও দিয়েছেন তিনি।

প্রেমিকের নাম মিঠুন কুমার মণ্ডল (৩২)। তিনি উপজেলার বিষ্ণুপুর ইউনিয়নের পারইটুঙ্গী গ্রামের বিমল চন্দ্র মণ্ডলের ছেলে। নওগাঁর বদলগাছি উপজেলা যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরে সহকারী কর্মকর্তা হিসেবে কর্মরত আছেন তিনি।

ভুক্তভোগী তরুণী জানান, ফেসবুকের মাধ্যমে প্রায় একবছর আগে মিঠুন কুমারের সঙ্গে তার পরিচয় হয়। একপর্যায়ে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। সেই সূত্র ধরে মিঠুন রাজশাহী শহরে তার সঙ্গে একাধিকবার দেখা করেন।

তিনি বলেন, ‘গত ২২ আগস্ট মিঠুন আমাকে রাজশাহী শহরের বোয়ালিয়া থানার পাশে একটি ছাত্রাবাসে নিয়ে যায়। ওই ছাত্রাবাসে তার মামাতো ভাই রকি লেখাপড়া করে। ওই রাতে মিঠুন ও আমি একসঙ্গে থাকি। এসময় বিয়ের প্রলোভনে মিঠুন একাধিকবার শারীরিক সম্পর্ক করে।’

ওই ছাত্রী অভিযোগ করে বলেন, ‘এরপর থেকে মিঠুন আমার সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ করে দেয় এবং ফোনও রিসিভ করে না। এ অবস্থায় অনেক কষ্টে মিঠুনের গ্রামের ঠিকানা সংগ্রহ করে এখন বিয়ের দাবিতে অনশন করছি। দাবি পূরণ না হলে আত্মহত্যা করবো।’

বিষ্ণুপুর ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য বেলাল হোসেন বলেন, ‘খবর পেয়ে শনিবার (১ অক্টোবর) সন্ধ্যার দিকে ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই শিক্ষার্থীকে বোঝানোর চেষ্টা করা হয়েছে। কিন্তু তরুণী বিয়ের দাবিতে অনড়। অবস্থা বিবেচনায় গ্রাম পুলিশের পাহারায় তাকে প্রতিবেশী সুকেশ চন্দ্র মণ্ডলের বাড়িতে রাখা হয়েছে। বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও মান্দা থানার ওসিকে অবহিত করা হয়েছে।’

সাজু/কেআই

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়