ঢাকা, সোমবার, ১১ ফাল্গুন ১৪২৬, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

ফাগুনের ভালোবাসায় শাবির জন্মদিন

মাসুদ আল রাজী : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০২-১৪ ১:৩০:২১ পিএম     ||     আপডেট: ২০২০-০২-১৪ ১:৩০:২১ পিএম

উচ্চ মাধ্যমিক শেষ করে নিজ এলাকা ছেড়ে এসে একজন শিক্ষার্থীর নতুন ভালোবাসার স্থান হয় নিজের বিশ্ববিদ্যালয়। নতুন ক্যাম্পাস এক অদ্ভুত ভালোবাসায় জড়িয়ে নেয়।

ক্যাম্পাসে ঘোরাঘুরি, বন্ধুদের সাথে আড্ডা, খুনসুটি, গল্প, টং দোকানে চা খাওয়া, নিয়মিত ক্লাসে প্রক্সি দেয়াসহ অদ্ভুত আবহে মেতে থাকে ক্যাম্পাসের তরুণ-তরুণীরা। বিশ্বদ্যিালয়ের এমন ভালোবাসার বিষয়টা শিক্ষার্থীদের পরবর্তী জীবনের সাথে ওতপ্রোতভাবে জড়িত।

আজ শুক্রবার, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্মদিন। ১৯৯১ সালের পহেলা ফাল্গুন, ১৩ ফেব্রুয়ারি যাত্রা শুরু করে দেশের প্রথম এ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়। প্রতিষ্ঠার পর এত দিন ১৩ ফেব্রুয়ারি শাবিপ্রবির জন্মদিন পালিত হলেও এ বছর বাংলা দিনপঞ্জি পরিবর্তিত হওয়ায় পয়লা ফাল্গুন ১৪ ফেব্রুয়ারিতে অনুষ্ঠিত হচ্ছে। তারই ধারাবাহিকতায় শাবিপ্রবি প্রশাসন পয়লা ফাল্গুনই শাবিপ্রবির জন্মদিন পালন করার সিদ্ধান্ত নেয়। এবছর তাই শাবিপ্রবি দিবস, ভালোবাসা দিবস ও পয়লা ফাল্গুন একই দিনে উদযাপন করছে এ ক্যাম্পাস।

নিজের ক্যাম্পাসের প্রতি শিক্ষার্থীদের ভালোবাসা থাকে অকৃত্রিম। প্রতিষ্ঠার ৩০ বছরেও ক্যাম্পাসের প্রতি ভালোবাসার কমতি হয়নি সেই ২৫ বছর আগে ক্যাম্পাস ত্যাগ করা কোনো শিক্ষার্থীর। ক্যাম্পাসের ভালোবাসাটাই অন্য রকম, এখানে প্রিয় মানুষের সান্নিধ্যে থাকার নাম ভালোবাসা, একসঙ্গে পড়াশোনা করার নাম ভালোবাসা, দলবেঁধে একসঙ্গে আড্ডা দেয়ার নাম ভালোবাসা।

ক্যাম্পাসকে ঘিরেই ভালোবাসার ঋতু বদলায়। অদ্ভুত সব স্বপ্নেরা ভিড় করে এ ক্যাম্পাসে। ঋতুরাজ বসন্তের প্রারম্ভে, কোকিলের মন উদাসকরা কুহু ডাকের এবং গাছের নতুন পুষ্প-পল্লবে মনোহরী আবহে প্রিয় মানুষটির জন্য মন কেঁদে উঠবে না তা কী হয়?

তাই সময় এখন মনের কোণে লুকিয়ে থাকা ভালোবাসা প্রকাশের। ক্যাম্পাসসহ শহরের সকল তরুণ-তরুণীদের কাছে এই ভালোবাসা প্রকাশের মোক্ষম সময় ভালোবাসা দিবস। ভালোবাসা দিবসে তরুণ-তরুণীরা শাবি ক্যাম্পাসে ঘুরতে ক্লান্তবোধ করেন না। ক্যাম্পাসের আইসিটি বিল্ডিং, শহীদ মিনারসহ বিভিন্ন স্থানে আড্ডায় দেখা মেলে বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষার্থীদের।

শুধু বিশ্বদ্যিালয়ের কথা চিন্তা করলে, গত ২৯ বছরে অসংখ্য অর্জন আছে এ বিশ্ববিদ্যালয়ের, যা কেবল দেশব্যাপী নয়, ভালোবাসায় সিক্ত হয়েছে আন্তর্জাতিক পরিসরেও। উদ্ভাবন, গবেষণা ও বৈশ্বিক বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন, প্রযুক্তির ব্যবহার, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা আর মুক্ত সংস্কৃতির বাঁধনে খুব অল্প সময়ের মধ্যেই পরিচিতি লাভ করেছে দেশের অন্যতম সেরা বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে।

ক্যাম্পাসের চত্বরগুলো বন্ধুত্বের ভালোবাসায় সিক্ত হোক। বন্ধুত্বের এ বন্ধনে ভরে যাক শাবির প্রতিটা ডিপার্টমেন্টের করিডোরগুলো। ভালোবাসায় ভরে যাক হুটহাট আড্ডাগুলো, বিকেল বেলা থেকে গোধূলি পর্যন্ত আকাশ দেখার মুহূর্তগুলো আর রাতের আঁধারের গাঢ়তায় টিকে থাকুক বন্ধুত্ব।

প্রাকৃতিক সৌন্দর্যমণ্ডিত ক্যাম্পাসের অধিকারী শাবিপ্রবিকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা। শুভ জন্মদিন শাবিপ্রবি, অনন্ত যৌবনা হয়ে শাবিপ্রবির আলোকরশ্মি ছড়িয়ে পড়ুক দেশ-বিদেশে। অবিরাম ভালোবাসায় থাকুক ক্যাম্পাসের প্রতিটি ক্লাসরুম, ভালোবাসায় সিক্ত থাকুক গোলচত্বর, শহীদ মিনারের একশত সিড়ি, ভালোবাসায় থাকুক রোবট ‘লি’ আর ‘রিবো’, ভালোবাসায় সিক্ত হোক শাবিপ্রবি’র প্রতিটি সংগঠন।

লেখক: শিক্ষার্থী, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়।

 

শাবিপ্রবি/হাকিম মাহি

     
 

রাইজিংবিডি স্পেশাল ভিডিও