ঢাকা, শনিবার, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ৩০ মে ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

করোনায় জবিয়ানের পাশে জবিয়ান

অনিক রহমান : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০৪-০৭ ৪:২১:১৬ পিএম     ||     আপডেট: ২০২০-০৪-০৭ ৪:২১:১৬ পিএম

সাড়ে ৭ একরের অনাবাসিক একটি ক্যাম্পাস জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়। এমনিতে এখানে অধ্যায়নরত শিক্ষার্থীরা ভোগেন হল সংকটে। তার উপর ভোগান্তিতে নতুন মাত্রা যোগ করেছে করোনা। এতে বিপর্যস্ত হয়ে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান রয়েছে বন্ধ। এমন অবস্থায় নতুন করে বিপাকে পড়েছেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

বাংলাদেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়তে আসা শিক্ষার্থীদের একমাত্র অবলম্বন টিউশন। কেউ কেউ আবার পড়ালেখার পাশাপাশি করেন খণ্ডকালীন চাকরি। আর্থিক অস্বচ্ছলতার কারণে বাধ্য হয়ে কেউ বা কাজ করছেন বিভিন্ন ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানে। কারো বাবা হয়তো বেঁচে নেই, কারো বাবা আছেন তবে দিনমজুর, আবার শিক্ষার্থী হয়েও রিকশা চালান এমন নজিরও আছে।

বর্তমানে করোনা পরিস্থিতির কারণে টিউশনসহ বন্ধ আছে সবকিছু। দেশের নানা প্রান্ত থেকে পড়তে আসা শিক্ষার্থীদের একমাত্র উপার্জন ব্যবস্থাটাও আজ বন্ধ হয়ে গিয়েছে। মেস ভাড়া, বাসা ভাড়া, খাদ্য সংকটসহ নানা সমস্যায় ভুগছেন তারা। এই অবস্থায় তাদেকে সাহায্য করতে এগিয়ে এসেছেন তাদেরই দ্বিতীয় পরিবার জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় পরিবার।

পরিবারের কোনো ভাই অসুস্থ হলে সেটি দেখে অপর ভাইয়েরা যেমন এগিয়ে আসেন, এটি যেন ঠিক তেমনই দৃষ্টান্ত। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ‘করোনা মোকাবিলায় জবিয়ানের পাশে জবিয়ান’ নামক ভার্চুয়াল প্ল্যাটফর্মও তৈরি করা হয়েছে। যেখানে বিপাকে পড়া শিক্ষার্থীদের জন্য সাহায্য চেয়ে পোস্ট করা হয়। আশ্চর্যজনক হলেও সত্যি, মাত্র তিন দিনে এখানে সাহায্যের পরিমাণ প্রায় পঞ্চাশ হাজার টাকা। যার সবটুকুই জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের জন্য জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের উপহার। শুধু উচ্চশিক্ষা নয়, মানবতার এক বিরল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদ জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি রাইসুল ইসলাম নয়ন বলেন, ‘আসলে যারা এখন সমস্যায় আছেন, তারা পরিস্থিতির শিকার। তাই সবার উচিৎ সবার পাশে দাঁড়ানো৷ আমরা আজ পর্যন্ত ৩৫ জনকে আমাদের সাহায্য উপহার হিসেবে পাঠিয়েছি। আমরা আমাদের এই কার্যক্রম অব্যাহত রাখব।’

অস্বচ্ছল শিক্ষার্থীদের জন্য এমন উদ্যোগ শিক্ষার্থীরা বেশ ভালো চোখেই দেখছেন। তারা বলেন, ভোগান্তিতে পড়া জবিয়ান আমাদেরই ভাই আমাদেরই বোন। তাদের সাহায্য করা আমাদের একান্ত প্রয়োজন।


জবি/হাকিম মাহি