ঢাকা     মঙ্গলবার   ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ ||  আশ্বিন ১৪ ১৪২৭ ||  ১১ সফর ১৪৪২

কুবি ক্যাম্পাসে শরতের মিতালি

জুবায়ের রহমান || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৭:২৩, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২০  
কুবি ক্যাম্পাসে শরতের মিতালি

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়

করোনাকালে অন্যান্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ন্যায় বন্ধ কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় (কুবি) ক্যাম্পাসও। ফলে শিক্ষার্থীদের একটি বড় অংশ বাড়িতে অবস্থান করছেন। স্বল্প সংখ্যক শিক্ষার্থী অবস্থান করছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের আশেপাশে। তাদের ওই সীমিত পরিসরের উপস্থিতিও যেন ক্যাম্পাসকে দিচ্ছে সঞ্জীবনী শক্তি।  

প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে ভরপুর লালমাটির সবুজ ক্যাম্পাসের বর্তমান আকর্ষণ কাশবন। ওই কাশবন লালমাটির পাহাড়গুলোকে দিয়েছে আরও বেশি লাবণ্য। ফলে শিক্ষার্থীদের কেউ কেউ কিছু সময় হলেও ঘুরে যাচ্ছেন মধ্য পূর্বাঞ্চলের এই শ্রেষ্ঠ বিদ্যাপীঠে। 

শরতের উচ্ছ্বাস, কাশফুলের শুভ্রতা, নির্মল বায়ু, সাদা মেঘের নীল আকাশ, শেষ বিকেলের নরম রোদ, লালমাটির আবরণ ভেদ করে গজানো চিরসবুজ গাছগাছালি, রাস্তার পাশ ধরে কৃষ্ণচূড়ার পাতার বাহার, সবুজ ঘাসের চাদরে আবৃত চারপাশ আর উন্মুক্ত খেলার মাঠ কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসকে দিয়েছে এক মনোমুগ্ধকর পরিবেশের ছোঁয়া। শিক্ষার্থীদের হৃদয়ে এনেছে উচ্ছ্বাস। নজর কেড়েছে শহরবাসীর।

লালমাই-ময়নামতি অঞ্চলজুড়ে সারাবছর দর্শনার্থীদের ভিড় জমে থাকে। পাশাপাশি কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়েও ঘুরে যান ভ্রমণ পিপাসুরা। চষে বেড়ান কুবির জিরো পয়েন্ট থেকে শহীদ মিনার হয়ে লালমাটির পাহাড়গুলো। 

কোটবাড়ি অঞ্চলের দর্শনীয় স্পটগুলো করোনা সমস্যায় বন্ধ থাকায় সুনসান নীরবতা এখানে। তবে তার বিপরীত চিত্রের দেখা মেলে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে। শেষ বিকেলে কুবির শহীদ মিনার কিংবা লালপাহাড়ের চূড়ায় দর্শনার্থীদের ভিড় যেন লেগেই থাকে। শহর থেকে ছুটে আসেন নবীন-কিশোর কিংবা পৌঢ়-বৃদ্ধের দল।

শহরের অদূরে অবস্থিত ক্যাম্পাসের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য উপভোগ করতে চলে আসেন প্রকৃতি প্রেমীরা। মৃদু বাতাসে কাশবনের দোলা হৃদয়ের গভীরে দাগ কাটে তাদের। ঘরবন্দি মানুষ এখানে জীবনের নতুন স্বাদ পেতে থাকেন।

খোশগল্পে সময় কাটানো তরুণ-তরুণীরা গলা ছেড়ে গান ধরেন। কেউ প্রকৃতির সঙ্গে নিজেকে ফ্রেমবন্দি করেন। স্মৃতির পাতায় নিজের অনুভূতিকে ব্যক্ত করেন এখানে। কেউবা থেমে যাওয়া কবিতার ছন্দের পূর্ণতা দিতে পেরেছেন এখানে বসে। প্রকৃতির চোখে চোখ রেখে কোথায় যেন হারিয়ে যায় মন। মন খারাপের দিনে দুঃখ-বেদনাকে ঘুম পাড়িয়েছে কত হৃদয় তার কোনো হিসেব রেখেছে কেউ?

লেখক: শিক্ষার্থী, নৃবিজ্ঞান বিভাগ, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়।

কুবি/মাহফুজ/মাহি

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়