RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     বুধবার   ২৫ নভেম্বর ২০২০ ||  অগ্রাহায়ণ ১১ ১৪২৭ ||  ০৭ রবিউস সানি ১৪৪২

ধর্ষণ প্রতিরোধে নারীদের প্রশিক্ষণ দিচ্ছে ‘চলো স্বপ্ন ছুঁই’

নুরুন্নবী জুয়েল || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৩:১০, ২১ অক্টোবর ২০২০  
ধর্ষণ প্রতিরোধে নারীদের প্রশিক্ষণ দিচ্ছে ‘চলো স্বপ্ন ছুঁই’

ইতিহাসের এক নির্মম কলঙ্কিত সময় পার করছে প্রিয় দেশ। চারদিকে নারী নির্যাতন আর হত্যা, ধর্ষণ এতটাই চরম রূপ ধারণ করেছে যে, তা হিংস্রতাকেও হার মানায়।

সম্প্রতি নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে নারী নির্যাতন, সিলেটে নববধূকে গণধর্ষণসহ একের পর এক ধর্ষণ, খুন যেন মহামারির ন্যায় বেড়েই চলছে। এ নিয়ে দেশব্যাপী ব্যাপকভাবে আন্দোলন ও বিক্ষোভ চলছে।

এমতাবস্থায় নারীদের আত্মরক্ষায় সচেতন করে তুলতে কাজ করছে রংপুরের অন্যতম স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘চলো স্বপ্ন ছুঁই’।

বিপদজনক পরিস্থিতিতে একজন নারী তৎক্ষণাত কারো সহযোগিতা পেতে পারে কিনা, তা আমরা নিশ্চিতভাবে বলতে পারি না। কিন্তু একজন নারী যদি মাথা ঠান্ডা রেখে আত্মরক্ষায় প্রয়োজনীয় পদক্ষেপগুলো রপ্ত করে প্রয়োগ করতে সক্ষম হয়, তাহলে হয়তো একজন নারী নিজেকে বিপদ থেকে উদ্ধার করতে সক্ষম হবে।

তাই সমাজের নারীদের আত্মরক্ষায় করণীয় সম্বন্ধে বিশেষভাবে দক্ষ করে তুলতে প্রশিক্ষণমূলক কর্মশালার আয়োজন করছে ‘চলো স্বপ্ন ছুঁই’। ইতিমধ্যে গত ১১ ও ১৬ অক্টোবর যথাক্রমে CSC Against Rape, Introductory Session 1.0 এবং Session 2.0 নামে দুটো ওয়ার্কশপ সম্পন্ন করেছেন তারা। আগামী ২৩ অক্টোবর তৃতীয় কর্মশালার আয়োজন করবে সংগঠনটি।

সেইসঙ্গে একজন শত্রুকে ঘায়েল করতে প্রয়োজনীয় প্রাথমিক আত্মরক্ষার উপাদানসমূহ তৈরি, ব্যবহার, শত্রুকে ঘায়েল করার কলাকৌশলসহ বিভিন্ন বিষয়ে দক্ষ করে গড়ে তুলতেও তারা কাজ করে যাচ্ছে। 

সংগঠনটির প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি মুহতাসিম আবশাদ জিসান বলেন, ‘আমরা অনেকে ধর্ষণ প্রতিরোধে শুধু মিটিং মিছিল আর জনসমাবেশের মধ্যেই সীমাবদ্ধ রাখছি, কিন্তু এটি শতভাগ কার্জকরী সমাধান নয়। একজন নারী কখন কোন অবস্থায় বিপদে পড়বে, তা কেউ জানি না। তাই ওই পরিস্থিতিতে সাহায্য করার মতো কোনো উপায় না থাকলে নারীরা যাতে মাথা ঠান্ডা রেখে শত্রুর মোকাবিলা করতে কিছুটা হলেও সক্ষম হয়, সেই প্রয়াসেই আমাদের এই প্রশিক্ষণের আয়োজন’।

সংগঠনের নারী ও শিশু বিষয়ক সম্পাদক ইলমা হোসেন বলেন, ‘সমাজে যে পরিমাণে ধর্ষণ বেড়ে চলছে, তা গোটা জাতির জন্য লজ্জাজনক। কিন্তু আমরা হাত-পা গুটিয়ে বসে তো থাকতে পারি না। তাই আমাদের রুখে দাঁড়াতে হবে। আর আমরা এমন কিছু করতে চাই, যা একজন নারীর জন্য সহায়ক হবে।’

বিশেষজ্ঞ এবং অভিজ্ঞ ব্যক্তিদের সহায়তায় নারীদের প্রশিক্ষণ দিচ্ছেন বলেও জানান ইলমা হোসেন। 

লেখক: দ্বাদশ শ্রেণি, রংপুর সরকারি সিটি কলেজ।

রংপুর/মাহি

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়