RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     বুধবার   ০২ ডিসেম্বর ২০২০ ||  অগ্রাহায়ণ ১৮ ১৪২৭ ||  ১৫ রবিউস সানি ১৪৪২

বছর ঘুরে দেবী দুর্গার আগমন

কাব্য সাহা || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৩:১৭, ২২ অক্টোবর ২০২০  
বছর ঘুরে দেবী দুর্গার আগমন

বছর ঘুরে আবার এলো দশভুজা দেবী দুর্গা। মা দুর্গা আসছে মর্ত্যে অর্থাৎ প্রচলিত কথায় বছর ঘুরে মা দুর্গা আসছে বাপের বাড়িতে। এবার দেবীর দোলায় আগমন। 

বাংলাদেশে ৬ কার্তিক (২২ অক্টোবর) রোজ বৃহস্পতিবার দেবীর আমন্ত্রণ, অধিবাস এবং ষষ্ঠী পূজার মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে পাঁচ দিনব্যাপী সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় উৎসব ‘শারদীয় দুর্গাপূজা’। আর তাই শেষ মুহূর্তে রঙ-তুলিতে সেজে উঠেছে দশভুজা দেবী দুর্গা।

শরৎকালে দুর্গাপূজাকে অকালবোধনও বলা হয়ে থাকে। অকালবোধন শব্দটির মধ্যেই লুকিয়ে আছে এর অর্থ বা কারণ। যা প্রকাশ করে অসময়ে দেবীকে আহ্বান জানানো। মূলত অকালবোধনের সঙ্গে জড়িয়ে আছে রামায়ণের অধ্যায়। সীতাকে লঙ্কাপতি রাবণের হাত থেকে উদ্ধার করার জন্য শরৎকালে রাজা রামচন্দ্র দেবী দুর্গাকে আহ্বান করেন এবং দেবী দুর্গাকে জাগ্রত করেন। আর তখন থেকেই শরৎকালে দুর্গাপূজা হয়ে আসছে, যা অকালবোধন নামেও পরিচিত। তবে এই অকালবোধন প্রথার পেছনে রয়েছে পৌরাণিক নানা কাহিনী।

প্রতি বছর অপেক্ষায় থাকেন সনাতন ধর্মের ভক্তরা আকাঙ্ক্ষিত বড় উৎসব তথা দুর্গা পূজার জন্য। এ উৎসবে পরিবারের সবার মধ্যে মিলন মেলা ঘটে। পুষ্পাঞ্জলির মাধ্যমে মা দুর্গার কাছে সবাই প্রার্থনা জানায়, পরিবার ও দেশের মঙ্গল কামনা করা হয়ে থাকে।

এবার সবার এ মিলন মেলায় মানতে হবে নানা বিধিনিষেধ। কারণ আমরা সবাই একটা খারাপ সময় পার করছি। নিজেদের ও পরিবারের সবার সুরক্ষার জন্য আমাদের নিজেদেরই নিতে হবে নানা প্রস্তুতি। তাই মাস্কের ব্যবহার ও মন্দিরে থাকবে হ্যান্ড স্যানিটেশনের ব্যবস্থা। পূজা দেখার পাশাপাশি যেন লোক সমাগম না হয়, প্রতিটি মন্দিরের কর্তৃপক্ষকে অবশ্যই নজর রাখতে হবে।

ষষ্ঠী, সপ্তমী, অষ্টমী, নবমী ও দশমীপূজার মধ্য দিয়ে মা দুর্গা গজে করে মর্ত্যলোক থেকে বিদায় নেবেন।

আমাদের সচেতন হয়ে দেবীর পূজা-অর্চনা করতে হবে ও প্রার্থনা করতে হবে সব প্রকার জরা কেটে গিয়ে করোনা মহামারির অবসান হোক, ধরিত্রীতে আবার শান্তি বিরাজ করুক, মা দুর্গার নিকট আমাদের সবার এই প্রার্থনা যেন থাকে!

লেখক: শিক্ষার্থী, স্টেট ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ।

এসইউবি/মাহি

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়