RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     বুধবার   ২০ জানুয়ারি ২০২১ ||  মাঘ ৬ ১৪২৭ ||  ০৫ জমাদিউস সানি ১৪৪২

পর্তুগালে কেন পড়তে যাবেন?

ক্যাম্পাস ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৭:৫৮, ২৯ নভেম্বর ২০২০   আপডেট: ১৮:১৬, ২৯ নভেম্বর ২০২০
পর্তুগালে কেন পড়তে যাবেন?

আপনি যদি বিদেশে পড়তে যাওয়ার পরিকল্পনা করে থাকেন তবে তালিকায় রাখতে পারেন ইউরোপের দেশ পর্তুগালকেও। পর্তুগাল একটি আধুনিক দেশ, যার আছে সমৃদ্ধ ইতিহাস। দেশটির বৈচিত্রপূর্ণ সাংস্কৃতিক ও শিক্ষাব্যবস্থায় বিদেশি শিক্ষার্থীরা নানামুখী শিক্ষা অর্জনের সুযোগ পায়।

‘ব্লু স্কাই পাবলিকেশন্স’ এর এক প্রতিবেদন বলছে, দেশটিতে পড়তে যাওয়ার ক্ষেত্রে শিক্ষার্থীর আগ্রহ বাড়াতে পারে দেশটির ‘গোল্ডেন ভিসা’। এই ভিসায় নিজের পরিবারকেও সাথে নিয়ে যাওয়া যায়। শিক্ষার্থী যে সুবিধা পান, পরিবারও সেই একই সুবিধা পায়। এর মানে হলো আপনার সন্তানেরাও পর্তুগালের সেরা স্কুল-কলেজে পড়ার সুযোগ পাবে।

সাংহাই র‍্যাংকিং কনসালটেন্সির এক জরিপের তথ্য বলছে বিশ্বের সেরা বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মাঝে আছে পর্তুগালের ছয়টি বিশ্ববিদ্যালয়। সেগুলোর মধ্যে আছে লিসবন বিশ্ববিদ্যালয় (২০০ টি সেরার মধ্যে র‍্যাংকিং), পোর্তো বিশ্ববিদ্যালয় (৩০১-৪০০ অবস্থানে রয়েছে), মিনহো বিশ্ববিদ্যালয় (৪০১-৫০০ অবস্থানে রয়েছে), আভিয়েরো বিশ্ববিদ্যালয় (৫০১-৬০০ র‍্যাংকিং), কইমব্রা বিশ্ববিদ্যালয় (৫০১-৬০০ র‍্যাংকিং) এবং নোভা ইউনিভার্সিটি অফ লিসবন (র‌্যাংকিং ৬০১-৭০০)।

পর্তুগিজ উচ্চশিক্ষা ব্যবস্থা দুই ধরণের প্রতিষ্ঠানে বিভক্ত: বিশ্ববিদ্যালয় ও পলিটেকনিক। বিশ্ববিদ্যালয়গুলি গণিত ও মেডিসিনের মতো আরও অনেক একাডেমিক বিষয় নিয়ে কাজ করে। অন্যদিকে পলিটেকনিকগুলি ব্যবসা বা নার্সিংয়ের মতো বিষয়ে বৃত্তিমূলক প্রশিক্ষণ সরবরাহ করে। আপনি বেসরকারী বা পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় এবং পলিটেকনিক যেকোনটিতে যেতে পারেন।

পর্তুগালে বর্তমানে ১৪ টি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় এবং ৩৩৬ টি বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে। পর্তুগালে ২০ টি পাবলিক পলিটেকনিক এবং ৬৪ টি বেসরকারী পলিটেকনিক রয়েছে।

পর্তুগালে দুই ধরণের ডিগ্রি নেওয়া যায়। স্নাতক ও স্নাতকোত্তর। বিশ্ববিদ্যালয় এবং পলিটেকনিক উভয়ই স্নাতক ডিগ্রি সরবরাহ করে। এগুলি সাধারণত ছয়টি সেমিস্টার বা তিন বছর মেয়াদী হয়ে থাকে। 

পলিটেকনিকাল প্রতিষ্ঠান থেকে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি শিক্ষার্থীদের বিশেষ পেশাদারি দক্ষতা প্রদান করে। অন্যদিকে সেখানকার বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতকোত্তর প্রোগ্রাম উদ্ভাবন ও গবেষণাকেন্দ্রিক। স্নাতকোত্তর ডিগ্রির সময়কাল প্রায় তিন থেকে চার সেমিস্টার (এক থেকে দুই বছর) হয়ে থাকে।

অনুন্নত ও উন্নয়নশীল দেশের অনেক শিক্ষার্থী বর্তমানে উন্নত জীবনযাপনের জন্য পর্তুগালে পাড়ি জমাচ্ছে।

ঢাকা/নোবেল

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়