Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     মঙ্গলবার   ০২ মার্চ ২০২১ ||  ফাল্গুন ১৭ ১৪২৭ ||  ১৭ রজব ১৪৪২

ববি হাল্ট প্রাইজে জয়ী যারা

বিশ্ববিদ্যালয় সংবাদদাতা || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১১:২৮, ২৩ জানুয়ারি ২০২১   আপডেট: ১১:২৯, ২৩ জানুয়ারি ২০২১
ববি হাল্ট প্রাইজে জয়ী যারা

‘ফুড ফর গুড’ এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে প্রথমবারের মতো বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত হলো বিশ্বের সব চেয়ে বড় স্টুডেন্ট প্ল্যাটফর্ম ‘হাল্ট প্রাইজ ফাউন্ডেশন’-এর বিজনেস আইডিয়া প্রতিযোগিতা।

২২ জানুয়ারী (শুক্রবার) সকাল ১০টা থেকে গুগল মিটে প্রতিযোগিতাটি শুরু হয় এবং রাত ৯টায় শেষ হয়।

এবার ১৪টি টিম প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে। চূড়ান্ত পর্যায়ে নিজেদের আইডিয়া উপস্থাপনের সুযোগ পায় সেমিফাইনালে বিজয়ী দুটি টিম যথাক্রমে (1. One point Bangladesh. 2. Food Guard)। এতে বিজয়ী হয় ‘অন পয়েন্ট বাংলাদেশ’। 

প্রতিযোগিতার ফাইনাল রাউন্ডের বিচারক বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের মার্কেটিং বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মেহেদী হাসান তার বক্তব্যে বলেন, ‘এটি আমাদের বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য একটি নতুন সুযোগ। আমাদের নিজেদের ব্র্যান্ডিং করতে হবে ও ব্র্যান্ডিং করার জন্য যদি এমন সুযোগ আসে, তাহলে সেটা আমাদের জন্য আরো ভালো হবে। আমি আশা করবো, এমন সুযোগ আরো আসবে এবং শিক্ষার্থীরা ভবিষ্যতে আরো ভালো করবে।’ 

ফাইনাল রাউন্ডের অপর বিচারক বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের কোস্টাল স্টাডিজ অ্যান্ড ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্টের গেস্ট শিক্ষক আসিফ মুনির চৌধুরী বলেন, ‘একজন শিক্ষার্থীর নিজেকে মেলে ধরা, নিজের প্রতিভা বিকাশের জন্য এ ধরনের কার্যক্রমে যুক্ত হওয়া জরুরি। এদেশে এখন তারুণ্যের জোয়ার বইছে। তারুণ্যই আগামীর শক্তি। তারাই এনে দেবে আগামী দিনের সমাধান। হাল্ট প্রাইজ বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়কে রিপ্রেজেন্ট করবে সেটি মাথায় রেখে তোমাদের সামনে এগোতে হবে। হাল্ট প্রাইজের সঙ্গে জড়িত সবাইকে অভিনন্দন ও শুভকামনা।’

এছাড়াও অপর এক বিচারক বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের বায়োকেমিস্ট্রি অ্যান্ড বায়োটেকনোলজি বিভাগের শিক্ষক সাজেদ তুহিন বলেন, ‘এই ধরনের প্রোগ্রাম আরো বেশি বেশি হওয়া দরকার, তাতে আমাদের চিন্তার বিকাশও হবে, আমাদের দেশের মানুষের জন্য ভালো ফল বয়ে নিয়ে আসবে। হাল্ট প্রাইজ আয়োজক টিমকে ধন্যবাদ।’ 

বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় হাল্ট প্রাইজের ক্যাম্পাস ডিরেক্টর বাহাউদ্দীন আবির বলেন, ‘একটি প্রতিযোগিতায় জয় পরাজয় থাকবেই। এটাই প্রতিযোগিতার নিয়ম। তবে আমাদের কাছে আসা ১৪টি আইডিয়ার ১৪টিকেই মনে হয়েছে এই দলগুলো চায় সমাজে কিছু করতে। তারা ভাবছে। একদিন এই ভাবনাই কাজে পরিণত হবে বলে আশাবাদী আমি। আমাদের আজকের বিজয়ী দল তার চমৎকার আইডিয়া, তা নিয়ে কাজ করার পরিকল্পনা ও বাস্তবায়নের উপর জোর দিয়েছে বলেই এই জয় আজ তাদের ঘরে। আমাদের এই দল রিজিওনাল স্টেজে আরো ভালো করবে বলে আশাবাদী আমরা। সবশেষে আমি এই অনুষ্ঠানে আমার টিমের প্রতিটি সদস্যকে ধন্যবাদ জানাই অক্লান্ত পরিশ্রম করে এই অনুষ্ঠানকে সফল করার জন্য।’

ববি/মাসুম/মাহি 

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়