Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     সোমবার   ১৭ মে ২০২১ ||  জ্যৈষ্ঠ ৩ ১৪২৮ ||  ০৪ শাওয়াল ১৪৪২

রাশিয়ায় ডাক্তারি বিষয়ে পড়ার আগে যা জানতে হবে 

আন্তর্জাতিক ক্যাম্পাস ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৬:১৩, ১২ এপ্রিল ২০২১  
রাশিয়ায় ডাক্তারি বিষয়ে পড়ার আগে যা জানতে হবে 

ডাক্তারি বিষয়ে পড়ালেখার জন্য সারাবিশ্বের শিক্ষার্থীদের কাছে রাশিয়া অত্যন্ত জনপ্রিয় এবং গ্রহণযোগ্য একটি দেশ। এদেশের গবেষণাভিত্তিক শিক্ষাব্যবস্থা বেশ উন্নত, যা শিক্ষার্থীদের কাছে বেশ আকর্ষণীয়। 

তাছাড়া পশ্চিমা যে কোনো দেশের তুলনায় এদেশে শিক্ষা অর্জনে ব্যয় অন্যান্য দেশের তুলনায় বেশ সাশ্রয়ী। রাশিয়ার সরকার প্রতিবছর বেশ উল্লেখযোগ্য হারে শিক্ষাখাতে ভর্তুকি দিয়ে থাকে। তাছাড়া আন্তর্জাতিক শিক্ষার্থীদের জন্য রয়েছে অজস্র স্কলারশিপ। তাই দেশটিতে মেডিক্যালসহ অন্যান্য ক্ষেত্রে বিদেশি শিক্ষার্থীদের সংখ্যা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। 

কেন শিক্ষার্থীরা মেডিক্যালে পড়তে রাশিয়াতেই যাবেন?

শিক্ষার্থীরা কি কি কারণে রাশিয়ায় মেডিক্যাল বিষয়ে পড়তে যাবেন, এই সংক্রান্ত জিজ্ঞাসা জাগতেই পারে। দেখে নেওয়া যাক উত্তরগুলো- 

১. রাশিয়ার অধিকাংশ প্রথম সারির মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে বিদেশি শিক্ষার্থীদের জন্য কোনো ভর্তি পরীক্ষা দিতে হয় না। মাধ্যমিক পরীক্ষায় পদার্থবিজ্ঞান, রসায়ন ও জীববিজ্ঞান বিষয়ে কমপক্ষে ৫০ শতাংশ নম্বর পেলেই কোনো শিক্ষার্থী রাশিয়ার মেডিক্যাল কলেজে ভর্তির সুযোগ পায়।

২. মেডিক্যালে বিদেশি শিক্ষার্থীদের পড়ালেখার জন্য সরকার বিভিন্ন রকম সুযোগ-সুবিধা দিয়ে থাকে।

৩. পশ্চিমা দেশগুলোর তুলনায় রাশিয়ায় থাকা-খাওয়ার খরচ শিক্ষার্থীদের হাতের নাগালেই।

৪. পাস করে বেরিয়ে বিশ্বের যে কোনো দেশেই কাজ করার সুযোগ রয়েছে, এদেশের শিক্ষাব্যবস্থা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ও ইউনেস্কো কর্তৃক স্বীকৃত।

৫.  রাশিয়ান ভাষা শিখতেই হবে, এমন বাধ্যবাধকতা নেই। ইংরেজি ভাষায় পড়ালেখার সুযোগ রয়েছে। 

৬. GRE, IELTS বা TOEFL স্কোরেরও বাধ্যবাধকতা নেই।

৭. ইন্টার্নশিপ চলাকালে বিশ্বমানের হাসপাতাল ও ডাক্তারদের সংস্পর্শে আসার সুযোগ।

পড়ালেখায় খরচ

রাশিয়ার মেডিক্যালে পড়ার অন্যতম বড় সুবিধা হলো সাশ্রয়ী টিউশন ফি। দেশটির সরকার প্রতিবছরই ৮০-৯০ শতাংশ ভর্তুকি দেয় অর্থাৎ বিদেশি শিক্ষার্থীদের মূলত বাকি ১০-২০ শতাংশ খরচ বহন করতে হয়। তাছাড়া শিক্ষার্থীদের জন্য কোটাভিত্তিক স্কলারশিপের ব্যবস্থার কারণে খরচ নিয়ে শিক্ষার্থীদের ভাবনা করার কারণ নেই। 

থাকা-খাওয়ার ব্যবস্থা

শিক্ষার্থীদের জন্য রয়েছে ডরমেটরিতে থাকার চমৎকার ব্যবস্থা। সাধারণত এসব ডরমেটরির অবস্থান ক্যাম্পাসেই কিংবা সামান্য দূরত্বে থাকে। প্রতিটি রুমে ৩-৪ জন শিক্ষার্থী থাকেন। একজন শিক্ষার্থীর ঠিকমতো পড়ালেখা ও থাকার জন্য যা যা দরকার, তার সবই থাকে ডরমেটরির রুমগুলোতে।

এছাড়াও ডরমেটরিতে রয়েছে রান্নাঘর, জিম, ক্যান্টিন ও কমন রুমের সুব্যবস্থা। থাকা-খাওয়া মিলিয়ে একজন শিক্ষার্থী মোটামুটি ১০-১৫ হাজার টাকা দিয়ে বেশ ভালোভাবেই মাস পার করে দিতে পারবেন।  

ভবিষ্যত কর্মসংস্থান

রাশিয়ার মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃক সার্টিফিকেট বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ও ইউনেস্কো থেকে স্বীকৃত। তাই ডিগ্রি অর্জন শেষে উন্মুক্ত হয়ে যাবে বিশ্বের যেকোনো দেশে নিজ ক্যারিয়ার গড়ার সুবর্ণ সুযোগ।

সাব্বির/মাহি  

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়