ঢাকা, শুক্রবার, ২৭ চৈত্র ১৪২৬, ১০ এপ্রিল ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

অপ্রদর্শিত অর্থ বিনিয়োগের সুযোগসহ বিএমবিএ’র ৬ প্রস্তাব

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০৩-২৬ ৪:৫০:৩৩ পিএম     ||     আপডেট: ২০২০-০৩-২৬ ৪:৫০:৩৩ পিএম

আসন্ন ২০২০-২১ অর্থবছরের বাজেটে পুঁজিবাজারে অপ্রদর্শিত অর্থ বিনিয়োগের প্রস্তাবসহ ৬ প্রস্তাব দিয়েছে মার্চেন্ট ব্যাংকগুলোর সংগঠন বাংলাদেশ মার্চেন্ট ব্যাংকার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (বিএমবিএ)।

বুধবার (২৫ মার্চ) বিএমবিএ’র পক্ষ থেকে বাজেট প্রস্তাবটি এনবিআর’র কাছে জমা দেওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৬ মার্চ) রাইজিংবিডিকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন বিএমবিএ’র সহ-সভাপতি ও আইডিএলসি ইনভেস্টমেন্টের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মো. মনিরুজ্জামান। তিনি বলেন, বিএমবিএ’র বাজেট প্রস্তাবনা নিয়ে এনবিআরের সঙ্গে বৈঠক হওয়ার কথা ছিল। তবে দেশে করোনাভাইরাস সংক্রামণের কারণে তা আর হয়নি। তবে বাজেট প্রস্তাবনাটি আমরা যথাসময়ে এনবিআরে পাঠিয়ে দিয়েছি।

বিএমবিএ’র বাজেট প্রস্তাবনায় উল্লেখ রয়েছে, বিগত কয়েক মাস ধরে করোনার আক্রমণে সারাবিশ্ব তোলপাড় অবস্থায় জনজীবন ও অর্থনৈতিক অগ্রযাত্রা সর্বত্রই নেতিবাচক প্রভাব বিস্তার করছে। বাংলাদেশেও করোনার প্রভাব দৃশ্যমান। বর্তমান প্রেক্ষাপটে দেশের অর্থনৈতিক মূলধারার বাইরে প্রচুর অর্থ আছে, যা মূলধারায় যুক্ত করা গেলে জনজীবন তথা সার্বিক অর্থনীতির গতিশীলতায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। এ অর্থ মূলধারায় যুক্ত না হলে তা অপব্যবহার বা পাচার হতে পারে। ফলে এ অপ্রদর্শিত অর্থ স্বল্প কর দিয়ে পুঁজিবাজারের মাধ্যমে অর্থনীতির মূলধারায় যুক্ত করা গেলে, জনজীবন তথা অর্থনীতি সর্বত্রই উন্নতি ঘটবে। এক্ষেত্রে মূলধারার বাইরে থাকা বা অপ্রদর্শিত অর্থ কমপক্ষে তিন বছর বিনিয়োগের শর্তে এবং সাড়ে ৭ শতাংশ হারে কর প্রদান সাপেক্ষে পুঁজিবাজারে বিনিয়োগের সুযোগ দেওয়া যেতে পারে।

পুঁজিবাজারের উন্নয়নে আসন্ন ২০২০-২১ অর্থবছরের বাজেটে তালিকাভুক্ত কোম্পানির ক্ষেত্রে করপোরেট করহার ২৫ থেকে কমিয়ে ২০ শতাংশ নির্ধারণের সুপারিশ করা হয়েছে। বর্তমানে ব্যাংক বিমা, আর্থিক প্রতিষ্ঠান, টেলিকম, টোবাকো ইত্যাদি খাত ছাড়া তালিকাভুক্ত কোম্পানির কর হার ২৫ শতাংশ এবং অতালিকাভুক্ত কোম্পানির কর হার ৩৫ শতাংশ।

এছাড়া তালিকাভুক্ত কোম্পানির ক্ষেত্রে ভ্যাট হার ৫ শতাংশ কমানোর প্রস্তাব করা হয়েছে।

লেনদেনের ওপর আগের হারে কর হার শূন্য ১৫ শতাংশ কর্তনের সুপারিশ করেছে বিএমবিএ। বর্তমানে পুঁজিবাজারের প্রতিটি লেনদেনের ওপর দশমিক ০৫ শতাংশ হারে কর কর্তন করা হয়। আগে এ হার ছিল দশমিক ০১৫ শতাংশ।

আর বর্তমানে লভ্যাংশ দেওয়ার সময় ১০ থেকে ১৫ শতাংশ হারে অগ্রিম কর কর্তন করা হয়। পরে লভ্যাংশ গ্রহীতার ব্যক্তিগত আয়কর রিটার্নের সময় এর ওপর আবার প্রযোজ্য হারে কর দিতে হয়। এক্ষেত্রে অগ্রিম করকে চূড়ান্ত কর হিসেবে বিবেচনার সুপারিশ করেছে বিএমবিএ।

বর্তমানে মার্চেন্ট ব্যাংকগুলোকে ৩৭ দশমিক ৫ শতাংশ, ব্রোকারেজ হাউজগুলোকে ৩৫ শতাংশ ও সম্পদ ব্যবস্থাপক কোম্পানিগুলোকে ১৫ শতাংশ হারে কর দিতে হয়। বিএমবিএ বলছে, বাজার মধ্যস্থতাকারী তিনটি প্রতিষ্ঠানের করহারে সমতা থাকা উচিত। সংগঠনটি মার্চেন্ট ব্যাংকের ক্ষেত্রে করহার ২৫ শতাংশ নির্ধারণের সুপারিশ করেছে।


ঢাকা/এনটি/জেডআর