ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ০৪ জুন ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

পুঁজিবাজার সংক্রান্ত অভিযোগ নিষ্পত্তি মডিউলের গ্রহণযোগ্যতা বাড়ছে

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০৩-৩০ ১১:০৫:২১ পিএম     ||     আপডেট: ২০২০-০৩-৩০ ১১:০৫:২১ পিএম

বিনিয়োগকারীদের পুঁজিবাজার সংক্রান্ত বিভিন্ন অভিযোগ নিষ্পত্তির জন্য নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) তৈরি করা কাস্টমার কমপ্লেইন্ট অ্যাড্রেস মডিউল (সিসিএএম) কার্যকরী ভূমিকা রাখতে শুরু করেছে।  এখন আর অভিযোগ নিষ্পত্তি হতে বিনিয়োগকারীদের বছরের পর বছর অপেক্ষা করতে হচ্ছে না।  এতে বিনিয়োগকারীদের হয়রানি কমেছে।

ফলে বিনিয়োগকারীদের কাছে কাস্টমার কমপ্লেইন্ট অ্যাড্রেস মডিউলটির গ্রহণযোগ্যতা বাড়ছে বলে বিএসইসি সূত্রে জানা গেছে।

এর আগে গত বছরের ৩০ সেপ্টেম্বর বিএসইসি বিনিয়োগকারীদের অভিযোগ নিষ্পত্তির জন্য কাস্টমার কমপ্লেইন্ট অ্যাড্রেস মডিউল নামে এক ধরনের সফটওয়্যার উদ্বোধন করে। এ সফটওয়্যারটি বিএসইসি’র ওয়েবসাইটের সঙ্গে সম্পৃক্ত।  সফটওয়্যারটির মাধ্যমে বিনিয়োগকারীদের অভিযোগ দাখিল করতে হলে নাম, ঠিকানা, ই-মেইল, মোবাইল নম্বর ও ১৬ সংখ্যার বিও হিসাব নম্বর দিতে হবে। আর সফটওয়্যারে অভিযোগ দাখিলের পর, সেখান থেকে একটি দাখিলপত্র পাবেন সংশ্লিষ্ট বিনিয়োগকারী।

বিএসইসি সূত্রে জানা গেছে, কাস্টমার কমপ্লেইন্ট অ্যাড্রেস মডিউলের মাধ্যমে চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে ১৯টি, ফেব্রুয়ারি মাসে ২৩টি ও মার্চ মাসে ২৪টি অভিযোগ করেছেন বিনিয়োগকারীরা।  এসব অভিযোগের মধ্যে মাত্র ফেব্রুয়ারি মাসের ৪টি এবং মার্চ মাসের ৯টি সমাধানের প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।  বাকি অভিযোগগুলোর নিষ্পত্তি সম্পন্ন হয়েছে।

জানা গেছে, অনলাইন মডিউল চালু হওয়ার আগে বিনিয়োগকারীদেরকে পুঁজিবাজার সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন অভিযোগ লিখিতভাবে দিতে হতো বিএসইসিতে।  আর অভিযোগের সেই কাগজ এক দফতর থেকে আরেক দফতরে যেতেই অনেক সময় লাগতো।  তবে এখন আর সেই ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে না বিনিয়োগকারীদের। গত বছরের ৩০ সেপ্টেম্বর কমপ্লেইন্ট অ্যাড্রেস মডিউলটি চালু হওয়ার পর থেকে মোট ২৩২টি অভিযোগ পাওয়া গেছে। এরমধ্যে ২১৯টি বা ৯৪ শতাংশ সমাধান করা হয়ে গেছে।

এ বিষয়ে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিএসইসি’র এক কর্মকর্তা জানান, বিনিয়োগকারীর অভিযোগ নিষ্পত্তির মডিউল ফলদায়ক ও কার্যকর। এই মডিউলটির মাধ্যমে খুব দ্রুত অভিযোগ সমাধান করা হচ্ছে। ফলে বিনিয়োগকারীদের কাছে কাস্টমার কমপ্লেইন্ট অ্যাড্রেস মডিউলটির গ্রহণযোগ্যতা দিন দিন বাড়ছে।


ঢাকা/এনটি/জেডআর