ঢাকা, শুক্রবার, ১৮ আষাঢ় ১৪২৭, ০৩ জুলাই ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

আইএফসি-ওমেরা পেট্রোলিয়ামের মধ্যে ২০ মিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ চুক্তি

বিজনেস ডেস্ক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০৬-৩০ ৫:২২:৫৭ পিএম     ||     আপডেট: ২০২০-০৬-৩০ ৫:২২:৫৭ পিএম

বিশ্বব্যাংকের অঙ্গপ্রতিষ্ঠান ইন্টারন্যাশনাল ফিন্যান্স করপোরেশন (আইএফসি)  ২০ মিলিয়ন ডলার ঋণ সহায়তা দেওয়ার জন্য ওমেরা পেট্রোলিয়ামের সঙ্গে একটি বিনিয়োগ চুক্তি স্বাক্ষর করেছে।

মঙ্গলবার (৩০ জুন) এ চুক্তি স্বাক্ষর হয়।

আইএফসির পক্ষে কান্ট্রি প্রধান (চলতি দায়িত্ব) নুজহাত আনোয়ার ও ওমেরার পক্ষে আকতার হোসেন সান্নামাত চুক্তি স্বাক্ষর করেন।

কোভিড-১৯ এর ফলে সৃষ্ট চ্যালেঞ্জ মোকাবিলার জন্য আইএফসি ওমেরা পেট্রোলিয়ামকে আর্থিক এই সহায়তা দেবে। বিনিয়োগ, স্টোরেজ ও ফিলিং ক্যাপাসিটি বিবেচনায় বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ কোম্পানি ওমেরা পেট্রোলিয়ামকে দ্বিতীয়বারের জন্য আইএফসি এই ঋণ সুবিধা দিতে যাচ্ছে।  এই তহবিল এলপিজি আমদানি ঋণ পরিশোধে ব্যবহার করবে ওমেরা।

আইএফসির এই বিনিয়োগ ওমেরার জন্য খুবই তাৎপর্যপূর্ণ, যা কোম্পানির দক্ষ তহবিল ব্যবস্থাপনা, উৎপাদন ও বিক্রয় কার্যক্রম আরও সফলতার সঙ্গে পরিচালনার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। 

ওমেরা এলপিজির প্রধান অর্থ কর্মকর্তা আকতার হোসেন সান্নামাত বলেন, আইএফসির সঙ্গে ওমেরার সর্ম্পক ও অংশীদারিত্ব খুবই দৃঢ় এবং আমরা আইএফসির সামাজিক ও পরিবেশগত দায়বদ্ধতার নির্দেশিকা প্রতিপালনে সবসময় প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।  তিনি আরও বলেন, এই বিনিয়োগের ফলে সারাদেশে বিশেষ করে প্রত্যন্ত অঞ্চলে এলপিজির সহজলভ্যতা নিশ্চিত করবে।

ওমেরা এলপিজি এমজেএল বাংলাদেশ লিমিটেড এর একটি সাবসিডিয়ারি কোম্পানি।  ২০১৫ সালে এফএমও এবং  ইউরোপের অন্যতম বৃহত্তম এলপিজি কোম্পানি বি বি এনার্জির সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে ওমেরার যাত্রা শুরু হয়।  বর্তমানে ওমেরার ৪টি এলপিজি  উৎপাদনকারী প্লান্ট রয়েছে, যার প্রধান টার্মিনাল মোংলায় অবস্থিত।

ওমেরার রয়েছে প্রায় ১০ হাজার মেট্রিক টন ধারণ ক্ষমতাসম্পন্ন স্টোরেজ ব্যবস্থা এবং দৈনিক ৬০ হাজার সিলিন্ডার রিফিলিং করার সক্ষমতা। ৩টি এলপিজি বহনকারী অত্যাধুনিক জাহাজ ছাড়াও কোম্পানির রয়েছে ৩৪টি এলপিজি রোড ট্যাংকার।

একইসঙ্গে ওমেরা আইএসও ৯০০০:২০১৫, আইএসও ১৪০০১:২০১৫, আইএসও ৪৫০০১:২০১৮ সনদপ্রাপ্ত।  এছাড়াও ওমেরা ২০১৯ সাল থেকে ভারতে এলপিজি রপ্তানি করে আসছে।


ঢাকা/জেডআর