ঢাকা     সোমবার   ০৩ আগস্ট ২০২০ ||  শ্রাবণ ১৯ ১৪২৭ ||  ১৩ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

risingbd-august-banner-970x90

সবজির বাজার চড়া

নিজস্ব প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ০৬:৫০, ১০ জুলাই ২০২০  

সবজির বাজার চড়া। বেশিরভাগ সবজির কেজি ৫০ টাকা বা তারও বেশি। গাজর ও টমেটোর দাম ১০০ টাকার ওপরে। মরিচের ঝালও রয়েছে অপরিবর্তিত।

শুক্রবার (১০ জুলাই) রাজধানীর বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখা যায়, বরবটি, ঝিঙা, কচুরছড়া, বেগুন (লম্বা), চিচিঙা, ধুন্দল, কাকরোলের কেজি ৫০ টাকা। পটল, ঢেঁড়স, কচুর লতি, পেঁপের কেজি ৪৫ থেকে ৫০ টাকা। করলা বিক্রি হচ্ছে ৬০ টাকা প্রতি কেজি। গোল বেগুনের দাম ৭০ টাকা। গত সপ্তাহে ৫০ টাকায় বিক্রি হওয়া গাজর এ সপ্তাহে এক লাফে গিয়ে ঠেকেছে ১০০ টাকায়। টমেটোর কেজি ১০০ থেকে ১২০ টাকা।

আলুর কেজি ৩০ থেকে ৩২ টাকা। লেবুর হালি ২৫ থেকে ৪৫ টাকা। কিছুটা কমেছে ধনিয়া পাতার দাম। ২৫০ টাকার ধনিয়া পাতা বিক্রি হচ্ছে ১৬০ টাকা কেজি দরে। কাঁচা মরিচের কেজি ১৪০ থেকে ১৬০ টাকা।

কাঁচা কলার হালি ২৫ টাকা, কলার মোচা ২৫ টাকা, কচু প্রতি পিস ২৫ থেকে ৪৫ টাকা, লাউ ও জালি ৩০ থেকে ৪০ টাকা, কুমড়া আকারভেদে ৪৫ থেকে ৯০ টাকা। শাপলা, ডাটা শাক, পুঁইশাক, পালং শাক, লাউ শাক ২০ থেকে ২৫ টাকা আঁটি, লাল শাক, সবুজ শাক ১০ টাকা আঁটি, কলমি শাক ৫ টাকা আঁটি বিক্রি হচ্ছে।

কাজলায় কথা হয় সবজি দোকানি মো. মান্নানের সঙ্গে। তিনি বলেন, ‘বাজারে সবজি থাকলেও দাম বেশি। বেশি দামে আনি। তাই বেশি দামেই বিক্রি করতে হয়।’

দোকানি খোকন বলেন, ‘কাঁচামালের দাম বাড়তে সময় লাগে না। আবার কমতেও সময় লাগে না। আমদানি বেশি হলে দাম কমে। আর আমদানি কম হলে দাম বাড়ে। এসময় সবজির দামটা একটু বেশিই থাকে।’

দোকানের কর্মচারী মো. আব্দুর রহিম বলেন, ‘করোনার কারণে ব্যবসা খারাপ। বাজারে সবকিছু দাম বেশি। কীভাবে যে সংসার চলবে। এভাবে চলতে থাকলে আমাদের ভীষণ কষ্ট হবে।’

এদিকে, বাজারে আগের দামেই বিক্রি হচ্ছে পোল্ট্রি ও দেশি মুরগি। পোল্ট্রি মুরগি বিক্রি হচ্ছে প্রতি কেজি ১৫০ টাকা, দেশি মুরগি ৫০০ টাকা, লেয়ার ২৪০ টাকা, পাকিস্তানি কক ৩০০ টাকা, গরুর মাংস ৫৮০ টাকা, খাসির মাংস ৮০০ টাকায়।

রুই মাছ আকারভেদে বিক্রি হচ্ছে ১৬০ থেকে ২৪০ টাকায়, তেলাপিয়া ১৩০ থেকে ১৬০ টাকা, কাতল ১৮০ থেকে ৩৬০ টাকায়। প্রতি কেজি শিং বিক্রি হচ্ছে ৩৭০ টাকা, পাবদা ২৮০-৩৫০ টাকা, মৃগেল ১৮০-২২০ টাকা, পাঙ্গাস ১২০-১৩০ টাকা, কই ১২০-১৪০ টাকা ও পুঁটি ১৪০ থেকে ১৫০ টাকা।

কেজিতে ৫ টাকা কমেছে পেঁয়াজের দাম। ৪০ থেকে ৪৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে প্রতি কেজি পেঁয়াজ। রসুনের কেজি বিক্রি হচ্ছে ১০০ থেকে ১২০ টাকা, আদা ১২০ থেকে ১৫০ টাকা। বর্তমানে প্রতি ডজন লাল ডিম (আকারভেদে) বিক্রি হচ্ছে ১০০ থেকে ১০৫ টাকা, দেশি মুরগি ও হাঁসের ডিম ১৫০ টাকা ডজন বিক্রি হচ্ছে।

 

ঢাকা/মামুন/বুলাকী/রফিক

রাইজিংবিডি.কম

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়