RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     শুক্রবার   ০৪ ডিসেম্বর ২০২০ ||  অগ্রাহায়ণ ২০ ১৪২৭ ||  ১৬ রবিউস সানি ১৪৪২

ওয়ালটন অফারে ফ্রিজ পৌঁছাল ক্রেতার বাড়ি

নিজস্ব প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৬:৫০, ১৩ নভেম্বর ২০১৯   আপডেট: ০৫:২২, ৩১ আগস্ট ২০২০
ওয়ালটন অফারে ফ্রিজ পৌঁছাল ক্রেতার বাড়ি

ওয়ালটন অফারের ফ্রিজ ক্রেতাকে হস্তান্তর করা হচ্ছে (ছবি : রাইজিংবিডি )

বুধবার, সময় দুপুর ২টা। ঐতিহ্যবাহী শহীদ হাদিস পার্ক ও শংখ মার্কেট সংলগ্ন লোয়ার যশোর রোডস্থ খুলনার ডাকবাংলা ওয়ালটন প্লাজা। মূল সড়কে দাঁড়ানো একটি মিনি পিকাপ সাজানো ওয়ালটনের প্যানা-ফেস্টুনে। গন্তব্য খুলনার বটিয়াঘাটা উপজেলার বালিয়াডাঙ্গা ইউনিয়নের বুজবুনিয়া গ্রাম। গাড়ি চলতে শুরু করলো, সঙ্গে সু-সজ্জিত ব্যান্ড পার্টির বাজনা।  ঢোলের বাড়ি আর বাজনার তালে তালে মুখরিত মেঠোপথ।  উৎসবমুখর এক আয়োজন।

ব্যতিক্রমী এ আয়োজনের উদ্যোক্তা খুলনার ডাকবাংলা ওয়ালটন প্লাজার ম্যানেজার মো. আনিসুর রহমান। মূলত সম্পূর্ণ দেশি ব্র্যান্ড ওয়ালটন ডিজিটাল ক্যাম্পেইন অফার সিজন-৫’র ফ্রিজ বিজয়ী মো. মোস্তাইন সরদারের বাড়িতে তার ফ্রিজটি পৌঁছে দিতেই ছিল ব্যতিক্রমী এ আয়োজন। মোস্তাইন সরদার ওয়ালটন প্লাজা ডাকবাংলা থেকে একটি এলইডি টিভি কিনেই লটারিতে আট সিএফটির ফ্রিজটি বিজয়ী হন।

ওয়ালটনের প্যানা-ফেস্টুনে সজ্জিত ফ্রিজবাহী পিকাপটি বিকেল সাড়ে ৩টায় গিয়ে দাঁড়ায় বুজবুনিয়া গ্রামে ক্রেতা মোস্তাইন সরদারের বাড়ির সামনে।  অবশ্য তার আগেই এ খবর পৌঁছে যায় গ্রামের নারী-পুরুষ-শিশুদের মধ্যে। একনজর দেখতে তারা পথেই উৎসুক দৃস্টি ফেলে গাড়িটির দিকে। পথে পথে ওয়ালটনের বিভিন্ন অফার সম্বলিত লিফলেটও ছড়িয়ে দেন কর্মীরা। আর স্বাগত জানাতে বিজয়ীর বাড়ির সামনে ছিল শতাধিক উৎসুক জনতার ভিড়।  সবার মধ্যেই ছিল উৎসবের আমেজ।

ডাকবাংলা ওয়ালটন প্লাজার ম্যানেজার মো. আনিসুর রহমানসহ অন্যান্য কর্মকর্তারা ফ্রিজটি তুলে দেন বিজয়ী ক্রেতা মোস্তাইন সরদার ও তার ছোট ভাই মো. গোলাম সরদারের হাতে।  হাঁসি মুখে উচ্ছ্বাসের সঙ্গে তারা ফ্রিজটি গ্রহণ করেন। এ সময় এ ব্রাঞ্চের অ‌্যাসিসটেন্ট ম্যানেজার মো. হাসিবুল হাসান, সিনিয়র এক্সিকিউটিভ আবদুস সামাদ, সেলস এক্সিকিউটিভ মো. ইমরান হোসেন টিপু ও এসএম আহসানুল কবির উপস্থিত ছিলেন।

ক্রেতা মোস্তাইন সরদার রাইজিংবিডিকে বলেন, তিনি ২৪ অক্টোবর খুলনার ডাকবাংলা ওয়ালটন প্লাজা থেকে ১৭ হাজার ৩০০ টাকায় একটি এলইডি টিভি কিনেছিলেন। এর লটারিতে ১৯ হাজার ৫০০ টাকা মূল্যের একটি ফ্রিজ ফ্রি পেয়েছেন।

তিনি বলেন, বাসায় টিভি না থাকায় ওয়ালটনের টিভি ক্রয় করি।  আর ফ্রিজও ছিল না। কিন্তু ফ্রিজ ফ্রি পাওয়ায় ফ্রিজ আর কেনার প্রয়োজন হলো না। এতে অনেক টাকা বেঁচে গেল। তবে, ফ্রি ফ্রিজ পাওয়ার চেয়েও কোম্পানির প্রতিনিধিরা তার বাড়িতে ফ্রিজ পৌঁছে দেওয়ায় তিনি বেশি খুশি হয়েছেন বলেও জানান।

ডাকবাংলা ওয়ালটন প্লাজার ম্যানেজার মো. আনিসুর রহমান রাইজিংবিডিকে বলেন, ওয়ালটন অফারে ক্রেতার প্রাপ্ত ফ্রিজটি ব্রাঞ্চ থেকেই তার হাতে তুলে দেওয়া যেত। কিন্তু সেটির মধ্যে কোন আনন্দ বা বিজয়ের বার্তা অন্যদের কাছে পৌঁছাতো না।  যে কারণে সাধারণ মানুষকে ওয়ালটন পন্য সম্পর্কে ধারণা দেয়া এবং পন্যের ব্যাপক প্রচারণার উদ্দেশ্য থেকেই বিষয়টি মাথায় আসে। এ আয়োজনে সাধারণ মানুষের সাড়া দেখে যার প্রতিফলন বাস্তবেও প্রতিফলিত হয়েছে বলেও মনে করেন তিনি।


খুলনা/মুহাম্মদ নূরুজ্জামান/সাইফ

রাইজিংবিডি.কম

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়