RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     বৃহস্পতিবার   ২৯ অক্টোবর ২০২০ ||  কার্তিক ১৪ ১৪২৭ ||  ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

বর্জ‌্য আর বোঝা নয়, পোড়ালেই বিদ‌্যুৎ

আসাদ আল মাহমুদ  || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২২:৫৬, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০   আপডেট: ১৩:৩৮, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০
বর্জ‌্য আর বোঝা নয়, পোড়ালেই বিদ‌্যুৎ

রাজধানীর বর্জ‌্য আর বোঝা থাকছে না। শিগগিরই মূল‌্যবান সম্পদে পরিণত হতে যাচ্ছে। এই লক্ষ‌্যে আমিনবাজার ল্যান্ডফিলে বিদ্যুৎপ্ল‌্যান্ট তৈরির উদ‌্যোগ নিয়েছে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়। এই প্ল‌্যান্ট থেকে প্রতিদিন ৩০০০-৩৫০০ টন বর্জ্য পুড়িয়ে ৩০-৩৬ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উপাদন করা হবে।  

সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়-সূত্রে জানা গেছে, আমিনবাজার ল্যান্ডফিলে বিদ্যুৎপ্ল‌্যান্ট তৈরি করা হবে। এই প্ল‌্যান্ট তৈরির জন‌্য চলতি মাসের (সেপ্টেম্বর) শেষের দিকে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) সঙ্গে চীনের মেশিনারিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানির (সিএমইসি) সঙ্গে চুক্তি হবে।  চুক্তির শর্ত অনুযায়ী, ২ বছরের মধ্যেই এই প্ল‌্যান্ট বিদ‌্যুৎ উৎপাদনে যাবে। 

জানতে চাইলে ডিএনসিসির একজন কর্মকর্তা বলেন, ‘স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে বর্জ্য থেকে বিদ্যুৎপ্ল‌্যান্ট তৈরির জন্য চীনা কোম্পানি সিএমইসির সঙ্গে চুক্তি হবে। এই প্রকল্পের জন‌্য সম্ভাব্য ব্যয় ধরা হয়েছে ৮ হাজার ৩৫৫ কোটি টাকা।’ তিনি বলেন, এই প্ল‌্যান্টের জন‌্য আমিন বাজারের ল্যান্ডফিল থেকে ২৮ একর জমি ২০ বছরের জন্য দেওয়া হবে। এই সময়ের মধ্যে বিদ‌্যুৎ বিক্রি করে বিনিয়োগের টাকা তুলে নিবে চীনা কোম্পানি।’ 

ডিএনসিসির এই কর্মকর্তা আরও বলেন, ‘স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় থেকে ১৮ মাস সময় নির্ধারণ করা হয়।  কিন্তু চীনা কোম্পানি ২৪ মাস সময় চেয়েছে। চুক্তি অনুযায়ী কাজ হলে দেশে প্রথম বর্জ্য পোড়ানো বিদ্যুৎপ্ল‌্যান্ট তৈরি হবে।’

স্থানীয় সরকার বিভাগের একজন কর্মকর্তা বলেন, ‘সরকার বর্জ‌্যকে সম্পদে পরিণত করতে বিদ্যুৎ উৎপাদনের পরিকল্পনা নেয়। এই প্ল‌্যান্ট তৈরির জন‌্য মোট ১৫ প্রতিষ্ঠানের প্রস্তাব পাঠায়। প্রতিষ্ঠানগুলো থেকে শর্ত সাপেক্ষে যাচাই-বাছাই করে তিন প্রতিষ্ঠানকে নির্বাচন করে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়। বিদ‌্যুৎ বিভাগ পরীক্ষা-নীরিক্ষা করে চীনের সিএমইসিকে নির্বাচন করে।’  

বিদ্যুৎ ও জ্বালানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু বলেন, ‘সেপ্টেম্বরে চুক্তি হবে। এরপর দ্রুত কাজ শুরু হবে।’ 

স্থানীয় সরকারমন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম বলেন, ‘আমিনবাজারে দেশের প্রথম বর্জ্য বিদ্যুৎপ্ল‌্যান্ট তৈরি হবে। এখানে প্রতিদিন ৩ হাজার টন আবর্জনার প্রয়োজন হবে।’ এই প্ল‌্যান্টে বর্জ‌্যের জোগান দিতে গেলে রাজধানীর কোথাও আর আবর্জনার স্তূপ থাকবে না বলেও তিনি মনে করেন। 

ঢাকা/এনই

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়