Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     বুধবার   ২১ এপ্রিল ২০২১ ||  বৈশাখ ৮ ১৪২৮ ||  ০৮ রমজান ১৪৪২

খাদ্য আনুষাঙ্গিক খাতে সর্বোচ্চ রিটার্ন পেলেন বিনিয়োগকারীরা

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৬:২৪, ৬ মার্চ ২০২১  
খাদ্য আনুষাঙ্গিক খাতে সর্বোচ্চ রিটার্ন পেলেন বিনিয়োগকারীরা

চলতি মাসের প্রথম সপ্তাহে পুঁজিবাজার ইতিবাচক ধারায় কেটেছে। ফলে বিনিয়োগকারীরা অধিকাংশ খাতের কোম্পানিতে বিনিয়োগ করে রিটার্ন পেয়েছে। এর মধ্যে খাদ্য ও আনুষাঙ্গিক খাতে বিনিয়োগ করে বিনিয়োগকারীরা সবচেয়ে বেশি রিটার্ন পেয়েছে।  যার হার ৭ দশমিক ৫ শতাংশ।

শনিবার (৬ মার্চ) সাপ্তাহিক পর্যালোচনায় এ তথ্য জানা গেছে।

সূত্র জানায়, পুঁজিবাজারে ২০ খাতের কোম্পানির মধ্যে গেলো সপ্তাহে বিনিয়োগকারীরা ১৬টি থেকে রিটার্ন পেয়েছেন। এর মধ্যে খাদ্য ও আনুষাঙ্গিক খাত থেকে সবচেয়ে বেশি রিটার্ন পেয়েছেন বিনিয়োগকারীরা। এ খাতের বাজার মূলধনের পরিমাণ ৩৮ হাজার ৭২২ কোটি টাকা।

এদিকে, রিটার্নের দিক দিয়ে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে আইটি খাত।  এ খাতের কোম্পানিগুলোতে বিনিয়োগ করে বিনিয়োগকারীরা গেলো সপ্তাহে ৫ দশমিক ৯ শতাংশ রিটার্ন পেয়েছেন।  এ খাতের বাজার মূলধন ২ হাজার ৬০০ কোটি টাকা।

এছাড়া সেবা খাত রিটার্নের দিক দিয়ে তৃতীয় অবস্থানে আছে।  এ খাতে বিনিয়োগের মাধ্যমে বিনিয়োগকারীরা গেলো সপ্তাহে সাড়ে ৪ শতাংশ রিটার্ন পেয়েছেন। এ খাতের বাজার মূলধনের পরিমাণ ১ হাজার ৮৬১ কোটি টাকা। টেলিকম খাতের রিটার্নের হার ৩ দশমিক ৫ শতাংশ। এ খাতের বাজার মূলধন ৭৩ হাজার ৮৪৫ কোটি টাকা।

ফার্মাসিউটিক্যালস খাতে বিনিয়োগ করে বিনিয়োগকারীরা ২ দশমিক ১ শতাংশ রিটার্ন পেয়েছে। এ খাতের বাজার মূলধন ৬০ হাজার ৯৮৯ কোটি টাকা।

এদিকে, ব্যাংক খাতে বিনিয়োগের মাধ্যমে বিনিয়োগকারীরা ১ দশমিক ৮ শতাংশ রিটার্ন পেয়েছেন।  যা আমানতের সুদের হারের চেয়ে অনেক কম। একই সঙ্গে নন ব্যাংকিং আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোতে রিটার্নের হার নাজুক ছিল।  আলোচ্য খাতে রিটার্নের হার শূন্য দশমিক ৩ শতাংশ।

দীর্ঘদিন ধরে বিমা খাত নিয়ে বাজারে বেশ আলোচনা থাকলেও এ খাতে রিটার্ন খুবই কম পেয়েছে বিনিয়োগকারীরা।  এ খাতে গেলো সপ্তাহে ১ দশমিক ৬ শতাংশ রিটার্ন পেয়েছে বিনিয়োগকারীরা।

অন্য খাতগুলোর মধ্যে মিউচ্যুয়াল ফান্ড খাতে বিনিয়োগের মাধ্যমে বিনিয়োগকারীরা ১ দশমিক ৩ শতাংশ রিটার্ন পেয়েছে। পাট খাতেও একই পরিমাণ রিটার্ন পেয়েছেন বিনিয়োগকারীরা। কাগজ-প্রকাশনা খাতে রিটার্নের হার ছিল ১ দশমিক ১ শতাংশ, বস্ত্র খাতে ১ শতাংশ, জ্বালানি খাতে শূন্য দশমিক ৭ শতাংশ, ভ্রমণ এবং সিমেন্ট প্রত্যেক খাতে শূন্য দশমিক ৬ শতাংশ রিটার্ন পেয়েছেন বিনিয়োগকারীরা।

যেসব খাত থেকে রিটার্ন পায়নি বিনিয়োগকারীরা সেগুলো হচ্ছে- চামড়া, সিরামিক, বিবিধ, প্রকৌশল খাত।

নাজমুল/সাইফ

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়