Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     বৃহস্পতিবার   ০৬ মে ২০২১ ||  বৈশাখ ২৩ ১৪২৮ ||  ২২ রমজান ১৪৪২

সীমিত পরিসরে খোলা থাকছে ব্যাংক

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৮:২৮, ১৩ এপ্রিল ২০২১   আপডেট: ২৩:৫৭, ১৩ এপ্রিল ২০২১
সীমিত পরিসরে খোলা থাকছে ব্যাংক

সর্বাত্মক লকডাউনের মধ্যে সীমিত পরিসরে ব্যাংক খোলা রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

মঙ্গলবার (১৩ এপ্রিল) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের নির্দেশনার পর বাংলাদেশ ব্যাংক এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের অফসাইট সুপারভিশন বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত সার্কুলার জারি করে দেশের সব তফসিলি ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহীর কাছে পাঠানো হয়েছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের নতুন সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, সকাল ১০টা থেকে বেলা ১টা পর্যন্ত চলবে লেনদেন। তবে ব্যাংকের আনুষঙ্গিক কাজ চলবে দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত।

এর আগে জারি করা প্রজ্ঞাপনে জানানো হয়েছিল, সকাল সাড়ে ৯টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত ব্যাংকিং কার্যক্রম চলবে। ওই নির্দেশনা জারির কিছুক্ষণ পর তা সংশোধন করে বাংলাদেশ ব্যাংক।

নতুন নির্দেশনায় আরও উল্লেখ করা হয়, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের ১৩ এপ্রিল দেওয়া নির্দেশনার আলোকে বাংলাদেশ ব্যাংকের জারিকৃত ১২ এপ্রিলের সার্কুলার রহিত করে নতুন নির্দেশনা জারি করা হলো।

এদিকে, বিধি-নিষেধ চলাকালে ব্যাংকের স্থানীয় কার্যালয় বা প্রধান শাখাসহ সব অনুমোদিত ডিলার (এডি) শাখা ও জেলা সদরে অবস্থিত ব্যাংকের প্রধান শাখা খোলা রাখতে হবে। সিটি করপোরেশন এলাকাধীন প্রতি ২ কিলোমিটারের মধ্যে একটি শাখা (এডি শাখা না থাকলে) খোলা রাখতে হবে। তাছাড়া, এ সময়ে উপজেলা পর্যায়ে কার্যরত প্রতিটি ব্যাংকের একটি শাখা বৃহস্পতিবার, রোববার এবং মঙ্গলবার খোলা রাখতে হবে। ব্যাংকের কর্মকর্তা বা কর্মচারীদের স্ব স্ব অফিসে আনা-নেওয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট ব্যাংককে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে হবে।

এছাড়া, গ্রাহকদের হিসাবে সর্বপ্রকার জমা এবং উত্তোলন, ডিমান্ড ড্রাফট বা পে-অর্ডার ইস্যু ও জমা গ্রহণ, ট্রেজারি চালান গ্রহণ, সরকারের বিভিন্ন সামাজিক কার্যক্রমের আওতায় প্রদত্ত ভাতা বা অনুদান বিতরণ, বৈদেশিক রেমিট্যান্সের অর্থ পরিশোধ, অভ্যন্তরীণ ও আন্তঃশাখা অর্থ স্থানান্তর, এনআরবি বন্ডে এবং বিভিন্ন প্রকার জাতীয় সঞ্চয় সার্টিফিকেটের মেয়াদপূর্তিতে নগদায়ন ও কুপনের অর্থ পরিশোধ, প্রযোজ্য ক্ষেত্রে ইউটিলিটি (যথা: গ্যাস/পানি/বিদ্যুৎ/টেলিফোন) বিল গ্রহণসহ বাংলাদেশ ব্যাংক কর্তৃক চালু রাখা বিভিন্ন পেমেন্ট সিস্টেম বা ক্লিয়ারিং ব্যবস্থার আওতাধীন অন্যান্য লেনদেন সুবিধা দেওয়া নিশ্চিত করতে হবে।

সমুদ্র বন্দর, স্থল বন্দর ও বিমান বন্দর এলাকায় (পোর্ট ও কাস্টমস এলাকা) অবস্থিত ব্যাংকের শাখা, উপ-শাখা বা বুথগুলো সার্বক্ষণিক খোলা রাখার বিষয়ে ২০১৯ সালের আগস্ট ৫ জারিকৃত সার্কুলার অনুসারে স্থানীয় প্রশাসনসহ বন্দর বা কাস্টমস কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনাক্রমে স্বাস্থ্যবিধি পরিপালন নিশ্চিতপূর্বক যথাযথ ব্যবস্থা নিতে হবে।

এ বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক মো. সিরাজুল ইসলাম রাইজিংবিডিকে বলেছেন, ‘সরকারের নির্দেশনার পর ব্যাংক সীমিত পরিসরে খোলা রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। তাই সকাল ১০টা থেকে বেলা ১টা পর্যন্ত চলবে লেনদেন। তবে ব্যাংকের আনুষঙ্গিক কাজ চলবে দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত।’

প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার (১৩ এপ্রিল) এক আদেশে ব্যাংকিং সেবা নিশ্চিত করতে বাংলাদেশ ব্যাংককে নির্দেশনা দিয়েছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ। বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নরের কাছে এ নির্দেশনা সম্বলিত চিঠি পাঠানো হয়।

চিঠিতে, বিশেষ প্রয়োজনে ১৪ থেকে ২১ এপ্রিল পর্যন্ত ব্যাংকিং সেবা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা জারির জন্য আদেশক্রমে অনুরোধ জানানো হয়েছে।

এনটি/সাইফ/রফিক

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়