Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     মঙ্গলবার   ১৫ জুন ২০২১ ||  আষাঢ় ১ ১৪২৮ ||  ০৩ জিলক্বদ ১৪৪২

চীনের টিকা আমদানিতে বিটুজি চুক্তির সুপারিশ

কেএমএ হাসনাত || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২০:৫৯, ১৭ মে ২০২১   আপডেট: ২১:০৮, ১৭ মে ২০২১
চীনের টিকা আমদানিতে বিটুজি চুক্তির সুপারিশ

চীনের সিনোফার্মের তৈরি করোনভাইরাস ভ্যাকসিন আমদানির জন্য স্বাস্থ্য বিভাগকে বিজনেস টু বিজনেসের (বিটুবি) পরিবর্তে বিজনেস টু গভর্নমেন্ট (বিটুজি) চুক্তির জন্য পরামর্শ দিয়েছে অর্থ বিভাগ।

গত রোববার (১৬ মে) অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থ বিভাগের যুগ্ম সচিব ড. মোহাম্মদ আবু ইউসুফের স্বাক্ষরিত এ সংক্রান্ত একটি চিঠি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিবের কাছে পাঠানো হয়েছে। 

চিঠিতে বলা হয়েছে, চীনের তৈরি করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন আমদানির চুক্তিটি বিটুবি এর পরিবর্তে বিটুজি হওয়া বাঞ্চনীয়। সে অনুযায়ী প্রস্তাবিত চুক্তির কয়েকটি ধারা সংশোধন করতে হবে।

বিটুজি ব্যবসা-বাণিজ্য-প্রশাসন হিসেবেও পরিচিত। এটি কোনো সংস্থা (সরবরাহকারী) এবং সরকারের (ক্রেতা) মধ্যে বাণিজ্য বোঝায়। বাংলাদেশ সরকার যদি অর্থ মন্ত্রণালয়ের পরামর্শের সঙ্গে একমত হয়, তবে সিনোফার্ম হবে ভ্যাকসিন প্রস্তুতকারক এবং বাংলাদেশ সরকার হবে ক্রেতা।

প্রাথমিকভাবে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এই ভ্যাকসিন বিটুবি চুক্তির আওতায় আমদানি করতে চেয়েছিল, যার অর্থ এই ভ্যাকসিনগুলো সরকারের পরিবর্তে কোনো সংস্থার মাধ‌্যমে আমদানি করা হবে।

অর্থ বরাদ্দের বিষয়ে অর্থ মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, প্রস্তাবিত সিডিউল অনুযায়ী তিন কিস্তিতে ১ কোটি ডোজ টিকা কেনা যেতে পারে। তবে, ভবিষ্যতে এর পরিমাণ আলোচনার সাপেক্ষে বাড়নো যেতে পারে। ভ্যাকসিনের দামের ৫০ শতাংশ চালানের পাঁচ দিনের আগে লেটার অব ক্রেডিটের (এলসি) মাধ্যমে দেওয়া যেতে পারে এবং বাকি দাম টিকা গ্রহণের পাঁচ দিন পরে দেওয়া হবে। এভাবে তিন কনসাইনমেন্টের জন্য ছয় কিস্তিতে অর্থ পরিশোধ করা হবে।

আমদানি করা টিকার ডেলিভারি লোকেশন হবে হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর, ঢাকা। বাংলাদেশ সরকার দাম,ইন্সুরেন্স, ফ্রেইট (সিআইএফ) বহন করবে। এছাড়া, টিকা ছাড়ানোর স্থানীয় শুল্ক সরকার বহন করবে। প্রস্তাবিত টিকার দাম স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিবের নেতৃত্বে গঠিত আন্তঃমন্ত্রণালয় কমিটি চূড়ান্ত করবে। এছাড়া, খসড়া চুক্তিতে ইন্সুরেন্সের শর্ত বাদ দিতে সুপারিশ করা হয়েছে।

এ বিষযে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ঊর্ধ্বতন একজন কর্মকর্তা বলেছেন,‘আমাদের এখন দ্রুত ভ্যাকসিন আমদানি করা প্রয়োজন। আমরা চীন ও রাশিয়ার সঙ্গে যোগাযোগ রাখছি। আশা করছি, শিগগিরই দুই দেশের ভ্যাকসিন আনা হবে।’

ঢাকা/হাসনাত/রফিক

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়