Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     বুধবার   ২০ অক্টোবর ২০২১ ||  কার্তিক ৪ ১৪২৮ ||  ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

ওয়ালটন ফ্রিজ কিনে মিলিয়নিয়ার হলেন রাজবাড়ীর দর্জি হানিফ

এম মাহফুজুর রহমান || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৪:৫২, ২৩ জুন ২০২১  
ওয়ালটন ফ্রিজ কিনে মিলিয়নিয়ার হলেন রাজবাড়ীর দর্জি হানিফ

হানিফ সরদারের হাতে ১০ লাখ টাকার চেক তুলে দিচ্ছেন সাইমন সাদিক

তিনি এখন ‘লাকি হানিফ’ নামে পরিচিত। বাসায় একটি ফ্রিজ দরকার বহুদিন ধরে। কিন্তু অভাব-অনটন যেন পিছু ছাড়ে না। মায়ের কাছে থাকা কিছু টাকা নিয়ে বাকিটা ধার করে ওয়ালটনের একটি ফ্রিজ কিনলেন।

অতিমারিকালে সেই ফ্রিজই তার ভাগ্যের চাকা সচল করবে কল্পনাও করেননি। সম্প্রতি ওয়ালটনের শোরুম থেকে ফ্রিজ কিনে ডিজিটাল ক্যাম্পেইনে রাজবাড়ীর দর্জি হানিফ সরদার পেয়েছেন ১০ লাখ টাকা।  ওয়ালটন ফ্রিজ কিনে মিলিয়নিয়ার হওয়ার তালিকায় নাম লেখালেন তিনিও।

ওয়ালটন ফ্রিজ কিনে ডিজিটাল ক্যাম্পেইনের আওতায় মিলিয়নিয়ার হয়েছেন আরও দুই ক্রেতা। তারা হলেন নারায়ণগঞ্জ আড়াইহাজারের পোশাক শ্রমিক সেলিম মিয়া এবং নীলফামারী জলঢাকার মুদি দোকানদার মাজেদুল ইসলাম।

উল্লেখ্য, কোরবানির ঈদ উপলক্ষে চলছে ওয়ালটনের ‘মেগা ঈদ ফেস্টিভ্যাল’।   প্রতিষ্ঠানটির ডিজিটাল ক্যাম্পেইন সিজন-১১ এর আওতায় মেগা ঈদ ফেস্টিভ্যালে ওয়ালটন ফ্রিজ, টিভি, এসি, ওয়াশিং মেশিন, ফ্যান, গ্যাস স্টোভ ও রাইস কুকার ক্রেতাদের জন্য রয়েছে দেশের ইলেকট্রনিক্স বাজারের সবচেয়ে বড় সুযোগ।  এখন ওয়ালটন ফ্রিজ কিনে ডিজিটাল রেজিস্ট্রেশন করে মিলিয়নিয়ার হওয়ার সুযোগ রয়েছে।  এছাড়াও পণ্যভেদে আছে ফ্রি ফ্রিজ, এসি, ওয়াশিং মেশিন, কোটি কোটি টাকার নিশ্চিত ক্যাশ ভাউচারসহ অসংখ্য সুবিধা।

শনিবার (১২ জুন, ২০২১), রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ মোড়ে ওয়ালটন ডিস্ট্রিবিউটর শোরুম মেসার্স আরাফ ট্রেডার্সে আনুষ্ঠানিকভাবে হানিফ সরদারের হাতে ১০ লাখ টাকার চেক তুলে দেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত অভিনেতা সাইমন সাদিক। সে সময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন খানখানাপুর আওয়ামী লীগ সভাপতি আমির আলি মোল্লা, শহীদ ওহাবপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহিন খান, ওয়ালটনের রেজিওনাল সেলস ম্যানেজার (যশোর জোন) এ, জি, এম সরওয়ার জাহান, ডিভিশনাল সেলস ম্যানেজার জহিরুল ইসলাম ও আরাফ ট্রেডার্সের স্বত্ত্বাধিকারী আব্দুর রব শেখ প্রমুখ।

ক্রেতা হানিফ সরদার জানান, চাচাতো ভাইয়ের দোকানে ১০ বছর ধরে দর্জির কাজ করছেন। বাড়ি বালিয়াকান্দা উপজেলার একরজনা গ্রামে। সাত সদস্যের পরিবার তার। ২৮ হাজার ৭৫০ টাকা দিয়ে ফ্রিজটি কেনার পর ডিজিটাল রেজিস্ট্রেশন করলে ১০ লাখ টাকা পাওয়ার মেসেজ যায় তার মোবাইলে।  মেসেজ দেখে প্রথমে বিশ্বাস হচ্ছিলো না তার। কয়েকজনকে সেই মেসেজ দেখানোর পরে নিশ্চিত হন। এত টাকা একসঙ্গে পাওয়ায় আনন্দ যেন ধরে না পরিবারে।  গ্রামের মানুষ তাকে ডাকছেন ‘লাকি হানিফ’ নামে। ওই টাকায় জমি কিনবেন হানিফ।  দেবেন একটি গরুর খামার।

সাইমন সাদিক বলেন, ওয়ালটন আমাদের দেশীয় প্রতিষ্ঠান। দেশের চাহিদা মিটিয়ে তারা পণ্য রপ্তানি করছে বিভিন্ন দেশে। ওয়ালটনই একমাত্র প্রতিষ্ঠান যারা এক সঙ্গে এত টাকা ক্রেতাদের দেওয়ার সামর্থ্য রাখে। ওয়ালটন ক্রেতাদের সঙ্গে প্রতারণা করে না আজকের অনুষ্ঠানই তার প্রমাণ। ওয়ালটন কথা দিয়ে কথা রাখছে।  ওয়ালটন আমাদের গর্ব। তিনি প্রত্যাশা করেন ক্রেতারা ওয়ালটন থেকেই ইলেকট্রনিক্স পণ্য কিনবেন।

বর্তমানে বাজারে রয়েছে ওয়ালটনের প্রায় দুইশ মডেলের রেফ্রিজারেটর, ফ্রিজার ও বেভারেজ কুলার। কোরবানির ঈদ উপলক্ষে সম্প্রতি ২৭টি নতুন মডেলের ফ্রিজ উন্মোচন করেছে ওয়ালটন। একইসঙ্গে ডিজাইন ও ফিচার আপডেট করা আরও অর্ধশতাধিক মডেলের ফ্রিজ আনুষ্ঠানিকভাবে বাজারে ছেড়েছে তারা।  আন্তর্জাতিক মান যাচাইকারী সংস্থা নাসদাত ইউনিভার্সাল টেস্টিং ল্যাব থেকে মান নিশ্চিত হয়ে ওয়ালটনের প্রতিটি ফ্রিজ বাজারে ছাড়া হচ্ছে।

যেকোনো ব্র্যান্ডের পুরনো ফ্রিজ বদলে ওয়ালটনের নতুন ডিপ ফ্রিজ কেনার সুবিধা পাচ্ছেন গ্রাহক। ফ্রিজে ১ বছরের রিপ্লেসমেন্টসহ কম্প্রেসরে ১২ বছরের ওয়ারেন্টি দিচ্ছে ওয়ালটন। দ্রুত ও সর্বোত্তম বিক্রয়োত্তর সেবা দিতে আইএসও সনদপ্রাপ্ত সার্ভিস ম্যানেজমেন্ট সিস্টেমের আওতায় সারাদেশে ওয়ালটনের রয়েছে ৭৬টি সার্ভিস সেন্টার।

মাহফুজ/সাইফ

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়