Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     বুধবার   ২৭ অক্টোবর ২০২১ ||  কার্তিক ১১ ১৪২৮ ||  ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

Risingbd Online Bangla News Portal

দুবাই এক্সপোতে ৫০ বছরের অর্জন তুলে ধরবে বাংলাদেশ

বিশেষ প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২২:৪৫, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১   আপডেট: ০৮:৩৫, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১
দুবাই এক্সপোতে ৫০ বছরের অর্জন তুলে ধরবে বাংলাদেশ

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেছেন, ‘দুবাই ২০২০ এক্সপোতে বিশ্ববাসীর কাছে বাংলাদেশের ৫০ বছরের অর্জন তুলে ধরা হবে। ছয় মাসব্যাপী ওয়ার্ল্ড এক্সপোতে বাংলাদেশের বিভিন্ন খাতের অর্জন, পণ্য, ধারণা উদ্ভাবন, জাতীয় ব্র্যান্ড, পর্যটন এবং ইতিহাস ব্যবসায়ীক পরিবেশ প্রচারের মাধ্যমে দেশের ভাবমূর্তি উজ্জল করার চেষ্টা করা হবে।’

সোমবার (২৭ সেপ্টেম্বর) ঢাকায় বাংলাদেশ সচিবালয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় আয়োজিত ‘দুবাই ২০২০ এক্সপো’ এ অংশগ্রহণ উপলক্ষে আয়োজিত প্রেস বিফিং এ সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি।

এসময় বাণিজ্য সচিব তপন কান্তি ঘোষ, অতিরিক্ত সচিব (রপ্তানি) মো. হাফিজুর রহমান, রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর ভাইস চেয়ারম্যান (অতিরিক্ত সচিব) এ এইচ এম আহসান, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব (রপ্তানি) মো. আব্দুর রহিম খান এবং বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ‘অলিম্পিক গেমস, ফিফা ওয়াল্ড কাপ এর পরে তৃতীয় বৈশ্বিক ইভেন্ট হিসেবে ওয়ার্ল্ড এক্সপো মূলত বিভিন্ন দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়ন অগ্রগতি, বাণিজ্য সম্ভাবনা ও সংস্কৃতি বিশ্ববাসীর সামনে উপস্থাপনের সুযোগ হবে।’

তিনি বলেন, ‘এক্সপো কর্তৃপক্ষ বাংলাদেশ ও বিশ্ব সম্প্রদায়ের জন্য দেশের ইমেজ বাড়াতে আগামী ৩ ডিসেম্বর ইন্টারন্যাশনাল ডে অফ পারসনস উইথ ডিজএবিলিটিস, ১৬ ডিসেম্বর কান্ট্রি ডে, ২১ ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস, ৮ মার্চ আন্তর্জাতিক নারী দিবস, ১৭ মার্চ বঙ্গবন্ধুর জন্মবার্ষিকীর অনুষ্ঠান এবং ২৬ মার্চ বাংলাদেশের মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালন উপলক্ষে বিশেষ আয়োজন থাকবে। দুবাই ২০২০ এক্সপো আয়োজনের মূল থিম ‘কানেকটিং মাইন্ডস, ক্রিয়েটিং দি ফিউচার’ এবং সাব থিম তিনটি অপারচুনিটি, মোবাইলিটি এবং সাসটেইনেবিলিটি।’

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ‘বাংলাদেশ প্যাভিলিয়নের এক্সিবিশন টাইটেল নির্ধারণ করা হয়েছে- ‘ইন্দোমিটেবল বাংলাদেশ: টুয়ার্ডস সাসটেনেবল ডেভেলপমেন্ট।’ বাংলাদেশের দ্বিতল বিশিষ্ট প্যাভিলিয়নের নিচ তলায় প্রদর্শনীর জন্য এবং দ্বিতীয় তলায় দাপ্তরিক, সেমিনার ও বিজনেস টু বিজনেস সভার কাজে ব্যবহার করা হবে। এ এক্সপোর মাধ্যমে বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন, অগ্রগতি, সাফল্য এবং বাণিজ্য সম্ভাবনা যথাযথভাবে তুলে ধরা হবে। এজন্য বাংলাদেশের বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও বিভাগের সঙ্গে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সমন্বয় সাধন করবে। এ জন্য প্রযোজ্য পণ্য, অডিও-ভিজ্যুয়াল, ডকুমেন্টারি ইত্যাদি প্রদর্শণ করা হবে।’

উল্লেখ্য, বিগত ২০১৫ সালে ইতালির মিলানে সর্বশেষ ওয়ার্ল্ড এক্সপো অনুষ্ঠিত হয়েছিল। মধ্যপ্রাচ্য, আফ্রিকা এবং দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলে সংযুক্ত আরব আমিরাত প্রথমবারের মতো ওয়ার্ল্ড এক্সপো ২০২০ এর আয়োজন করছে। কোভিডের কারণে এ এক্সপো আগামী ১ অক্টোবর থেকে শুরু হয়ে ২০২২ সালের ৩১ মার্চ পর্যন্ত চলবে।

হাসনাত/সনি

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়