ঢাকা     বুধবার   ১৯ জানুয়ারি ২০২২ ||  মাঘ ৫ ১৪২৮ ||  ১৪ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

এনার্জিপ্যাকের আর্থিক প্রতিবেদনে অসঙ্গতি, ব্যাখ্যা চায় ডিএসই

নুরুজ্জামান তানিম || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১০:১৮, ২৮ নভেম্বর ২০২১   আপডেট: ১০:১৯, ২৮ নভেম্বর ২০২১
এনার্জিপ্যাকের আর্থিক প্রতিবেদনে অসঙ্গতি, ব্যাখ্যা চায় ডিএসই

শেয়ারবাজারে জ্বালানি ও বিদ্যুৎ খাতে তালিকাভুক্ত কোম্পানি এনার্জিপ্যাক পাওয়ার জেনারেশনের চলতি হিসাব বছরের নয় মাসের (জুলাই, ২০২০ থেকে মার্চ, ২০২১) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদনে বেশি কিছু অসঙ্গতি পেয়েছে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই)। 

কোম্পানিটির আর্থিক প্রতিবেদনে অসঙ্গতির বিষয়ে ব্যাখ্যা চেয়েছে দেশের ডিএসই কর্তৃপক্ষ।

সম্প্রতি এনার্জিপ্যাক পাওয়ার জেনারেশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালকের কাছে এ সংক্রান্ত চিঠি দেওয়া হয়েছে। এ বিষয়টি নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনকে (বিএসইসি) অবহিত করা হয়েছে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

ডিএসই’র পর্যবেক্ষণে উঠে এসেছে, এনার্জিপ্যাক পাওয়ার জেনারেশন চলতি হিসাব বছরের ৩১ মার্চ পর্যন্ত শেষ হওয়া প্রান্তিকের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদনে আয় ও ব্যয়ের ওপর ডেফার্ড ট্যাক্সের তথ্য দেয়নি। একইসঙ্গে কোম্পানিটি ৩১ মার্চ পর্যন্ত শেষ হওয়া প্রান্তিকের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদনে সহযোগী কোম্পানির মধ্যে লেনদেন সংক্রান্ত বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য দেয়নি। এসব ক্ষেত্রে আইন লঙ্ঘন করেছে কোম্পানিটি।  

এছাড়া, কোম্পানিটির আলোচ্য প্রান্তিকের আর্থিক প্রতিবেদনে ৬ কোটি ৭২ লাখ ৩২ হাজার ৪৫৪ টাকার করের ওপর প্রভিশনের বিষয়ে উল্লেখ করেছে। কিন্তু আলোচিত সময়ের আর্থিক প্রতিবেদনে আয়কর গণনার বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য জানায়নি। ফলে কোম্পানিটি আইএএস ১২ এর ‘আয়কর’ এর অনুচ্ছেদ ৮১ (সি) লঙ্ঘন করেছে। ফলে আর্থিক প্রতিবেদনে এসব অসঙ্গতির বিষয়ে কোম্পানির কাছে ব্যাখ্যা জানতে চেয়েছে ডিএসই।

তথ্য মতে, এনার্জিপ্যাকের চলতি হিসাব বছরের নয় মাসে সমন্বিত শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছিলো ১.৩৯ টাকা। আগের হিসাব বছরের একই সময়ে ইপিএস ছিলো ১.৯৪ টাকা। সে হিসাবে নয় মাসে কোম্পানিটির ইপিএস ০.৫৫ টাকা বা ২৮.৩৫ শতাংশ কমেছে। তবে ২০২১ সালের ৩০ জুন সমাপ্ত হিসাব বছরে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২.৩০ টাকা। আগের সমাপ্ত হিসাব বছরের একই সময়ে ইপিএস ছিলো ৩.৮৩ টাকা। সেই হিসাবে সমাপ্ত হিসাব বছরে কোম্পানিটির ইপিএস কমেছে ১.৫৩ টাকা বা ৩৯.৯৪ শতাংশ কমেছে। 

এনার্জিপ্যাক পাওয়ারের পরিচালনা পর্ষদ ২০২১ সালের ৩০ জুন সমাপ্ত হিসাব বছরে শেয়ারহোল্ডারদের ১০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা দিয়েছে। ঘোষিত লভ্যাংশ শেয়ারহোল্ডারদের সম্মতিতে অনুমোদনের জন্য কোম্পানিটির বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) আয়োজন করা হবে আগামী ১১ ডিসেম্বর। আর লভ্যাংশ বিতরণের লক্ষ্যে শেয়ারহোল্ডার নির্বাচনের জন্য রেকর্ড তারিখ নির্ধারণ করা ছিলো ১৬ নভেম্বর।

এ বিষয়ে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ডিএসই’র একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘এটি ডিএসই’র রুটিন ওয়ার্ক। যেকোনো কোম্পানির আর্থিক প্রতিবেদনে অসঙ্গতি পেলে আমরা তাদের কাছে ব্যাখ্যা জানতে চাই। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে কোম্পানির ব্যাখ্যা সন্তোষজনক না হলে আইন অনুযায়ী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়।’

এদিকে, এ বিষয়ে কথা বলতে এনার্জিপ্যাক পাওয়ার জেনারেশনের কোম্পানি সচিব আলাউদ্দিন শিবলীর সঙ্গে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি। 

প্রসঙ্গত, চলতি বছরের ১৯ জানুয়ারি দেশের শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত হয়ে লেনদেন শুরু করে এনার্জিপ্যাক পাওয়ার জেনারেশন। কোম্পানিটি বর্তমানে শেয়ারবাজারের ‘এন’ ক্যাটাগরিতে লেনদেন করছে। ৫০০ কোটি টাকা অনুমোদিত মূলধনের এ কোম্পানিটির পরিশোধিত মূলধন ১৯০ কোটি ১৬ লাখ ৩০ হাজার টাকা। সেই হিসাবে কোম্পানিটির মোট শেয়ার সংখ্যা ১ কোটি ৬৩ লাখ ২১৬টি। এর মধ্যে সর্বশেষ হিসাব অনুযায়ী উদ্যোক্তা পরিচালকদের হাতে ৫৪.১৩ শতাংশ, প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের হাতে ১৭.০৮ শতাংশ ও সাধারণ বিনিয়োগকারীদের হাতে ২৮.৭৯ শতাংশ শেয়ার রয়েছে। গত বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর) এনার্জিপ্যাকের শেয়ার সর্বশেষ ৪১.৫০ টাকায় লেনদেন হয়।

ঢাকা/এনটি/ইভা 

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়