RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     শনিবার   ২৮ নভেম্বর ২০২০ ||  অগ্রাহায়ণ ১৪ ১৪২৭ ||  ১০ রবিউস সানি ১৪৪২

৩০ শতাংশ শেয়ার ধারণের সময় বাড়তে পারে: শিবলী রুবাইয়াত

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২২:২০, ২০ অক্টোবর ২০২০  
৩০ শতাংশ শেয়ার ধারণের সময় বাড়তে পারে: শিবলী রুবাইয়াত

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানিগুলোর পরিচালকদের সম্মিলিতভাবে ৩০ শতাংশ শেয়ার ধারণের জন্য আরও একমাস সময় বাড়ানো হতে পারে বলে ইঙ্গিত দিয়েছেন নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) চেয়ারম্যান অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলাম।

মঙ্গলবার (২০ অক্টোবর) ‘ধসে পড়া পুঁজিবাজার: উত্তরণে উদ্ভাবনী উদ্যোগ’ শীর্ষক ওয়েবিনারে তিনি এ ইঙ্গিত দেন।

বিএসইসি চেয়ারম্যান বলেন, পুঁজিবাজারে লেনদেন এখন ভালো চলছে। অনেক কোম্পানির পরিচালকরা শেয়ার কিনছেন। এরইমধ্যে ৩টি কোম্পানি আমাদের কাছে সময় বাড়ানোর জন্য আবেদন করেছে। তাদের মধ্যে ইতিবাচক চিন্তা রয়েছে বলে পরিলক্ষিত হচ্ছে। তাই এই সময় আরও একমাস বাড়ানো যেতে পারে।

শিবলী রুবাইয়াত বলেন, মার্জিন লোনের সুদ হার এখন যা রয়েছে তা মওকুফ করার বিষয়টি আমাদের হাতে নেই। তবে এই সুদের হার কমাতে কি করা যায় তা নিয়ে ভাবা হচ্ছে। সুদের হার কমাতে হলে বিদেশি ফান্ড আনার বিকল্প নেই। এই বিষয়গুলো নিয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের সঙ্গে আলোচনা চলছে।

তিনি বলেন, পুঁজিবাজারকে আরও সহজ ও শক্তিমালী করতে ডিজিটালাইজেশনের বিষয়ে গুরুত্ব দিচ্ছি। এজন্য ডিজিটাল প্লাটফর্মে আমরা বোর্ড মিটিং, এজিএম, ইজিএম করার অনুমতি দিয়েছি। এখন অনেক কোম্পানি তাদের সভাগুলো অনলাইনে করছে। এছাড়া কমিশনে এরইমধ্যে ই-ফাইলিং কার্যক্রম শুরু হয়েছে। আমরা রাতে ফাইল দেখে বাসায় বসেই তা অ্যাপ্রুভ করছি। শেয়ারবাজার সংক্রান্ত অনেক বিষয়ের অনুমতি আমরা দ্রুত সময়ের মধ্যে দিচ্ছি।

বিএসইসি চেয়ারম্যান আরও বলেন, মার্জিন লোনের সুদ হার এখন যা রয়েছে তা মওকুফ করার বিষয়টি আমাদের হাতে নেই। তবে এই সুদের হার কমাতে কি করা যায় তা নিয়ে ভাবা হচ্ছে। সুদের হার কমাতে হলে বিদেশি ফান্ড আনার বিকল্প নেই। এই বিষয়গুলো নিয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের সঙ্গে আলোচনা চলছে।

তিনি বলেন, একটি সরকারি ও দুটি বেসরকারিসহ মোট ৩টি ব্যাংক শিগগিরই পুঁজিবাজারে আসবে। এছাড়া একটি সরকারি বিদ্যুৎ প্রতিষ্ঠান ও একটি ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি বাজারে আসবে। তাদের আবেদন আমাদের কাছে রয়েছে।

ঢাকা/এনটি/জেডআর

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়