ঢাকা     বৃহস্পতিবার   ০৮ ডিসেম্বর ২০২২ ||  অগ্রহায়ণ ২৩ ১৪২৯

সিএসই’র স্ট্র্যাটেজিক পার্টনার হলো বসুন্ধরা গ্রুপের এবিজি

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৭:৪৭, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২  
সিএসই’র স্ট্র্যাটেজিক পার্টনার হলো বসুন্ধরা গ্রুপের এবিজি

দেশের পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) স্ট্র্যাটেজিক পার্টনার বা কৌশলগত বিনিয়োগকারী হিসেবে দেশের অন্যতম শীর্ষস্থানীয় শিল্পগোষ্ঠী বসুন্ধরা গ্রুপের প্রতিষ্ঠান এবিজি লিমিটেডকে অনুমোদন দিয়েছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। ফলে সিএসই ও এবিজি পুঁজিবাজারের ইতিহাসে নতুন অধ্যায় শুরু করল।

বুধবার (২৮ সেপ্টেম্বর) বিএসইসির নিয়মিত ৮৪০তম কমিশন সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

বিএসইসির নির্বাহী পরিচালক মোহাম্মদ রোজাউল করিম স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়, অদ্যকার সভায় চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) পরিচালনা পর্ষদের অনুমোদন ও পরবর্তীতে আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে কমিশন এবিজি লিমিটেডকে সিএসই’র কৌশলগত বিনিয়োগকারী হিসেবে কতিপয় শর্ত, সিকিউরিটিজ আইন পরিপালন সাপেক্ষে নীতিগত অনুমোদন প্রদান করেছে। এ ব্যাপারে সিএসই ও প্রস্তাবিত কৌশলগত বিনিয়োগকারী এবিজি লিমিটেড প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করবে।

তথ্য মতে, বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সায়েম সোবহান আনভীর এবিজি লিমিটেডেরও ব্যবস্থাপনা পরিচালক। তার নেতৃত্বে স্টক এক্সচেঞ্জ পরিচালনায় প্রয়োজনীয় কারিগরি সহায়তার জন্য আমেরিকাভিত্তিক একটি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে কাজ করছে এবিজি লিমিটেড। স্ট্র্যাটেজিক পার্টনার হিসেবে সিএসইর ২৫ শতাংশ শেয়ার কিনবে প্রতিষ্ঠানটি। এ সিদ্ধান্তের পরিপ্রেক্ষিতে সিএসই তথা দেশের পুঁজিবাজারে সার্বিক উন্নয়নে যথাযথ ভূমিকা রাখবে বলে মনে করে শিল্পগোষ্ঠী বসুন্ধরা গ্রুপের প্রতিষ্ঠান এবিজি লিমিটেড।

এর আগে, ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বরে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) তাদের ২৫ শতাংশ শেয়ার দুই কৌশলগত বিনিয়োগকারী শেনঝেন স্টক এক্সচেঞ্জ ও সাংহাই স্টক এক্সচেঞ্জের কাছে হস্তান্তর করে।

সিএসই প্রতিষ্ঠিত হয় ১৯৯৫ সালে। বর্তমানে এর পরিশোধিত মূলধন ৬৩৪.৫২ কোটি টাকা এবং শেয়ারের সংখ্যা ৬৩.৪৫ কোটি। ২০২০-২১ অর্থবছরের জন্য সিএসই তার শেয়ারহোল্ডারদের ৪ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দিয়েছে। গত বছরের ৩০ জুন পর্যন্ত সিএসইর নিট মুনাফা ছিল ২৮.৩৪ কোটি টাকা, যা আগের বছরে ছিল ৩১.৮৮ কোটি টাকা। একই সময়ে এর শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ০.৪৫ টাকা এবং এর শেয়ার প্রতি নিট অ্যাসেট ভ্যালু ছিল ১১.৭৫ টাকা।

ঢাকা/এনটি/এনএইচ

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়