ঢাকা, শুক্রবার, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

বঙ্গবন্ধু প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৩ শিক্ষার্থী বহিষ্কার

বিশ্ববিদ্যালয় সংবাদদাতা : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-১১-১৭ ৫:৪০:০৩ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-১১-১৭ ৮:০০:৩৩ পিএম

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৩ শিক্ষার্থীকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

এদের মধ্যে ৬ জনকে গত ২১ সেপ্টেম্বর সাধারণ শিক্ষার্থীদের ওপর হামলায় সম্পৃক্ত থাকায় এবং ৭ জনকে ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের ভর্তি পরিক্ষায় প্রতারণার চেষ্টা করার অভিযোগে বহিষ্কার করা হয়েছে।

রোববার বিশ্ববিদ্যালয়ের শৃঙ্খলা কমিটির সিদ্ধান্তের আলোকে পৃথক দুটি অফিস আদেশের মাধ্যমে এ বহিষ্কারাদেশ প্রদান করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার প্রফেসর ড. নুরুদ্দীন আহমেদ।

সাধারণ শিক্ষার্থীদের ওপর হামলায় সম্পৃক্ত থাকায় বহিষ্কৃত হওয়া ৬ শিক্ষার্থী হলেন রাফিজুল ইসলাম, নুরুদ্দীন নাহিদ, আরিফুল ইসলাম সাকিব, মাজহারুল ইসলাম মিশন, রাহাত আল আহসান ও ইসমাইল শেখ। বহিষ্কৃত ৬ জনই ম্যানেজমেন্ট বিভাগের শিক্ষার্থী। এদের মধ্যে ইসমাইল শেখকে দুই সেমিস্টারের জন্য এবং অবশিষ্ট ৫ জনকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হয়েছে।

এর আগে গত ৫ নভেম্বর এই ছয় শিক্ষার্থীকে শোকজ নোটিশ প্রদান করা হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার ড. নুরুদ্দীন আহমেদ জানান, গত ২১ সেপ্টেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার ঘটনা তদন্তে ২০ অক্টোবর গঠিত তদন্ত কমিটির রিপোর্টের ভিত্তিতে এই বহিষ্কারাদেশ প্রদান করা হয়েছে।

এদিকে, ভর্তি প্রতারক চক্রের সাথে যুক্ত থাকায় বহিষ্কৃত সাত শিক্ষার্থী হলেন এ আই এস বিভাগের এমবিএ শিক্ষার্থী বাবু শিকদার বাবু, ম্যানেজমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের (৩য় বর্ষে) শিক্ষার্থী মো. নয়ন খান, একই বিভাগের (৩য় বর্ষে) নিয়ামুল ইসলান, আইন বিভাগের (৩য় বর্ষ) অমিত গাইন, আইন বিভাগের (২য় বর্ষ) মানিক মজুমদার, সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের (২য় বর্ষ) রনি খান ও ম্যানেজমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের (৩য় বর্ষে) মনিমুল হক। এই সাত শিক্ষার্থীকে দুই সেমিস্টারের জন্য বহিষ্কার করা হয়েছে।

গত ৯ নভেম্বর ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের ভর্তি পরীক্ষার পূর্বে গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন রণিসহ পাঁচ শিক্ষার্থীকে আটক করে। পরবর্তী সময়ে তাদের সাক্ষ্য অনুযায়ী এই সাত শিক্ষার্থীর সংশ্লিষ্টতার প্রমাণ পাওয়া যায়।

 

বশেমুরবিপ্রবি/রাশিদুল ইসলাম/হাকিম মাহি

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন