ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৩ ফাল্গুন ১৪২৬, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

‘বিজ্ঞানকে প্রকৃতি দিয়ে শিখতে হবে’

কলেজ সংবাদদাতা : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০১-১৯ ৯:১২:৪২ পিএম     ||     আপডেট: ২০২০-০১-১৯ ৯:১৩:২২ পিএম

সোনালী ব্যাগের উদ্ভাবক ড. মোবারক আহমদ খান বলেছেন, বিজ্ঞান ও প্রকৃতি একে অন্যের সাথে ওতপ্রোতভাবে জড়িয়ে আছে। আমরা যদি বিজ্ঞানকে প্রকৃতি দিয়ে শিখতে পারি, তাহলে সেটা বেশি কার্যকর হবে। আমাদের দেশের খুদে বিজ্ঞানীদের প্রতি আমার পরামর্শ থাকবে, তারা যেন বিজ্ঞানকে প্রকৃতির মতো করে শেখে।

রোববার বিকেলে ঢাকা কলেজের বিজ্ঞান ক্লাব আয়োজিত ৭ম জাতীয় বিজ্ঞান প্রদর্শনীতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

ড. মোবারক আহমেদ খান শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘যাদের বয়স ২১ থেকে ৩০ বছর, তাদেরকে বলা হয় তরুণ বিজ্ঞানী। পৃথিবীতে বড় বড় বিজ্ঞানীরা যত বড় বড় থিওরি দিয়েছেন তাদের বয়স ৩০ এর কম ছিল। বিজ্ঞানী প্যাসকেল ও এরিস্টটল মাত্র ১৬ বছর বয়সে থিওরি দিয়েছেন।’

তিনি আরো বলেন, ‘বিজ্ঞানীরা আবিষ্কার করবে। আর তাদের আবিষ্কার মানুষের সেবায় পৌঁছে দেয়ার দায়িত্ব অন্যদের। আমাদের বিজ্ঞান পড়ে তা বাস্তব জীবনে কাজে লাগাতে হবে।’

পাট থেকে নিজের উদ্ভাবিত সোনালী ব্যাগ, পাটের তৈরি জুটন ঢেউটিন আবিষ্কারের বিষয়ে ড. মোবারক আহমদ খান বলেন, ‘আমি যখন যুক্তরাষ্ট্রে গবেষণা করতে গেলাম, তখন দেখি আমার দেশ থেকে পাট নিয়ে বিদেশি শিক্ষকের সাথে গবেষণা করলে অন্য দেশের সুনাম হবে। তাই মাত্র ১১ দিনের মাথায় চাকরি ছেড়ে দিয়ে দেশে চলে আসি এবং গবেষণা শুরু করি। আজ আমি সফল। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজেই সোনালী ব্যাগের নামকরণ করেছেন।’

অনুষ্ঠানে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। এবারের বিজ্ঞান প্রদর্শনীতে বিভিন্ন স্টলে ভিন্ন ভিন্ন প্রজেক্ট নিয়ে বসেছিলেন শিক্ষার্থীরা। এর মধ্যে বায়োপ্ল্যাস্টিক, ডিসবোট, দূষণ মুক্ত পরিবেশ ও আটোমেটিক লাইট সিস্টেম সেভ দ্য লাইফ, পাওয়ার সেভিং টাউন, ব্লাইন্ড গুগলসহ বিভিন্ন প্রজেক্ট উপস্থাপন করা হয়।

বিজ্ঞান প্রদর্শনীতে অংশ নিয়ে রাজধানীর নটরডেম কলেজের শিক্ষার্থী সাইফুদ্দিন সিয়াদ বলেন, ‘ঢাকা কলেজ বিজ্ঞান ক্লাবকে অনেক ধন্যবাদ। তারা বিজ্ঞান প্রদর্শনীর মতো এত সুন্দর একটি আয়োজন করার জন্য। এখানে এসে নিজের প্রজেক্টটি সম্পর্কে সবাইকে জানাতে পারছি এবং অন্য প্রতিষ্ঠান থেকে আসা শিক্ষার্থীদের তৈরি করা প্রজেক্ট থেকে অনেক ধারণা পাচ্ছি, যা পরবর্তীতে আমাদের আরো ভালো প্রজেক্ট তৈরি করতে সাহায্য করবে।’

উল্লেখ্য, ঢাকা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর নেহাল আহমেদ, উপাধ্যক্ষ প্রফেসর এ টি এম মঈনুল হোসেন, শিক্ষক পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ড. আব্দুস কুদ্দুস শিকদারসহ বিভিন্ন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান, শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়াও বিজ্ঞান প্রদর্শনীতে অংশ নেয়া রাজধানীর ৬০টিরও বেশি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থী, শিক্ষক ও অভিভাবকরা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।


ঢাকা/রায়হান/মাহি

     
 
রাইজিংবিডি স্পেশাল ভিডিও