ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৭ চৈত্র ১৪২৬, ৩১ মার্চ ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

রাবিতে অকার্যকর যৌন নিপীড়ন নিরোধ সেল

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় সংবাদদাতা : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০২-২৮ ১০:০০:৪৫ পিএম     ||     আপডেট: ২০২০-০২-২৮ ১০:০০:৪৫ পিএম

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) শিক্ষার্থীদের জন্য গঠিত যৌন নিপীড়ন নিরোধ সেল অকার্যকর হয়ে আছে। দীর্ঘ ছয় মাস সভাপতির পদ শূন্য থাকায় সেল কার্যক্রম চালাতে পারছে না। ফলে ঝুলে আছে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ।

সম্প্রতি চারুকলা অনুষদের গ্রাফিক ডিজাইন, কারুশিল্প ও শিল্পকলার ইতিহাস বিভাগের অধ্যাপক আমিরুল মোমেনীন চৌধুরীর বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ করেছেন অনুষদের ১২ জন ছাত্রী। গত ২৬ ফেব্রুয়ারি দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের যৌন নিপীড়ন নিরোধ সেলে ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করেন।

এদিকে, অভিযুক্ত শিক্ষক অধ্যাপক আমিরুল মোমেনীন অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, তিনি এসব বিষয়ে কিছুই জানেন না। দীর্ঘ ২৬ বছর শিক্ষকতা করে আসছেন। কখনো এ রকম ঘটেনি। 

নাম প্রকাশ না করার শর্তে ভুক্তভোগী এক শিক্ষার্থী বলেন, তাদের মতো আরও অনেক শিক্ষার্থী স্যারের দ্বারা যৌন হয়রানির শিকার হয়েছেন। প্রতিনিয়ত এটা ঘটে চলেছে। কিন্তু ভয়ে কেউ মুখ খুলতে পারছে না। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন সঠিক বিচারের আশ্বাস দিলে আরও অনেক ভুক্তভোগী হয়রানির শিকার হওয়ার কথা জানাতে পারবেন।   

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, ২০১৯ সালের ৮ আগস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক এম আব্দুস সোবহান বরাবর পদত্যাগপত্র জমা দেন সেলের তৎকালীন সভাপতি ও সমাজকর্ম বিভাগের অধ্যাপক জান্নাতুল ফেরদৌস। এরপর থেকে সভাপতির পদটি শূন্য রয়েছে।

এই সেলের সদস্য সচিব ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র উপদেষ্টা অধ্যাপক লায়লা আরজুমান বানু জানান, সভাপতি পদ শূন্য থাকায় সেলটির কার্যক্রম স্থবির রয়েছে।

সাম্প্রতিক অভিযোগের বিষয়ে সেল কী প্রদক্ষেপ নেবে জানতে চাইলে তিনি বলেন, উপাচার্য অন্য বিষয়ে ব্যস্ত থাকায় আগামী রোববার তাকে বিষয়টি অবহিত করা হবে।


শাহিনুর খালিদ/বকুল

     
 

ট্যাগ :