RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     রোববার   ২৫ অক্টোবর ২০২০ ||  কার্তিক ১০ ১৪২৭ ||  ০৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

‘মতপ্রকাশের স্বাধীনতায় কুঠারাঘাত করেছে ঢাবি’

নিজস্ব প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৮:৫৮, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২০  
‘মতপ্রকাশের স্বাধীনতায় কুঠারাঘাত করেছে ঢাবি’

পত্রিকায় নিবন্ধ প্রকাশের জের ধরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) মার্কেটিং বিভাগের অধ্যাপক ড. মোর্শেদ হাসান খানকে আইন লঙ্ঘন করে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন বিশ্ববিদ‌্যালয়ের শিক্ষকরা। তারা বলছেন, এর মাধ্যমে মতপ্রকাশের স্বাধীনতায় কুঠারাঘাত করেছে ঢাবি প্রশাসন।

বৃহস্পতিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অপরাজেয় বাংলার পাদদেশে মানববন্ধনে এ অভিযোগ করেন তারা। মোর্শেদ হাসান খানকে বিশ্ববিদ্যালয়ের চাকরি থেকে অব্যাহতির সিদ্ধান্ত বাতিলের দাবিতে এ মানববন্ধন করা হয়।

বিশ্ববিদ‌্যালয়ের শিক্ষকরা বলেন, ‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় স্বাধীন মতপ্রকাশ ও মুক্তবুদ্ধির লালন ও চর্চার কেন্দ্র হিসেবে সুপরিচিত। এটি বিশ্ববিদ্যালয়ের শতবর্ষের ঐতিহ্য। কিন্তু আমরা হতাশা ও উদ্বেগের সাথে লক্ষ করছি যে, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এ সুমহান ঐতিহ্য নস্যাৎ হতে চলেছে। একটি দৈনিক পত্রিকায় প্রকাশিত ড. মোর্শেদ হাসান খানের একটি নিবন্ধের সূত্র ধরে উদ্ভূত প্রতিক্রিয়া ও পরিস্থিতিতে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে। তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনের ভিত্তিতে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য প্রশাসনিক ট্রাইবুন্যাল গঠন করা হয়। ট্রাইবুন্যাল প্রথমে তার বিরুদ্ধে একটি শাস্তির সুপারিশ করেছিল। কিন্তু একটি মহল ট্রাইব্যুনালের সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করার জন্য এ বিষয়ে দৈনিক পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশের ব্যবস্থা করে। একটি সংগঠন ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ মিছিলও করে। পরিস্থিতি তৈরি করে ট্রাইব্যুনালের সিদ্ধান্ত পরিবর্তনের মাধ্যমে গত ৯ সেপ্টেম্বর সিন্ডিকেট সভায় ড. মোর্শেদ হাসান খানকে চাকরি থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়।’

তারা আরও বলেন, ‘১৯৭৩ সালের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আদেশের ৫৬ ধারার ৩ উপধারা এবং ১ম স্ট্যাটিউটের ৪৫ ধারার ৩ উপধারা অনুযায়ী, নৈতিক স্খলনজনিত অপরাধ, অদক্ষতা এবং চাকরিবিধি পরিপন্থী কাজের সঙ্গে সংশ্লিষ্টতা প্রমাণ হলে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষককে চাকরি থেকে অব্যাহতি দেওয়া যায়। ড. মোর্শেদ এসব অভিযোগে অভিযুক্ত নন।’

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিএনপি-জামায়াতপন্থী শিক্ষকদের সংগঠন সাদা দল আয়োজিত মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন এর আহবায়ক অধ্যাপক ড. এবিএম ওবায়দুল ইসলাম। সঞ্চালনা করেন সাদা দলের যুগ্ম আহ্বায়ক ও বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অধ্যাপক ড. লুৎফর রহমান।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সাবেক সভাপতি অধ্যাপক ড. মামুন আহমেদ, বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সদস্য ড. মো. হাসানুজ্জামান, অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ ছিদ্দিকুর রহমান খান, অধ্যাপক মো. আলামিন প্রমুখ।

এ সময় অধ্যাপক ড. মুজাহিদুল ইসলাম, ড. এহসান মাহবুব যুবায়ের, আবুল কালাম সরকার, মো. শহীদুল ইসলাম, ড. গোলাম রব্বানী, এম এম কাউসার, মো. মিজানুর রহমান, ড. মো. সাইফুল্লাহ, ইসরাফিল প্রামানিক রতন, মো. নুরুল আমিন, মুহাম্মদ রফিকুল ইসলামসহ বিভিন্ন বিভাগের শতাধিক শিক্ষক উপস্থিত ছিলেন।

ঢাকা/সাওন/রফিক

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়