Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     শনিবার   ০৪ ডিসেম্বর ২০২১ ||  অগ্রহায়ণ ২০ ১৪২৮ ||  ২৭ রবিউস সানি ১৪৪৩

শিক্ষার্থীদের টিকাদান: স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় মাউশি

নিজস্ব প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১১:৩৩, ২৮ অক্টোবর ২০২১   আপডেট: ১১:৩৬, ২৮ অক্টোবর ২০২১
শিক্ষার্থীদের টিকাদান: স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় মাউশি

স্কুল শিক্ষার্থীদের করোনাভাইরাসের টিকা দেওয়ার বিষয়ে আলোচনা চলছে। সম্ভব হলে শনিবার (৩০ অক্টোবর) থেকেই ১২ থেকে ১৭ বছর বয়সী শিশুদের টিকাদান করা যাবে। এক্ষেত্রে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের চূড়ান্ত সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি)।

বৃহস্পতিবার (২৮ অক্টোবর) মাউশির পরিচালক (স্কুল) অধ্যাপক বেলাল হুসাইন রাইজিংবিডিকে এতথ্য জানান।

বেলাল হুসাইন বলেন, ‘আমরা নির্দেশের অপেক্ষায় আছি। স্বাস্থ্য অধিদপ্তর ও আইসিটি বিভাগের সঙ্গে আলোচনা চলছে। চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত আসলে নোটিশ করে দেব।’ 
তবে শনিবার টিকা দেওয়ার বিষয়ে জোর আলোচনা চলছে বলে জানান বেলাল হুসাইন।

মাউশি সূত্রে জানা গেছে, শুরুতে ঢাকা মহানগরীর ১২টি কেন্দ্রের ৩৯২টি বুথে স্কুল শিক্ষার্থীদের টিকাদান কার্যক্রম চলবে। এরপর পর্যায়ক্রমে দেশব্যাপী শিক্ষার্থীদের টিকাদান শুরু হবে। সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হলে শনিবার বসুন্ধরা এলাকার হার্ডকো ইন্টারন্যাশনাল স্কুল, মালিবাগ ও রামপুরার সাউথ পয়েন্ট স্কুল, গুলশান-১ এ অবস্থিত চিটাগাং গ্রামার স্কুল, সূত্রাপুরে কসমোপলিটন ল্যাবরেটরি স্কুল এন্ড কলেজ, বীরশ্রেষ্ঠ মুন্সি আব্দুর রউফ স্কুল এন্ড কলেজ, মতিঝিলের আইডিয়লা স্কুল এন্ড কমার্স কলেজ, ঢাকা কমার্স কলেজ, কাকলি হাই স্কুল এন্ড কলেজ, সাউথ ব্রিজ স্কুল, স্কলাস্টিকা স্কুল, বিএইচ খান স্কুল এন্ড কলেজ এবং আহমেদ বাওয়ানি একাডেমি কেন্দ্রে স্থাপিত বুথ থেকে শিক্ষার্থীরা টিকা নিতে পারবেন।

প্রথমদিন ঢাকা মহানগরীর ৩৯২টি কেন্দ্রে ৭৮ লাখ ৪০০ শিক্ষার্থীকে টিকা দেওয়া হবে। সবাই ফাইজারের টিকা পাবেন।

এ বিষয়ে মাউশির পরিচালক (কলেজ ও প্রশাসন) অধ্যাপক শাহেদুল খবীর চৌধুরী জানান, আগামী ৩০ অক্টোবর থেকে টিকা কার্যক্রম শুরুর পরিকল্পনা আছে। এটি বাস্তবায়ন করবে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। আমরা তাদের টিকাদান কর্মসূচিতে সহায়তা করবো। সে লক্ষ্যে বিভিন্ন কেন্দ্র প্রস্তুত করা হয়েছে।

এর আগে স্কুল শিক্ষার্থীদের টিকা দিতে ইতোমধ্যে প্রতিষ্ঠানগুলোতে দুই ধাপে চিঠি দিয়েছে মাউশি। প্রথম দফায় ঢাকা মহানগরির স্কুলগুলোর তথ্য ১৯ অক্টোবর পর্যন্ত জমা নেবে মাউশি। এছাড়া সারাদেশের অন্যান্য স্কুলগুলোর শিক্ষার্থীদের তথ্য বুধবার (২৭ অক্টোবর) পর্যন্ত জমা নেয় অধিদপ্তর।’

মাউশির পরিচালক (স্কুল) বেলাল হোসাইন বলেন, ‘আমরা তথ্য নিয়েছি। শিক্ষার্থীদের তথ্যের ভিত্তিতে আমরা টিকাদান কার্যক্রম শুরু করবো। আমরা শিক্ষার্থীদের তথ্য আইসিটি বিভাগে দিয়েছি। তারা শিক্ষার্থীদের তথ্য অ্যাপসে সংযোজন করে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়কে অবহিত করে। সেটার ভিত্তিতেই এখন শিক্ষার্থীদের টিকা দেওয়া হবে। আলোচনা চলছে। আশা করছি শনিবারই শুরু করা যেতে পারে।

এর আগে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. এ বি এম খুরশীদ আলম জানিয়েছেন, নিজ নিজ স্কুলের মাধ্যমেই শিক্ষার্থীদের এই টিকা কার্যক্রম পরিচালিত হবে। সক্ষমতা অনুযায়ী সারাদেশের জেলা ও সিটি করপোরেশন পর্যায়ে মোট ২১টি কেন্দ্র নির্ধারণ করা হয়েছে। এসব কেন্দ্রে স্কুল শিক্ষার্থীদের ফাইজারের টিকা দেওয়ার প্রস্তুতি আছে।

ইয়ামিন/মাসুদ 

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়