ঢাকা     রোববার   ২৯ জানুয়ারি ২০২৩ ||  মাঘ ১৫ ১৪২৯

সোনারগাঁও বিশ্ববিদ্যালয়ে জলবায়ু নিয়ে কর্মশালা

নিজস্ব প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১১:১৫, ২৮ নভেম্বর ২০২২  
সোনারগাঁও বিশ্ববিদ্যালয়ে জলবায়ু নিয়ে কর্মশালা

নবায়নযোগ্য জ্বালানি এমন এক শক্তির উৎস, যা স্বল্প সময়ের ব্যবধানে ফের ব্যবহার করা যায় এবং শক্তির উৎসটি নিঃশেষ হয়ে যায় না। জলবায়ু পরিবর্তনের অন্যতম শিকার বাংলাদেশকে নবায়নযোগ্য জ্বালানির ক্ষেত্রে জার্মানিসহ বেশকিছু উন্নয়ন সহযোগী দেশ ও সংস্থা এক্ষেত্রে সহায়তা করছে। সরকারও পরিবেশবান্ধব জ্বালানির উৎপাদন ও ব্যবহারে বেশকিছু কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। 

রোববার (২৭ নভেম্বর) রাজধানীর গ্রিন রোডে অবস্থিত সোনারগাঁও ইউনিভার্সিটিতে ডিপার্টমেন্ট অব ল এবং অ্যাকশন এইড আয়োজিত ‘বাংলাদেশে অভিযোজনের জন্য জলবায়ু পরিবর্তন এবং নবায়নযোগ্য শক্তি: টেকসই উন্নয়নের লক্ষ্যে প্যারিস চুক্তিকে সংযুক্ত করা’ শীর্ষক দুই পর্বের ওয়ার্কশপে বক্তারা এসব কথা বলেন।

ওয়ার্কশপে প্রধান অতিথি ছিলেন সোনারগাঁও ইউনিভার্সিটির উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আবুল বাশার।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি উপস্থিত ছিলেন এসইউ’র ট্রেজারার প্রফেসর মো. আল-আমিন মোল্লা, কলা ও মানবিক অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. এম এ মাবুদ, বিজ্ঞান ও প্রকৌশল অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. মো. আলমগীর হোসেন, বিজনেস অনুষদের ডিন প্রফেসর আবুল কালাম, রেজিস্ট্রার এস, এম, নূরুল হুদা, এসইউ’র ছাত্রকল্যাণ বিভাগের পরিচালক কাজী জুলকারনাইন সুলতান আলম।

ওয়ার্কশপে কি-নোট স্পিকার ছিলেন এসইউ’র ডিপার্টমেন্ট অব ল’র প্রভাষক মো. সাগর হোসাইন এবং প্রোগ্রাম চেয়ার ছিলেন এসইউ’র ডিপার্টমেন্ট অব ল’র প্রধান ও সহকারী অধ্যাপক মো. দিদারুল ইসলাম ভূইয়া।

ওয়ার্কশপের প্রধান অতিথি উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আবুল বাশার বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে সৃষ্ট চ্যালেঞ্জগুলো পুরো বিশ্বের জন্য একটা চ্যালেঞ্জ। তিনি আরও বলেন, এ ধরনের ওয়ার্কশপের আয়োজন জীববৈচিত্র্য সুরক্ষার প্রতি আমাদের অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করবে তাই নয়, উপরন্তু জলবায়ুর পরিবর্তনশীলতার প্রভাব ও পরিবেশগত ক্ষতি মোকাবিলায় যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণেও সাহায্য করবে।

ট্রেজারার প্রফেসর মো. আল-আমিন মোল্লা বলেন, পুঁথিগত বিদ্যার পাশাপাশি সোনারগাঁও ইউনিভার্সিটি সেমিনার, ওয়ার্কশপের আয়োজন করছে এটা ভালো দিক। জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে এ দেশে কী কী ক্ষতি হতে পারে তা উপস্থিতির মাঝে তুলে ধরে তিনি সবাইকে নিজ নিজ বাড়িতে সাজনা গাছ লাগানোর কথা বলেন।

কলা ও মানবিক অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. এম এ মাবুদ বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে এ দেশে যেসব প্রভাব পড়বে, তা থেকে মুক্তি পেতে জাতিকে এখন থেকে প্রস্তুতি নিতে হবে।

ওয়ার্কশপের দ্বিতীয় পর্বে কি-নোট স্পিকার এসইউ’র ডিপার্টমেন্ট অব ল’র প্রভাষক মো. সাগর হোসাইন স্লাইডের মাধ্যমে জলবায়ু পরিবর্তন এবং নবায়নযোগ্য শক্তির প্রভাব ও প্যারিস চুক্তির সাথে এর সম্পর্ক তার বিস্তারিত তুলে ধরেন।

/রায়হান/হাসান/সাইফ/

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়