ঢাকা     শনিবার   ০৮ আগস্ট ২০২০ ||  শ্রাবণ ২৪ ১৪২৭ ||  ১৮ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

বাবা অশ্লীল মন্তব্য করতেন: পলক

21 || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১১:৩১, ১৩ আগস্ট ২০১৯  

বিনোদন ডেস্ক: স্বামী অভিনবর বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেছেন ভারতীয় অভিনেত্রী শ্বেতা তিওয়ারি। মেয়ে পলককে মাঝে মাঝে মডেলদের অশ্লীল ছবি দেখানো ও গালিগালাজ করার অভিযোগ করেছেন তিনি। এ বিষয়ে পলক তার ইনস্টাগ্রামে একটি পোস্ট দিয়েছেন।

পলক লেখেন, ‘আমাকে শারীরিকভাবে কখনো নির্যাতন করেনি অভিনব। তবে আমার প্রতি অশ্লীল মন্তব্য করতেন, যা বাবা হিসেবে একেবারেই অশোভনীয়। এর আগে আমার মাকে কখনো মারধর করেনি অভিনব কোহলি। যে দিন মা এফআইআর করে সে দিনই মাকে মারধর করা হয়। এটাই প্রথম।’

‘আপনাদের কোনো ধারণা নেই, দুটি বিয়েতেই আমার মাকে কী পরিমাণ অত্যাচার সহ্য করতে হয়েছে। তাই খুব অল্প জেনে তা নিয়ে মন্তব্য বা আলোচনা করার কোনো অধিকার আপনাদের নেই। সময় হয়েছে মায়ের পাশে দাঁড়ানোর। আমার মায়ের মতো মনের জোর আর কারো মধ্যে দেখিনি। নিজের চোখে মায়ের সংগ্রামের প্রতিটি মুহূর্ত দেখেছি।’ লিখেন পলক।

ক্ষোভ প্রকাশ করে পলক আরো লিখেন, ‘সোশ্যাল মিডিয়ার আয়না দিয়ে আমাদেরকে বিচার করা উচিৎ নয়। একজন গর্বিত সন্তান হিসেবে আজ আমি সবাইকে বলতে চাই— আমার মায়ের মতো শ্রদ্ধেয় ব্যক্তিত্ব আর দুটি নেই। স্বনির্ভর এই মানুষটির জীবন কাটানোর জন্য কোনো পুরুষের প্রয়োজন নেই। পরিবারে তথাকথিত পুরুষের ভূমিকা আমি আমার মাকেই সারাজীবন নিতে দেখেছি।’

২০১৩ সালে অভিনেতা অভিনব কোহলির সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন শ্বেতা। ২০১৬ সালে তাদের ঘর আলো করে আসে পুত্র রেয়ানশ। এর আগে ১৯৯৮ সালে ভোজপুরী অভিনেতা রাজা চৌধুরীকে বিয়ে করেছিলেন শ্বেতা। পরে রাজার বিরুদ্ধে আদালতে নির্যাতনের মামলা করেছিলেন তিনি। ২০০৭ সালে রাজার সঙ্গে শ্বেতার বিবাহবিচ্ছেদ হয়। রাজা-শ্বেতার সন্তান পলক।

 

রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৩ আগস্ট ২০১৯/শান্ত

রাইজিংবিডি.কম

সম্পর্কিত বিষয়: