ঢাকা, সোমবার, ১৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ০১ জুন ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

‘কিছু মানুষের কারণে লাখ লাখ দেশবাসী বিপদের মুখে’

বিনোদন ডেস্ক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০৪-০৩ ১:১৭:২৮ পিএম     ||     আপডেট: ২০২০-০৪-০৩ ৩:২৭:৫৯ পিএম

‘কিছু মানুষের কারণে লাখ লাখ দেশবাসী বিপদের মুখে পড়েছেন। এটা তো দায়িত্বজ্ঞানহীনের মতো কাজ। এক্ষেত্রে প্রশাসনের চেয়েও বেশি দায়ী সেসব মানুষেরাই। যারা লকডাউন ঘোষিত হওয়ার পরও এই অনুষ্ঠানে ছিলেন।’—দিল্লির নিজামউদ্দিন মারকাজে ইজতেমার আয়োজন করা প্রসঙ্গে এসব কথা বলেন সাংসদ ও অভিনেত্রী নুসরাত জাহান।

লকডাউনের নিষেধ উপেক্ষা করে গত মার্চের মাঝামাঝি সময় দিল্লির নিজামউদ্দিন মারকাজে ইজতেমার আয়োজন করেছিলেন সাদ ও তার অনুসারীরা। ওই ইজতেমায় অংশ নেওয়া ১২৮ জনের শরীরে করোনাভাইরাস ধরা পড়েছে। এদের মধ্যে সাত জনের মৃত্যু হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, এই ইজতেমার সঙ্গে অন্তত ৪০০ জন করোনা আক্রান্তের যোগসূত্র রয়েছে।

এই সংকটকালে হিন্দু-মুসলিম ভেদাভেদ ভুলে একসঙ্গে লড়াই করার অনুরোধ জানিয়েছেন বসিরহাটের এ সাংসদ। নুসরাত জাহান বলেন—ধর্ম বা জাতি দেখে মানুষের শরীরে রোগ থাবা বসায় না। এখন রাজনীতি করার সময় নয়। আগে মানুষের প্রাণ।

পাশাপাশি সবার কাছে অনুরোধ করে নুসরাত জাহান বলেন, শরীরে করোনার লক্ষণ দেখা দিলে তা লুকিয়ে রাখবেন না। করোনা নিয়ে অযথা আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। আগে প্রয়োজনীয় পরীক্ষা করানো দরকার।

গত বুধবার মারকাজ ইউটিউব চ্যানেলে সাদের দুটি অডিও ক্লিপস প্রকাশ করা হয়। এর একটিতে সাদ দাবি করেন—করোনাভাইরাস তার অনুসারীদের কোনো ক্ষতি করতে পারবে না। মৃত্যুর জন্য মসজিদই সর্বোত্তম স্থান। পরে বিষয়টি নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়েছিল।

পরের অডিও ক্লিপসে নিজের এ অবস্থান থেকে সরে আসেন বিশ্ব তাবলিগের একাংশের এই আমির। তাবলিগের সাথীদের করোনা প্রতিরোধে সরকারি নির্দেশনা মেনে চলা এবং জনসমাবেশ এড়িয়ে চলার আহ্বান জানান তিনি।

 

ঢাকা/শান্ত