ঢাকা     শনিবার   ১৫ আগস্ট ২০২০ ||  শ্রাবণ ৩১ ১৪২৭ ||  ২৪ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

অমিতাভের হাফ সেঞ্চুরি

290 || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ০৬:২১, ৭ নভেম্বর ২০১৯  
অমিতাভের হাফ সেঞ্চুরি

কেউ বলেন বলিউডের ‘বিগ বি’, আবার কেউ বলেন ‘শাহেনশাহ’। সিনেমা প্রেমীদের কাছে তিনি কিংবদন্তি অভিনেতা। তিনি অমিতাভ বচ্চন।

১৯৬৯ সালের ৭ নভেম্বর মুক্তি পায় তার প্রথম সিনেমা সাত হিন্দুস্তানি। এরপর ধীরে ধীরে ভক্তদের হৃদয়ে জায়গা করে নিয়েছেন জনাব বচ্চন। আজ তার বলিউডে পা রাখার ৫০ বছর পূর্তি হলো।

৭৭ বছর বয়সেও এখনো দাপটের সঙ্গে অভিনয় চালিয়ে যাচ্ছেন অমিতাভ। একের পর এক ব্যবসাসফল সিনেমা দর্শকদের উপহার দিচ্ছেন। বিশেষ এই দিনে মাইক্রোব্লগিং সাইট টুইটারে অমিতাভ বচ্চনকে শুভেচ্ছা জানিয়ে তার ছেলে অভিষেক বচ্চন লিখেছেন, সিনেমা ইন্ডাস্ট্রিতে ৫০ বছর পূর্ণ হওয়ায় অভিনন্দন বাবা। আমরা এখন পরবর্তী ৫০ বছরের অপেক্ষায়।

অন্য এক টুইটে তিনি লিখেছেন, শুধু সন্তান হিসেবে নয়, একজন অভিনেতা ও ভক্ত হিসেবে আমাদের অসাধারণ কিছু সিনেমার সাক্ষী হওয়ার সৌভাগ্য হয়েছে। অনেক কিছু অনুকরণ, শেখার ও প্রশংসা করার রয়েছে। সিনেমা প্রেমীদের কিছু প্রজন্ম বলে থাকে, আমরা বচ্চনের সময়ে বড় হয়েছি।

দীর্ঘ পাঁচ দশকের অভিনয় ক্যারিয়ারে শোলে, নসিব, মুকাদ্দর কা সিকান্দর, মিস্টার নটবরলাল, সিলসিলা, কাভি কাভি, ডন, আখরি রাস্তা, শরাবি, লাওয়ারিশ, নামক হালাল, দিওয়ার, অমর আকবর অ্যান্টনি, সরকার সহ অসংখ্য কালজয়ী সিনেমা দর্শকদের উপহার দিয়েছেন। অগ্নিপথ, ব্ল্যাক, পা, পিকু সিনেমার জন্য জিতেছেন ভারতের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। পাশাপাশি তার ঝুলিতে ফিল্মফেয়ারসহ অসংখ্য দেশি-বিদেশি সম্মানসূচক পুরস্কারও রয়েছে। এ বছর দাদাসাহেব ফালকে অ্যাওয়ার্ড পাচ্ছেন কিংবদন্তি এই অভিনেতা।

এছাড়া তিনি ১৯৮৪ সালে ভারতীয় সরকারের ‘পদ্মশ্রী’ পুরস্কারে ভূষিত হন। এরপর ২০০১ সালে তাকে ‘পদ্মভূষণ’ এবং ২০১৫ সালে ‘পদ্মবিভূষণ’ সম্মানে ভূষিত করা হয়। ২০০৭ সালে ফ্রান্স সরকার তাকে দেশটির সর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মাননা ‘লেজিওঁ দ নরের নাইট’ উপাধিতে ভূষিত করে।

 

ঢাকা/মারুফ

রাইজিংবিডি.কম

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়