ঢাকা     সোমবার   ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ ||  আশ্বিন ১৩ ১৪২৭ ||  ১০ সফর ১৪৪২

লকডাউনে শিঙ্গাড়া বানানো শিখেছি: ঐশী

রাহাত সাইফুল || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৬:০৬, ৩ আগস্ট ২০২০   আপডেট: ১০:৩৯, ২৫ আগস্ট ২০২০
লকডাউনে শিঙ্গাড়া বানানো শিখেছি: ঐশী

তরুণ কণ্ঠশিল্পী ঐশী। তার গাওয়া বেশ কিছু গান শ্রোতাপ্রিয় হয়েছে। একক অ্যালবাম, মিউজিক ভিডিও এবং চলচ্চিত্রে প্লেব্যাক করে প্রশংসা কুড়িয়েছেন। সংগীত-ভাবনা, করোনাকাল, কোরবানি ঈদ ইত্যাদি প্রসঙ্গে ঐশী কথা বলেছেন রাইজিংবিডির জ্যেষ্ঠ বিনোদন প্রতিবেদক রাহাত সাইফুলের সঙ্গে।

রাইজিংবিডি: কোরবানি ঈদে রান্নাঘরে বাড়ির মেয়েদের ব্যস্ততা বেড়ে যায়। আপনার স্পেশাল কোনো রেসিপি আছে?
ঐশী: প্রথমেই বলে নিচ্ছি, আমি রান্নায় পটু নই। এর কারণও রয়েছে। পড়াশোনা আর গান নিয়েই ব্যস্ত থেকেছি অনেকটা সময়। রান্নাটা শেখা হয়নি৷ এক ঈদে পোলাউ, মাংস রান্না করেছিলাম। আম্মু শিখিয়ে দিয়েছিলেন।
তবে হ্যাঁ, আমি খুব ভালো পাস্তা বানাতে পারি। লকডাউনে শিঙ্গাড়া বানানো শিখেছি। যদিও খুব ভালো বলা যাবে না।  

আমার প্রিয় আসলে দেশি খাবার। ভোজনরসিক হিসেবে আমার সুনাম আছে। মাছ বিশেষ পছন্দ। তবে কোরবানি ঈদে কিছু স্পেশাল বিষয় আছে। প্রতিবার কোরবানি হয়ে গেলে গরুর কিছু মাংস আগেই রান্না ঘরে পাঠিয়ে দেওয়া হয়। আমি অপেক্ষা করি সেই মাংস আম্মু কখন রান্না করবে, আর আমি রুটি দিয়ে খাব। আমার কাছে মাংস রুটি খুবই লোভনীয় মনে হয়। বিশেষ করে কোরবানির গরুর মাংস দিয়ে রুটি। এটা সত্যিই স্পেশাল!

রাইজিংবিডি: করোনার এই সময় কীভাবে কাটছে?

ঐশী: বাসায় নিজেই ভয়েজ রেকর্ডিং করছি। প্রতিদিন অনলাইন ক্লাস হচ্ছে। কখনও আবার গানের লাইভ থাকে। সময়টা এসব করেই কেটে যাচ্ছে। আমার মনে হয় দিনটা ২৪ ঘণ্টা না হয়ে ৪৮ ঘণ্টা হলে ভালো হতো। অবসর বের করতে পারছি না৷

রাইজিংবিডি: ঘুম থেকে উঠেই যদি দেখেন করোনামুক্ত পৃথিবী। প্রথম কোথায় ঘুরতে যাবেন?
ঐশী: এমন হলে আমি সোজা কনসার্টে চলে যাব। খুব মিস করছি। আর সহ্য করতে পারছি না! আমি প্যাশন থেকে এখন প্রফেশনালি মিউজিক করি। কনসার্টসহ অন্যান্য মাধ্যম বন্ধ হয়ে যাওয়ায় আমার যথেষ্ট ক্ষতি হয়েছে। এই ক্ষতি দ্রুত কাটিয়ে উঠতে চাই। আর আপাতত ঘুমের টাইম পরিবর্তন করতে চাই। ঘুমের অনিয়মগুলো নিয়মে আনতে চাই।

ঢাকা/তারা

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়