ঢাকা     শুক্রবার   ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ ||  আশ্বিন ১০ ১৪২৭ ||  ০৭ সফর ১৪৪২

ফুলেল শ্রদ্ধায় শেষবিদায় আলাউদ্দিন আলীর

বিনোদন প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৬:৪৫, ১০ আগস্ট ২০২০   আপডেট: ১০:৩৯, ২৫ আগস্ট ২০২০
ফুলেল শ্রদ্ধায় শেষবিদায় আলাউদ্দিন আলীর

বাংলা চলচ্চিত্রের অসংখ্য জনপ্রিয় গানের স্রষ্টা আলাউদ্দিন আলী। অসংখ্য ভক্তকে কাঁদিয়ে গতকাল (৯ আগস্ট) না ফেরার দেশে চলে যান এই বরেণ্য গীতিকার ও সুরকার।

আজ (১০ আগস্ট) দুপুর ৩টার দিকে শেষ শ্রদ্ধা জানাতে বিএফডিসিতে নেওয়া হয় আলাউদ্দিন আলীর মরদেহ। এসময় দীর্ঘদিনের সহকর্মীরা তাকে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান।

শ্রদ্ধা জানাতে এসে অনেকেই আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন।  বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রযোজক-পরিবেশক সমিতি, চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতি, চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতি, ডিরেক্টরস গিল্ড, চলচ্চিত্র সহকারী পরিচালক সমিতিসহ বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে চলচ্চিত্র শিল্পী ও কলাকুশলীরা তাকে শেষ শ্রদ্ধা জানান।

শ্রদ্ধা জানানোর পর এফডিসিতে আলাউদ্দিন আলীর জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন—প্রযোজক খোরশেদ আলম খসরু, শামসুল আলম, মনিরুল ইসলাম, লিটন হাশমি, আলিম উল্যাহ খোকন, রাশিদুল আলম হলি, ইকবাল, পরিচালক মুশফিকুর রহমান গুলজার, সালাউদ্দিন লাভলু, শাহীন সুমন, অপূর্ব রানা, নির্মাতা এস এ হক অলিক, শাহ আলম কিরণ, সাদেক বাচ্চু, অভিনেতা ওমর সানী, শুভ্রত, জাহিদ হাসান, মারুফ, জয় চৌধুরী, সংগীতশিল্পী এস আই টুটুল, পার্থ বড়ুয়া প্রমুখ।

এর আগে খিলগাঁওয়ের তালতলা মসজিদে আলাউদ্দিন আলীর জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। তাকে শহীদ বুদ্ধিজীবী কবর স্থানে সমাহিত করা হবে বলে তার পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়।

গতকাল ৯ আগস্ট বিকাল ৫টা ৫০ মিনিটে মহাখালীর ইউনিভার্সেল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন আলাউদ্দিন আলী। ফুসফুসের প্রদাহ ও রক্তে সংক্রমণের সমস্যায় ভুগছিলেন আলাউদ্দিন আলী। শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় গত ৮ আগস্ট ভোর পৌনে পাঁচটায় মহাখালীর ইউনিভার্সেল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাকে। সেখানেই লাইফ সাপোর্টে ছিলেন এই শিল্পী।

সংগীতে প্রথম হাতেখড়ি ছোট চাচা সাদেক আলীর কাছে। পরে ১৯৬৮ সালে বাদ্যযন্ত্রশিল্পী হিসেবে চলচ্চিত্রজগতে পা রাখেন তিনি। শুরুটা শহীদ আলতাফ মাহমুদের সহযোগী হিসেবে, পরে প্রখ্যাত সুরকার আনোয়ার পারভেজের সঙ্গে দীর্ঘদিন কাজ করেন তিনি। আলাউদ্দিন আলী একসঙ্গে সুরকার, সংগীত পরিচালক, বেহালাবাদক ও গীতিকার। গান লিখে তিনি জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন। বাংলা গান, বিশেষ করে বাংলা চলচ্চিত্রের জন্য অসংখ্য শ্রোতাপ্রিয় গান তৈরি করেছেন তিনি।

ঢাকা/রাহাত সাইফুল/শান্ত

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়