Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     শনিবার   ২৪ জুলাই ২০২১ ||  শ্রাবণ ৯ ১৪২৮ ||  ১২ জিলহজ ১৪৪২

গরুর হাটে তাদের মজার অভিজ্ঞতা

আমিনুল ইসলাম শান্ত || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২০:৪২, ২২ জুলাই ২০২১   আপডেট: ২০:৪৪, ২২ জুলাই ২০২১
গরুর হাটে তাদের মজার অভিজ্ঞতা

ঈদুল আজহায় কোরবানির পশু কেনাকে কেন্দ্র করে মজার অনেক ঘটনা ঘটে। সাধারণ মানুষের মতো শোবিজ অঙ্গনের অনেক তারকা কোরবানির পশু কিনতে হাটে যান। হাটে গিয়ে বিভিন্ন অভিজ্ঞতার মুখোমুখি হন তারা। স্মৃতির পাতা উল্টিয়ে সেই গল্প শুনিয়েছেন তিন তারকা।

মাকসুদুল হক বাংলা ব্যান্ড সংগীতের পরিচিত নাম। ছোটবেলা গরু কিনতে গিয়ে তিনি স্মরণীয় এক ঘটনার মুখোমুখি হন। গরু কিনে লেজ ধরে বাড়ি ফিরছিলেন। হঠাৎ হ্যাচকা টানে কাদাপানিতে পড়ে যান তিনি।

এ ঘটনায় খুব লজ্জা পেয়েছিলেন উল্লেখ করে মাকসুদুল হক বলেন, ‘সেদিন প্রচণ্ড বৃষ্টি হচ্ছিল। বৃষ্টিতে ভিজেই কয়েক ঘণ্টা ধরে গরু খুঁজলাম। অনেক ঘুরে সন্ধ্যার আগে একটি গরু পছন্দ হলো। দরদাম করে কিনেও ফেললাম। ফেরার সময় হঠাৎ এক কাণ্ড! গরু ছুটে যাওয়ায় কাদার মধ্যে উপুড় হয়ে পড়লাম। ওঠার চেষ্টা করেও কিছুতেই উঠতে পারছিলাম না। সবাই আমার দিকে তাকিয়ে হাসছিল।  কি যে লজ্জার ব্যাপার- এখনও স্পষ্ট মনে আছে।’

আব্দুন নূর সজলের ক্ষেত্রে অবশ্য এমন লজ্জার কাণ্ড ঘটেনি।  তিনি শুটিংয়ের ফাঁকে গরু কিনেছেন উল্লেখ করে বলেন, ‘এমনও হয়েছে, ঈদের নাটকের শুটিং নিয়ে তুমুল ব্যস্ত। ওদিকে গরু কেনা হয়নি। বাসার সবার এ নিয়ে মন খারাপ! কি আর করা- শুটিংয়ের মাঝে একটু গ্যাপ পেলেই সোজা চলে যেতাম গাবতলী হাটে। গরু কিনে বাসায় পাঠিয়ে ফিরে আসতাম শুটিং স্পটে।’ কোরবানির জন্য নিজে হাটে গিয়ে গরু কেনার মধ‌্যে বাড়তি আনন্দ আছে বলে জানান এই অভিনেতা। 

হৃদয় খান সজলের সঙ্গে একমত হয়ে বলেন, ‘আমিও সুযোগ পেলেই হাটে গিয়ে গরু কেনার চেষ্টা করি। ছোটবেলায় প্রতি বছর বাবার সঙ্গে গরুর হাটে যেতাম। ওই সময়ে ব্যাপারটা নেশার মতো ছিল। বিশাল সাইজের গরুগুলোকে দেখে অবাক হতাম। ভাবতাম, এত বড় গরু হয় নাকি!’

সব গরু তো আর শান্তশিষ্ট হয় না। বাড়ি আসার পথে মাঝেমধ্যে হাত থেকে দড়ি ছুটে গরু দে দৌড়…।  এমন অভিজ্ঞতা হৃদয় খানেরও হয়েছে। তবে এই গায়ক মনে করেন, কোরবানির ঈদে এই বিষয়টিই সবচেয়ে আনন্দের।

ঢাকা/তারা

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়