ঢাকা     রোববার   ২২ মে ২০২২ ||  জ্যৈষ্ঠ ৮ ১৪২৯ ||  ২০ শাওয়াল ১৪৪৩

পণ্ডিত বিরজু মহারাজ আর নেই

বিনোদন ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১২:২৫, ১৭ জানুয়ারি ২০২২   আপডেট: ১২:২৬, ১৭ জানুয়ারি ২০২২
পণ্ডিত বিরজু মহারাজ আর নেই

কিংবদন্তি নৃত্যশিল্পী পণ্ডিত বিরজু মহারাজ আর নেই। রোববার (১৬ জানুয়ারি) দিবাগত রাতে দিল্লিতে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন কত্থক নাচের এই সাধক। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৩ বছর। ভারতীয় সংবাদ সংস্থা এএনআই এ খবর প্রকাশ করেছে।

সংবাদমাধ্যমটিকে বিরজু মহারাজের এক আত্মীয় জানিয়েছেন, হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন বিরজু মহারাজ। গতকাল রাতে দিল্লির বাড়িতে নাতির সঙ্গে খেলছিলেন তিনি, তখন আচমকাই তার শরীর খারাপ করে। দ্রুত দিল্লির সাকেত হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে তাকে মৃত ঘোষণা করেন ডাক্তার। বেশ কিছুদিন ধরেই কিডনির সমস্যায়ও ভুগছিলেন পণ্ডিত বিরজু মহারাজ।

পণ্ডিত বিরজু মহারাজ একজন দক্ষ গল্পকারও ছিলেন। তার অভিব্যক্তি থেকে চোখ ফেরানো কঠিন ছিল। জীবনের ঘটনার সঙ্গে তিনি মিশিয়ে দিতেন নাচ। এইভাবেই কত্থক নৃত্যে এক অন্য মাত্রা যোগ করেছিলেন তিনি; সেখানেই অনন্য বিরজু মহারাজ। 

লখনৌর এক কত্থক নৃত্যশিল্পী পরিবারে ১৯৩৭ সালের ৪ ফেব্রুয়ারি জন্মগ্রহণ করেন বিরজু। ছোটবেলা থেকেই নাচ-গানের পরিবেশে বেড়ে ওঠা তার। বিরজু মহারাজের গুরু ছিলেন তার বাবা অচ্ছন মহারাজ। খুব ছোট বয়সে বাবার কাছে কত্থক নাচের তালিম শুরু তার। পাশাপাশি কাকা শম্ভু মহারাজ, লাচ্চু মহারাজ বরাবর অনুপ্রাণিত করেন বিরজু মহারাজকে। 

শিশুশিল্পী হিসেবে বাবার সঙ্গে মঞ্চ ভাগ করে নেন বিরজু মহারাজ। কৈশোরে পা দেওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই ‘গুরু’ তকমা জুড়ে গিয়েছিল তার নামের আগে। রামপুরের নবাবের দরবারে নৃত্য পরিবেশন করতেন বিরজু মহারাজ। মাত্র ২৮ বছর বয়সে সংগীত নাটক অ্যাকাডেমি পুরস্কার লাভ করেন তিনি। নাচই ছিল তার প্রথম ভালোবাসা; তবে শাস্ত্রীয় সংগীতের উপরও চমত্কার দখল ছিল তার।

১৯৮৩ সালে ভারত সরকারে পক্ষ থেকে পদ্মবিভূষণ পান বিরজু মহারাজ। পেয়েছেন কালীদাস সম্মাননাও। এই কত্থক গুরু বেশ কিছু সিনেমায় কোরিওগ্রাফি করেছেন। কাজ করেছেন সত্যজিৎ রায়ের ‘শতরঞ্জ কি খিলাড়ি’ সিনেমায়। তা ছাড়াও ‘দেবদাস’, ‘বাজিরাও মাস্তানি’-এর মতো সিনেমায় তার কোরিওগ্রাফি মুগ্ধ করেছে দর্শকদের। ‘বিশ্বরূপম’ সিনেমায় কোরিওগ্রাফির জন্য জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেন বিরজু মহারাজ।

ঢাকা/শান্ত

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়