ঢাকা     সোমবার   ২৮ নভেম্বর ২০২২ ||  অগ্রহায়ণ ১৪ ১৪২৯ ||  ০৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪১৪

‘আপনার অদৃশ্য স্নেহ সবসময় সামনে এগিয়ে যেতে সাহায্য করছে’

প্রকাশিত: ১৬:০৪, ২১ আগস্ট ২০২২   আপডেট: ১৬:০৯, ২১ আগস্ট ২০২২
‘আপনার অদৃশ্য স্নেহ সবসময় সামনে এগিয়ে যেতে সাহায্য করছে’

বাংলা সিনেমার কিংবদন্তি নায়করাজ রাজ্জাক। ঢাকাই চলচ্চিত্রের পাশাপাশি কলকাতার চলচ্চিত্রেও বিশেষ অবদান রেখেছেন। ২০১৭ সালের ২১ আগস্ট দুই বাংলার ভক্তদের কাঁদিয়ে না ফেরার দেশে চলে যান তিনি। নায়করাজ রাজ্জাকের প্রয়াণের পাঁচ বছর উপলক্ষে মিলাদ ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করেছে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক ও শিল্পী সমিতি। এছাড়া তাকে স্মরণ করে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করছেন তার ভক্ত-অনুরাগীসহ চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্টরা।

বর্তমান সময়ের সুপারস্টার শাকিব খান নন্দিত এই নায়কের সঙ্গে বেশ কিছু সিনেমায় অভিনয় করেছেন। তার অভিভাবকের মতো ছিলেন রাজ্জাক। তাকে স্মরণ করে শাকিব খান বলেন, ‘চোখের সামনে না থাকলেও আপনার অদৃশ্য স্নেহ সবসময়ই আমাকে সামনে এগিয়ে যেতে সাহায্য করছে! যতদিন বাংলাদেশ থাকবে, বাংলাদেশের সিনেমা থাকবে; ততদিন নায়করাজ রাজ্জাক আমাদের সকলের হৃদয়ে অহংকার হয়ে থাকবেন। আপনার আত্মার শান্তি কামনা করি। শান্তিতে থাকুন আমাদের নায়করাজ।’

নায়ক হিসেবে নায়করাজ প্রথম অভিনয় করেন জহির রায়হান পরিচালিত ‘বেহুলা’ সিনেমায়। এতে তার বিপরীতে ছিলেন সুচন্দা। তার দুই ছেলে বাপ্পারাজ ও সম্রাটও চলচ্চিত্রের সঙ্গে ওতপ্রোতভাবে জড়িত। নায়করাজ রাজ্জাক প্রথম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করেন ‘কি যে করি’ সিনেমায় অভিনয় করে। এরপর আরো চারবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেন তিনি।

২০১১ সালের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে তিনি আজীবন সম্মাননা অর্জন করেন। এছাড়া বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সাংবাদিক সমিতি (বাচসাস) পুরস্কার পেয়েছেন অসংখ্যবার। নায়করাজ রাজ্জাক সর্বশেষ অভিনয় করেন তারই বড় ছেলে নায়ক বাপ্পারাজের নির্দেশনায় ‘কার্তুজ’ চলচ্চিত্রে।

ঢাকা/রাহাত সাইফুল/শান্ত

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়