Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     সোমবার   ১৪ জুন ২০২১ ||  জ্যৈষ্ঠ ৩১ ১৪২৮ ||  ০১ জিলক্বদ ১৪৪২

রমজানেই লাখ টাকার খাবার বিক্রি দিলরুবার

প্রকাশিত: ২০:০৪, ১২ মে ২০২১   আপডেট: ২১:০৮, ১২ মে ২০২১
রমজানেই লাখ টাকার খাবার বিক্রি দিলরুবার

দিলরুবা আক্তার শোভা। জন্ম ও বেড়ে ওঠা ফেনীতে। সরকারি ইডেন মহিলা কলেজ থেকে সমাজ বিজ্ঞানে অনার্স ও মাস্টার্স শেষ করেন তিনি। বর্তমানে স্বামী সংসার নিয়ে ঢাকার কাঁঠাল-বাগানেই বসবাস তার।

২০২০ সালের মার্চ মাস থেকে দেশে করোনার প্রকোপ দেখা দিলে চাকরি নিয়ে সমস্যায় পড়েন অনেকেই। দিলরুবার পরিবারেও ঘটেছিল এমন দুঃখজনক ঘটনা। করোনাকালীনে পরিবারকে সাপোর্ট দিতেই সংসারের পাশাপাশি অনলাইনে খাবারের ব্যবসা শুরু করেন তিনি । ফেসবুক পেজ ‘শোভা’স ফুড এক্সপ্রেস’ থেকে বাসায় তৈরি খাবার নিয়েই স্বাবলম্বী হয়েছেন দিলরুবা। রান্না করা তরকারি, পিঠা, ফ্রোজেন ফুড ও ডেজার্ট আইটেমের মতো পণ্যই প্রাধান্য পেয়েছে তার পেজে। সবগুলি খাবার মায়ের সহযোগিতায় নিজেই রান্না করেন তিনি। গত রমজানের তুলনায় এই রমজানে তার তৈরি খাবার ও ইফতারি আইটেমগুলি অনলাইনে ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছে।

ই-কমার্সে রমজানে বেচাবিক্রি নিয়ে দিলরুবা আক্তার শোভা বলেন, “আলহামদুলিল্লাহ এইবারের রোজায় ২৪-এপ্রিল -২০২১ সালে আমার উদ্যোক্তা জীবনের এক বছর হয়েছে। এই এক বছরের প্রাপ্তিগুলো অনেক বেশি।এইবারের রোজাতে অনলাইনে খাবার ও ইফতারের চাহিদা ছিল প্রচুর। দেশের বাইরে কানাডা থেকেও ইফতারের খাবারের অর্ডার এসেছে আমার পেজে। এছাড়াও রাজশাহী ও বরিশাল থেকে ঢাকায় বসবাসরত আত্মীয় স্বজন ভাইবোনদের জন্যও অর্ডার করেছেন অনেকেই। এইবারের রোজায় মসজিদে, হাসপাতালে ও করোনা রোগীদের বাসায় একটানা ইফতার ও সেহেরি ডেলিভারি দিয়েছি ৪-৫ দিন ধরে।

অসুস্থ মানুষদের পাশে থাকতে পেরে খুব ভালো লেগেছে। তারাও অনেক খুশি হয়েছিলেন এমন বিপদে আমাকে পাশে পেয়ে। মালয়েশিয়া থেকেও এক ভাইয়া অর্ডার করেন। তার স্ত্রী ঢাকার হসপিটালের কিডনীর রোগী ছিলেন। তাদের জন্যও সল্পমূল্যে খাবার দিয়েছি। কেনো না ঢাকায় আত্মীয় স্বজন বলতে কেউ ছিল না তাদের। আলহামদুলিল্লাহ তারাও সন্তুষ্ট আমার স্বাস্থ্যসম্মত হোমমেড ফুড পেয়ে। প্রতিদিন ৩-৪ টা অর্ডার থাকছেই। ঈদেও অনেকগুলো খাবারের অর্ডার পেয়েছি। শেষ রমজানের দিকে অর্ডারগুলো আরও বেড়ে গিয়েছে”।

তিনি আরও বলেন, “সকাল থেকে রাত ১২ টা পর্যন্ত একটানা রান্নাঘরে থাকতে হচ্ছে আমাকে।এইবার রমজানে ইফতারের জন্য ফ্রোজেন ও আমার সিগনেচার আইটেম ফেনীর খোলাজা পিঠা, গরুর ভুনা মাংস ও ঝুরা মাংসের চাহিদা ছিল বেশি। সবাই খাবারগুলি পছন্দ করছেন ও খেয়ে পুনরায় অর্ডার করেছেন”। 

উল্লেখ্য, শুধু রমজান মাস ও আসন্ন ঈদকে কেন্দ্র করে অনলাইনেই ১ লাখ টাকার অধিক খাবার বিক্রি করেছেন দিলরুবা । ব্যবসা নির্ভর ফেসবুক গ্রুপ উই (উইমেন অ্যান্ড ই-কমার্স ফোরাম) থেকে এসেছে তার উদ্যোগের অসাধারণ এই সাফল্য । 

ঢাকা/সিনথিয়া

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়