Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     রোববার   ২৫ জুলাই ২০২১ ||  শ্রাবণ ১০ ১৪২৮ ||  ১৩ জিলহজ ১৪৪২

জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সঙ্গে ই-ক্যাবের যৌথসভা

উদ্যোক্তা/ ই-কমার্স ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৮:৪০, ২১ জুন ২০২১  
জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সঙ্গে ই-ক্যাবের যৌথসভা

জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সভাকক্ষে ই-ক্যাবের (ই-কমার্স এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ ) সঙ্গে এক যৌথসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

রোববার ( ২০ জুন) বেলা ১১টায় সভাটি অনুষ্ঠিত হয় । 

জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক জনাব বাবলু কুমার সাহা’র সভাপতিত্বে ই-কমার্স সেক্টরের ভোক্তাদের অধিকার,বিভিন্ন সমস্যা ও সমাধানের বিভিন্ন দিক নিয়ে আলোচনা করা হয়। সভায় ই-ক্যাবের ৭ সদস্যের প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেন ই-ক্যাবের অর্থ-সম্পাদক জনাব আব্দুল হক অনু। 

এছাড়াও সভায় উপস্থিত ছিলেন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের পরিচালক জনাব শামীম আল মামুন, উপপরিচালক জনাব হাসান শাহরিয়ার,আতিয়া সুলতানা, মাসুম আরেফিন,আফরোজা রহমান। সহকারী পরিচালক শাহনাজ সুলতানা,রজবী নাহার রজনী,প্রনব কুমার প্রামানিক,তাহমিনা বেগম,ইন্দ্রানী রায়সহ জান্নাতুল ফেরদাউস। আরও ছিলেন ই-ক্যাবের ডিরেক্টর জিয়া আশরাফ,  জেনারেল ম্যানেজার জাহাঙ্গীর আলম শোভন , কমপ্লেইন অ্যান্ড লিগ্যাল স্ট্যান্ডিং কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান এডভোকেট হাসান শাহরিয়ার,মোহাম্মদ আব্দুর রহমান শাওন,শেখ নূরুল হুদা ও মোহাম্মদ আফসার হোসেন তিতাস।

জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক জনাব বাবলু কুমার সাহা বলেন,’আমরা ভোক্তার অধিকারকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে কাজ করতে চাই। কিন্তু তার মানে এই নয় যে, উদ্যোক্তা বা ব্যবসায়ীর বিপক্ষে আমরা কাজ করছি। আমরা চাই দেশে নতুন উদ্যোক্তা তৈরী হোক এবং দেশ অর্থনৈতিক ভাবে স্বাবলম্বি হোক। কিন্তু কোনো অপেশাদার ব্যক্তিকে ক্রেতার অধিকার লুণ্ঠন করার সুযোগ দেয়া হবে না। তিনি এ ব্যাপারে ই-ক্যাবের সহযোগিতা কামনা করেন’।

ই-ক্যাবের অর্থ সম্পাদক জনাব মোহাম্মদ আব্দুল হক অনু বলেন,’আমরা চাই ই-কমার্স সেবার মান উন্নয়ন হোক। ক্রেতা ও ভোক্তার সম্পর্ক উন্নয়নে  মাধ্যমে এই খাতে জনসাধারণের আস্থা অর্জন করতে হবে। সেজন্য একদিকে যেমন ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের দক্ষতা বৃদ্ধি করা দরকার অন্যদিকে জনসাধারণের সচেতনতা বাড়ানো প্রয়োজন। তিনি ই-কমার্স খাতে সমস্যা কমিয়ে আনতে ই-ক্যাবের পক্ষ থেকে ৩ দফা প্রস্তাবনা পেশ করেন’।

জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের পরিচালক জনাব শামীম আল মামুন বলেন,’ব্যবসার ক্ষেত্রে স্থায়ী বুনিয়াদ গড়তে হলে ক্রেতার আস্থাকে গুরুত্ব দিতে হবে। এর কোনো বিকল্প নেই। ই-কমার্স সেক্টরে কি ধরনের অভিযোগ আসে, শীর্ষ কোম্পানীসমূহের অভিযোগ এবং তা সমাধানের ক্ষেত্রে তাদের কেমন সাড়া এই বিষয়ে একটি প্রতিবেদন তুলে ধরেন’।

ই-ক্যাবের ডিরেক্টর জিয়া আশরাফ বলেন,  ‘ই-কমার্স খাতের উদ্যোক্তারা এখনো নতুন। অনেক সময় অপ্রত্যাশিত পরিস্থিতির কারণে কিছু সমস্যা তৈরী হয়। যা করোনাকালীনে  আমাদের হয়েছে। কিন্তু আমরা বর্তমানে দক্ষতা এবং সক্ষমতা অর্জন করছি। ফলে সমস্যা কমে এসেছে  এবং  সমস্যাগুলো আমরা দ্রুত সমাধান করতে পারি’।

ই-ক্যাবের জেনারেল ম্যানেজার জাহাঙ্গীর আলম শোভন গ্রাহকের সমস্যা সমাধানে ই-ক্যাবের গৃহিত বিভিন্ন পদক্ষেপসমূহ তুলে ধরেন।

ঢাকা/সিনথিয়া

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়