Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     বৃহস্পতিবার   ০৯ ডিসেম্বর ২০২১ ||  অগ্রহায়ণ ২৫ ১৪২৮ ||  ০২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৩

ই-কমার্স ব্যবসায় সৃজনশীল কনটেন্টের গুরুত্ব 

সালাউদ্দিন আহমেদ || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১২:০৭, ৫ অক্টোবর ২০২১   আপডেট: ১২:৫৯, ৫ অক্টোবর ২০২১
ই-কমার্স ব্যবসায় সৃজনশীল কনটেন্টের গুরুত্ব 

ই-কমার্স ব্যবসার কথা চিন্তা করলেই কনটেন্টের কথা আগে চলে আসে। প্রতিটি বিপণনকারী তাদের কাস্টমারকে পণ্য সম্পর্কে ধারণা দিতে বিভিন্ন মাধ্যম ব্যবহার করে থাকে। বিশেষ করে ওয়েবসাইটে চমৎকারভাবে অভিজ্ঞতা প্রদানের ভিত্তি তৈরি করে দিতে পারে কনটেন্টের মাধ্যমে। কিন্তু ই-কমার্সে কনটেন্টের গুরুত্ব খুব কমই উঠে আসে। 

যে কোন ব্যবসার জন্য কাজ করে এমন নিখুঁত বিষয়ে কৌশল খুঁজে পেতে কিছুটা সময় লাগতেই পারে। গ্রাহকদের কাছে ই-কমার্স সাইটে কেনাকাটার জন্য কনটেন্ট খুবই গুরুত্বপূর্ণ সহায়ক হিসেবে কাজ করে। আসুন বিভিন্ন উপায়ে জেনে নেওয়া যাক কিভাবে একজন খুচরা বিক্রেতা তার পণ্যকে ক্রেতার কাছে বিশ্বাসযোগ্য করে তুলতে পারে এবং শেষ পর্যন্ত ক্রেতাদের কেনাকাটার দিকে আগ্রহ বাড়াতে পারে? 

কিভাবে বিভিন্ন ধরনের কন্টেন্ট ব্যবহার করা যায়?

ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের কাছে কনটেন্ট মূলত নির্ভর করে তারা কোন ধরনের পণ্য নিয়ে কাজ করছেন এবং কাস্টমারকে কোন ধরনের পণ্যের সেবা দিচ্ছেন। মূল বিষয় হলো- তথ্য প্রদানের সৃজনশীল উপায় এবং একটি পণ্যের সুবিধা সম্পর্কে চিন্তা করা। 

১. ভিডিও

একজন ই-কমার্স উদ্যোক্তা যে পণ্য নিয়ে ব্যবসা করেন সেই পণ্যের ভিডিও কনটেন্ট বেশ গুরুত্বপূর্ণ। গ্রাহকরা কিভাবে আপনার পণ্য ব্যবহার করবে, এমন টিউটোরিয়াল ভিডিও কনটেন্ট সাইটে আপলোড করা যেতে পারে। এক্ষেত্রে ভিডিও কনটেন্টের গ্রহণযোগ্যতা বেশ জনপ্রিয়। 

২. সোশ্যাল মিডিয়া

অনলাইন ব্যবসার পণ্যের কনটেন্ট প্রচার করার জন্য সোশ্যাল মিডিয়ার ভূমিকা অপরিহার্য। এতে করে  গ্রাহকরা তাদের বাসায় বসে বিভিন্ন অ্যাপের মাধ্যমে পণ্যের নান্দনিক ছবি দেখতে পারেন। সিদ্ধান্তহীন গ্রাহকরা তাদের নিজের পণ্যটি আরও ভালভাবে দেখতে সক্ষম হন। সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং খুব সহজেই গ্রাহকদের আকৃষ্ট করতে পারে। কারণ, এতে ছবিগুলো সরাসরি বন্ধু এবং সহকর্মীদের সঙ্গে শেয়ার করা যায়। 

৩. প্রোডাক্ট রিভিউ

যে কোনও ই-কমার্স স্টোরের জন্য পণ্যের রিভিউগুলো তাদের অনলাইন কনটেন্টের একটি অপরিহার্য অংশ। গ্রাহকদের কাছ থেকে এই রিভিউ নিজের ওয়েবসাইটকে আরও সমৃদ্ধশালী করে। যেহেতু রিভিউ সম্পর্কে কথা হচ্ছে, তাই নেতিবাচক রিভিউগুলো অনিবার্য। এছাড়াও একটি দক্ষ গ্রাহক সেবা দলের সহযোগিতায় গ্রাহকদের সমস্যা সমাধানে দ্রুত ব্যবস্থা নিতে হবে।   

৪. প্রশ্নোত্তর পর্ব 

যে কোন উদ্যোগে পণ্যের বিবরণের মধ্যে একটি প্রশ্নোত্তর বিভাগ তথ্যের একটি গুরুত্বপূর্ণ উৎস হিসাবে কাজ করতে পারে। এরফলে গ্রাহকদের পছন্দের পণ্য সম্পর্কে সাধারণ প্রশ্ন এবং প্রতিক্রিয়া মূল্যায়ন করা সহজ হয়। এতে ক্রেতারাও কেনাকাটায় আরও বেশি আগ্রহী হন। 

বিভিন্ন প্রয়োজনের জন্য ভিন্ন বিষয়বস্তুর কনটেন্ট তৈরির মূল উদ্দেশ্য হলো নিজের ব্র্যান্ড সম্পর্কে গ্রাহকদের মধ্যে আস্থার অনুভূতি তৈরি করা। সুপরিকল্পিত বিষয়বস্তু এবং উল্লেখযোগ্য সংখ্যক গ্রাহকই বিক্রয় বৃদ্ধিতে সহায়ক হিসেবে কাজ করে। গ্রাহকরা সাধারণত কোনো ধরনের কেনাকাটা করার আগে কয়েকবার একটি ওয়েবসাইটের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পছন্দ করে। আর এই কারণেই কনটেন্ট ই-কমার্সে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।   
যে কোন পণ্যের তথ্যবহুল কন্টেন্ট গ্রাহকদের কেনাকাটায় আগ্রহী করে তোলে।  ভিডিও, সোশ্যাল মিডিয়া, প্রোডাক্ট রিভিউ ইত্যাদির মাধ্যমে ব্যবসার বিষয়বস্তু নিয়ে নিজের পেজ, গ্রুপ বা সাইট যতো বেশি উন্নত থাকবে ব্যবসার মান ততো ভালো হবে।  এভাবেই ই-কমার্স ব্যবসায় সৃজনশীল কন্টেন্টের মাধ্যমে অনলাইন স্টোরের আকর্ষণ বাড়ানো সম্ভব।  

লেখক : স্বত্ত্বাধিকারী, বিডিম্যানগ্রোভ ডটকম

ঢাকা/সিনথিয়া/টিপু 

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়