ঢাকা, রবিবার, ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

পরীক্ষা-ভীতি কমাতে ‘কবর থেরাপি’

শাহিদুল ইসলাম : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-১১-১৩ ৮:১৫:৫২ এএম     ||     আপডেট: ২০১৯-১১-১৩ ১২:৩০:৫২ পিএম

কথায় আছে— ছাত্রজীবন মধুর জীবন, যদি না থাকত পরীক্ষা। পরীক্ষা-ভীতি নেই এমন ছাত্রছাত্রী খুঁজে পাওয়া মুশকিল। ইদানীং এই ভয় জয় করতে শিক্ষার্থীরা মেডিটেশন বা ধ্যান করে মনঃসংযোগ বাড়ানোর চেষ্টা করে কিংবা মনোবিদের শরণাপন্ন হয়। আবার কেউ মসজিদ-মন্দিরে মানতের মতো ধর্মীয় পন্থাও অবলম্বন করে।

তবে নেদারল্যান্ডের নিজমেগেন শহরের রডবাউন্ড বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা-ভীতি দূর করতে এক অভিনব থেরাপির ব্যবস্থা করেছে। কর্তৃপক্ষ থেরাপির নাম দিয়েছে ‘গ্রেভ থেরাপি’। এই থেরাপি সেশনে ছাত্রছাত্রীরা একটি খোলা কবরে শুয়ে থাকবে। এতে পরীক্ষা নিয়ে তাদের ভীতি ও মানসিক চাপ কমে যাবে। কর্তৃপক্ষ কবরের নাম দিয়েছে পিউরিফিকেশন গ্রেভ বা ‘শুদ্ধি কবর’।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এক ছাত্রের শেয়ার করা ভিডিও থেকে দেখা যায়, থেরাপির জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ে গির্জার পেছনে একটি কবর খোঁড়া হয়েছে। কবরের মধ্যে একটি ইয়োগা ম্যাট বিছানো। ম্যাটে লেখা রয়েছে ‘স্টে উইয়ার্ড’। থেরাপির ব্যাপ্তি হবে আধাঘণ্টা থেকে তিন ঘণ্টা।

কিন্তু মানসিক চাপ কমানোর জন্য থেরাপির এত রকম পন্থা থাকতে এই অদ্ভুত পন্থা কেন বেছে নেয়া হলো? এই প্রশ্নের উত্তরে সেশন প্রকল্পের পরিচালক জন হ্যাকিং বলেন, কবরটি খোঁড়া হয়েছে গির্জার নবীন যাজকদের এই শিক্ষা দেয়ার জন্য যে- জীবন ক্ষণস্থায়ী। ফলে তরুণ শিক্ষার্থীরা এই কবরে শুয়ে মৃত্যুর মতো একটি অনিবার্য বিষয় নিয়ে ভাবতে ভাবতে পরীক্ষার মতো তুচ্ছ বিষয়ে মানসিক চাপ কমাতে সক্ষম হবে।

থেরাপি যতই অদ্ভুত হোক না কেন ইতোমধ্যে তা জনপ্রিয়তা পেয়েছে। ক্যাম্পাসজুড়ে পোস্টার লাগানো হয়েছে। অনেক ছাত্র থেরাপি নিতে গিয়ে লাইনে দাঁড়িয়ে থেকে ফিরেও এসেছে। শেন ম্যাকলগলিন তেমনই এক ছাত্র। শেন ও তার বন্ধু এক সপ্তাহ আগে থেরাপি নিতে গিয়ে দেখে তাদের আগে অপেক্ষমান তালিকায় আরো অনেকেই রয়েছে। ফলে তাদের ফিরে আসতে হয়। তবে চলতি সপ্তাহে শেন আবার যাওয়ার ব্যাপারে মনস্থির করেছে।

 

ঢাকা/মারুফ/তারা

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন