ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৩ আষাঢ় ১৪২৭, ০৭ জুলাই ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

পৃথিবীর বুকে ‘স্বর্গের দুয়ার’

শাহিদুল ইসলাম : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০৬-১২ ১২:২০:৩৮ পিএম     ||     আপডেট: ২০২০-০৬-১২ ১:৩৭:১২ পিএম
ছবি ইন্টারনেট থেকে সংগৃহীত

স্বর্গ-নরক পরলোকের বিষয়। ইহ জীবনে তার সন্ধান পাওয়ার কোনো সম্ভবনা নেই। তবে মানব মন কল্পনা বিলাসী। কল্পনাতে সে মর্ত্যের নানা জায়গাকে স্বর্গ কিংবা নরকের সঙ্গে তুলনা করে। ‘গেট অব হ্যাভেন’ বা ‘স্বর্গের দুয়ার’ এমন একটি স্থান।

এটি চীনের হুনান প্রদেশের তিয়েনমান পর্বতে অবস্থিত। ভূপৃষ্ঠ থেকে পাঁচ হাজার ফুট উপরে। অনিন্দ্যসুন্দর এই প্রাকৃতিক কাঠামোটি উচ্চতায় ৪৩০ ফুট এবং প্রস্থে ১৯০ ফুট। এটি পৃথিবীর সবচেয়ে উঁচুতে অবস্থিত প্রাকৃতিকভাবে সৃষ্ট দরজা। এখানে দাঁড়িয়ে প্রাণভরে তিয়েনমান পর্বতের পাদদেশের সবুজ সৌন্দর্য উপভোগ করা যায়। তাই এটিকে স্বর্গের দুয়ারের সঙ্গে তুলনা করা হয়।

এই দরজাটি হুনান প্রদেশের বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের কাছে পবিত্র জায়গা। এখানে একটি প্রাচীন বৌদ্ধ মন্দিরও আছে। ধারণা করা হয়, বৌদ্ধ মন্দিরটি অন্তত এক হাজার বছর পুরোনো। বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের ধারণা দরজাটি ঐশ্বরিক সৃষ্টি। তবে ভূতত্ত্ববিদেরা এই বিষয়ে ভিন্ন মত দেন। তাদের ধারণা, খিষ্ট্রপূর্ব ২৭০ অব্দে বিশাল পাহাড় ধসের ফলে পাহাড়ের গায়ে দরজা আকৃতির এই কাঠামোটি সৃষ্টি হয়েছে।

প্রতিদিন অসংখ্য পর্যটক ও পুণ্যার্থী এখানে আসেন। মূল দরজায় পৌঁছানোর জন্য সিঁড়ি আছে ৯৯৯টি। এই সিঁড়ি পেরিয়ে দরজার কাছে পৌঁছানো যায়। ক্যাবল কারে করেও এখানে পৌঁছানোর ব্যবস্থা আছে। তবে ৯ চীনা সংখ্যাতত্বে ‘সৌভাগ্যের সংখ্যা’ হওয়ায় চীনা ও বিদেশি পর্যটকেরা এখানে সিঁড়ি বেয়ে হেঁটে যেতে বেশি পছন্দ করেন।

 

ঢাকা/মারুফ