ঢাকা     বুধবার   ১২ আগস্ট ২০২০ ||  শ্রাবণ ২৮ ১৪২৭ ||  ২১ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

ভাইরাসের ভয়ে ওয়াশিং মেশিনে টাকা ধুয়ে বিরাট বিপদ

সাতসতের ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ০৯:১৭, ২ আগস্ট ২০২০  
ভাইরাসের ভয়ে ওয়াশিং মেশিনে টাকা ধুয়ে বিরাট বিপদ

মাইক্রোওভেনে পুড়ে যাওয়া ওনের (টাকা) ছবি

কাপড় ধোয়া ভালো। কিছু সময় পরপর হাত ধোয়া আরো ভালো। করোনার এই কালে বাড়তি সতর্কতা হিসেবে অনেকে টাকাও ধুয়ে রাখছেন। ওয়াশিং মেশিনে টাকা ধুয়ে বিপদে পড়েছেন দক্ষিণ কোরিয়ার এক ব্যক্তি। 

হাফপোস্টের প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, রাজধানী সিউলের পার্শ্ববর্তী অ্যানসান শহরে বসবাসকারী ওই ব্যক্তি করোনা আতঙ্কে ৫০ হাজার ওনের (কোরিয়ান মুদ্রা) অনেকগুলো নোট ওয়াশিং মেশিনে ধুতে দেন। এতে বেশিরভাগ নোট মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। ব্যাংক যেহেতু শর্তসাপেক্ষে ছেঁড়া, ফাটা নোট বদলে নতুন নোট দেয়, তাই নতুন নোট পাওয়া যাবে কিনা জানতে ওই ব্যক্তি ব্যাংক অব কোরিয়ায় যান।

ব্যাংক অব কোরিয়ার বিবৃতি থেকে জানা গেছে, বিকৃত ও নষ্ট হয়ে যাওয়া নোট বিনিময়ের ক্ষেত্রে ব্যাংকের বিধি মোতাবেক ওই ব্যক্তি ২৩ মিলিয়ন ওন (১৯ হাজার ৩২০ ডলার) নিতে পেরেছিলেন।

ব্যাংকটির কর্মকর্তা সিও জিউন জানান, ওই ব্যক্তিকে ৫০ হাজার ওনের ৫০৭টি নোট অর্ধেক মূল্যের বিনিময়ে দেওয়া হয়েছে। বাকি নোট পুরোপুরি নষ্ট হয়ে যাওয়ায় ব্যাংকের পক্ষে গ্রহণ করা সম্ভব হয়নি। তবে ঠিক কি পরিমাণ নোট ওয়াশিং মেশিনে তিনি ধুতে দিয়েছিলেন সেই অঙ্ক তারা প্রকাশ করেনি। কোরিয়ান ব্যাংকের নিয়ম অনুযায়ী, নোট সামান্য ক্ষতিগ্রস্ত হলে বদলে দেওয়া হয়। কিন্তু ক্ষতির পরিমাণ বেশি হলে অর্ধেক মূল্যে বদলে দেওয়া হয় কিংবা পুরোপুরি বাতিল করা হয়। ওই ব্যক্তির নাম ইওম বলে জানা গেছে। ব্যাংক কর্মকর্তারা গ্রাহকের গোপনীয়তা আইন উল্লেখ করে আর কোনো তথ্য প্রকাশ করেনি।

দক্ষিণ কোরিয়ার কেন্দ্রীয় ব্যাংকটির তথ্যমতে, এর আগে আরেক ব্যক্তি করোনাভাইরাস নিয়ে উদ্বিগ্ন হয়ে নোট থেকে ভাইরাস দূর করার জন্য মাইক্রোওভেনে নোট গরম করতে দিয়েছিলেন। ফল যা হবার তাই হয়েছে! নোট পুড়ে যাওয়ায় আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়েছিলেন তিনি। 

এসব ঘটনার পর দক্ষিণ কোরিয়ার কেন্দ্রীয় ব্যাংক গ্রাহকদের সতর্ক করে বলেছে, মাইক্রোওভেন বা ওয়াশিং মেশিনের মাধ্যমে এভাবে মুদ্রা জীবাণুমুক্ত করা যায় না। এক্ষেত্রে সরকারি  স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

ঢাকা/ফিরোজ/তারা

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়