Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     মঙ্গলবার   ১৯ অক্টোবর ২০২১ ||  কার্তিক ৩ ১৪২৮ ||  ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

১৬ ডিসেম্বরের মধ্যে সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতালের কার্যক্রম সম্পন্নের নির্দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৫:৫৯, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১   আপডেট: ১৫:৫৯, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১
১৬ ডিসেম্বরের মধ্যে সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতালের কার্যক্রম সম্পন্নের নির্দেশ

নির্মাণাধীন ৭০০ শয্যা বিশিষ্ট দেশের প্রথম সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতালের কার্যক্রম ১৬ ডিসেম্বরের আগে সম্পন্ন করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদ এ নির্দেশ দেন। যাতে করে উভয় দেশের সরকার প্রধান বিজয়ের মাসে সুপার স্পেশালাইজড হাসাপাতালের উদ্বোধন করতে পারেন। ইতোমধ্যে সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতালের কার্যক্রম ৮০ শতাংশ সম্পন্ন হয়েছে। এজন্য উপাচার্য এই হাসপাতালের সাথে সংশ্লিষ্ট সবাইকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

বাংলাদেশে নিযুক্ত কোরিয়ার রাষ্ট্রদূত মি. লী জাং-কিউন বৃহস্পতিবার নির্মাণাধীন সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতাল পরিদর্শন করেন। 

এ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদ বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতালটি চালু হলে রোগীদের বিদেশে যাওয়ার প্রবণতা আরো কমে যাবে। এর মাধ্যমে দেশের চিকিৎসা সেবা খাত আরও একধাপ এগিয়ে যাবে। দেশের চিকিৎসা সেবার পাশাপাশি মেডিক্যাল শিক্ষা ও গবেষণায় নতুন দিগন্ত উন্মোচিত হবে।

রাষ্ট্রদূত মি. লী জাং-কিউন বলেন, বাংলাদেশের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর নামে সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতাল শুধু বাংলাদেশ নয়, কোরিয়ার জন্যও অত্যন্ত গৌরব ও মর্যাদাপূর্ণ। হাসপাতালটি বাংলাদেশ ও কোরিয়ার মধ্যে ঘনিষ্ঠ বন্ধুত্বের উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত বহন করবে। সবচাইতে বড় কথা সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতালের মাধ্যমে বাংলাদেশের আপামর জনসাধারণ সর্বাধুনিক উন্নত চিকিৎসা সেবা পাবেন।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতালের স্ট্রাকচারাল কার্যক্রম ১০০ শতাংশ, আর্কিটেকচারাল ও সিভিল ওয়ার্ক ৮৫ শতাংশ, মেকানিক্যাল ও ইলেকট্রিক্যাল কার্যক্রম ৮০ শতাংশ, হসপিটাল ইনফরমেশন সিস্টেমসহ (এইচআইএস) প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি সংগ্রহের ৬০ শতাংশসহ যাবতীয় কার্যক্রমের ৮০ শতাংশ সম্পন্ন হয়েছে।

অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. শাহাদাত হোসেন, যুগ্ম-সচিব মো. আব্দুস সালাম খান, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ডা. একেএম মোশাররফ হোসেন, উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. ছয়েফ উদ্দিন আহমদ, প্রকল্প পরিচালক অধ্যাপক ডা. মো. জুলফিকার রহমান খান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

সাওন/এসবি

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ