ঢাকা, শনিবার, ২৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ০৬ জুন ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

টিকা আবিষ্কারের আগে লকডাউন তোলা ঝুঁকিপূর্ণ

নিউজ ডেস্ক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০৪-১০ ৫:৫৬:৪৭ এএম     ||     আপডেট: ২০২০-০৪-১১ ৭:১৪:০৯ পিএম

মহামারি করোনাভাইরাসে নাস্তানাবুদ গোটা বিশ্ব। বিশ্বের অর্থনীতি, পর্যটন, উৎপাদন, খেলাধূলা সব থমকে আছে। ১০০ দিন পূর্বে চীনের উহান প্রদেশে একটি ভাইরাসের অস্তিত্ব টের পাওয়া যায়। সেটি নিউমোনিয়ার মতো শ্বাসযন্ত্রের সমস্যা তৈরি করে মানুষকে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দেয়। ১০০ দিনের মাথায় ভাইরাসটি গোটা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়েছে। আক্রান্ত করেছে ১৬ লাখ মানুষকে। প্রাণ কেড়ে নিয়েছে প্রায় ১ লাখ মানুষের। 

অবশ্য যেখান থেকে করোনাভাইরাসের সূত্রপাত সেই উহান প্রদেশ করোনামুক্ত হয়েছে। বুধবার সেখান থেকে তুলে নেওয়া হয়েছে লকডাউনও। তবে ‘দ্য লানসেট’ নামক মেডিকেল জার্নালে প্রকাশিত এক গবেষণা প্রতিবেদনে উঠে এসেছে টিক আবিষ্কারের আগে কোনো এলাকার লকডাউন তুলে নেওয়া ঝুকিপূর্ণ একটি ব্যাপার। বিশেষ করে উহান প্রদেশের। তাদের মতে, এখনই উহান প্রদেশ থেকে লকডাউন তুলে নেওয়ার ফলে দ্বিতীয়বারের মতো মহামারি আকারে সেটা ছড়িয়ে পড়তে পারে।

গেল বুধবার উহান প্রদেশ থেকে ৭৬ দিনের লকডাউন তুলে নেওয়া হয়। যদিও কিছু কিছু বিশেষ বিধি-নিষেধ থাকছে। থাকছে নিষেধাজ্ঞা। কিন্তু ঝুঁকির বিষয়টি তাতে এড়িয়ে যাওয়া যায় না।

উহান প্রদেশ থেকে লকডাউন তুলে নেওয়ায় এখন সেখানকার কলকারখানা, স্কুল-কলেজ, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খুলতে শুরু করবে। মানুষ ঘর থেকে বেরিয়ে তাদের নিজ নিজ কর্মস্থলে যাবে। কিছুদিন সামাজিক দূরত্ব ও মাস্ক ব্যবহারের বিষয়টি মাথায় রাখলেও একটা পর্যায়ে গিয়ে ভুলে যাবে। ওই প্রদেশে অন্যান্য প্রদেশ ও বিদেশ থেকে মানুষের আসা-যাওয়া শুরু হবে। তাতে আবারো সেখানে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার ঝুঁকি তৈরি হবে।

এক্ষেত্রে লকডাউন একটি সুনির্দিষ্ট পদ্ধতিতে, আস্তে আস্তে তুলে নেওয়া উত্তম হবে। আর নির্দিষ্ট কিছু বিষয়ের উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতে হবে।

এই গবেষণা কেবল চীন কিংবা উহান প্রদেশের ক্ষেত্রে নয়, সকল দেশের জন্যই প্রযোজ্য। বিষয়টি মানা না হলে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে একাধিকবার হানা দিতে পারে প্রাণঘাতী এই ভাইরাস।

অবশ্য যদি আগামী ৬ মাসের মধ্যে টিকা ও ঔষুধ আবিস্কার করা সম্ভব হলে এমন ঝুঁকি এড়ানো সম্ভব হবে।

 

ঢাকা/আমিনুল